SomoyNews.TV

Somoynews.TV icon মহানগর সময়

আপডেট- ২৪-০৭-২০১৮ ১৭:৪২:২২

'বৃষ্টি না হলে আমরা কেউ বাঁচতে পারতাম না'(ভিডিও)

thai-air

১৪৫ জন যাত্রী এবং ক্রু নিয়ে দুপুরে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অস্বাভাবিক অবতরণ করে থাই এয়ারওয়েজের TG-321 ফ্লাইটটি। এসময় বিমানের ডানদিকের চারটি চাকাই সম্পূর্ণরূপে ফেটে যাওয়ায় অস্বাভাবিক ঝাঁকুনিতে ভীতিকর পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়। তবে নিরাপদে রয়েছেন বিমানের সব যাত্রী। দুর্ঘটনার কারণে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে দুই ঘণ্টা বিমান উঠানামা বন্ধ থাকে। অনুসন্ধান শেষে দুর্ঘটনার প্রকৃত কারণ জানা যাবে বলে জানান বিমানবন্দরের পরিচালক।

১৪৫ জন যাত্রী এবং ক্রু নিয়ে থাইল্যান্ডের সুবর্ণভূমি আন্তর্জাতিক বিমান বন্দর থেকে স্থানীয় সময় সকাল ১০টা ৩৫ মিনিটে ঢাকার উদ্দেশ্যে ছেড়ে আসে থাই এয়ারওয়েজের বিমান টিজি ৩২১। বাংলাদেশ সময় ১২টা ১০ মিনিটে বিমানটি অবতরণের কথা থাকলেও ১২টা ১৮ মিনিটে বিমানটি হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অস্বাভাবিক অবতরণ করে। এতে বিমানটির ডান দিকের সবকটি চাকা বিস্ফোরিত হয়। তবে কি কারণে এই অস্বাভাবিক অবতরণ, তা তদন্তের পরই জানা যাবে।

অবতরণের সময় ভীতিকর পরিস্থিতির সৃষ্টি হলেও বিমানটি নিরাপদেই অবতরণ করে বলে জানান যাত্রীরা। এরপর তাদেরকে টার্মিনালে নিয়ে আসা হয়।

যাত্রীরা বলেন, প্রচণ্ড ঝাঁকি দেয়া শুরু করলো। অর্ধেক রাস্তায় বিমান তারা থামিয়ে দিল। তারপর বাসে করে আমাদের টার্মিনালে নিয়ে আসে।  আরেক যাত্রী বলেন, অনেক ঝাঁকি দিয়ে চারটি চাকায় বিস্ফোরণ ঘটে। আরেক যাত্রী বলেন, 'বৃষ্টি না হলে আমরা বাঁচতে পারতাম না।'

দুর্ঘটনার কারণে দুই ঘণ্টা বিমান ওঠানামা বন্ধ থাকার পর আড়াইটার দিকে রানওয়েটি পুনরায় খুলে দেয়া হয়। শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের পরিচালক আব্দুল্লাহ আল ফারুক বলেন, 'চাকাটা কিছু সময় বাইরে ছিল। তাই রানওয়েতে ঘাস, কাদা ছড়াই ছিল। আমরা ঘণ্টা দুয়েকের মধ্যে রানওয়ে পরিষ্কার করে ফেলেছি। ২ টা ৩৩ মিনিটে রানওয়ে খুলে দিয়েছি। বিমানটির ডান দিকের সব চাকায় ফেটে গিয়েছে। এখন তদন্ত করে বাদ বাকি জানা সম্ভব হবে'

রানওয়ে সাময়িক বন্ধ থাকায় মোট আটটি ফ্লাইট চট্টগ্রামের শাহ আমানত, সিলেটের ওসমানী বিমানবন্দর ও কলকাতা বিমানবন্দরে অবতরণ করে।