SomoyNews.TV

স্বাস্থ্য সময়

আপডেট- ২৫-০৮-২০১৮ ১৮:৪৬:৪১

জেনে নিন কী কারণে কিডনি রোগ হয়

kidney-news

কিডনি মানবদেহের অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি অঙ্গ। সুস্থতার জন্য কিডনির যত্ন নেওয়াটা অত্যন্ত জরুরি। কিন্তু অনেক সময়ে হঠাৎ কিডনি বিকল হওয়া, দীর্ঘমেয়াদী কিডনি বিকল হওয়া, সংক্রমণের কারণে কিডনির সমস্যা দেখা যায়। তবে, উচ্চ রক্তচাপ, ডায়াবেটিস, স্থূলতা ইত্যাদি কারণে কিডনির রোগ হয়।

 

মূলত তিন কারণে কিডনি রোগ হয়- একটি হলো ডায়াবেটিস, উচ্চ রক্তচাপ এবং কিডনি প্রদাহ, যাকে গ্লুমেরুলো নেফ্রাইটিস বলা হয়। এই তিনটি কারণে বাংলাদেশে ৮০ ভাগ কিডনি বিকল হয়। আর এর সঙ্গে যুক্ত হয়েছে স্থূলতা, ব্যায়াম না করা, ধূমপান। এছাড়াও আমরা অসুস্থ হলে যেসব ওষুধ খাই, অ্যান্টিবায়োটিক খাই এগুলো থেকে হতে পারে। এছাড়া পানি কম পান করা, তার সঙ্গে কিডনিতে পাথর হওয়া, বংশগত কিছু রোগ-এগুলো মিলিয়ে দেখা যায় কিডনি বিকল হয়।

গবেষণায় দেখা গেছে, ৭০ থেকে ৮০ ভাগ কিডনি বিকল হওয়ার আগ পর্যন্ত কিডনির কোনো লক্ষণই প্রকাশ পায় না। রোগ নির্ণয়ের জন্য মাত্র দুটো পরীক্ষা। প্রস্রাব পরীক্ষা করে দেখবে যে অ্যালবুমিন যায় কিনা, আর রক্তের ক্রিয়েটিনিন পরীক্ষা করে দেখবে যে ১০০ ভাগের মধ্যে কিডনি কতভাগ কাজ করছে। এ দুইটাই পরীক্ষা যদি করা হয় তাহলে আগে রোগ নির্ণয় করা যাবে।

বিশেষ করে যাদের বংশে ডায়াবেটিস রয়েছে, যাদের বয়স চল্লিশের ওপরে, যাদের উচ্চ রক্তচাপ রয়েছে, যাদের ওজন বেশি, যারা ধূমপান করে, যারা ব্যথার ওষুধ দীর্ঘদিন ধরে খাচ্ছে, যাদের কিডনিতে পাথর হয়েছে, যাদের সংক্রমণ হয় ঘন ঘন, এরা যদি বছরে দুই বার এই পরীক্ষাগুলো করে, তাহলে তারা প্রাথমিক অবস্থায় বুঝতে পারবে যে কিডনি আক্রান্ত হচ্ছে কিনা। দেশের সব হাসপাতালে এই পরীক্ষাগুলো করা যেতে পারে। এই সব পরীক্ষা তেমন খরচ হয় না।