SomoyNews.TV

Somoynews.TV icon আন্তর্জাতিক সময়

আপডেট- ১৯-০৫-২০১৮ ০২:০৮:০৯

কিউবায় বিমান বিধ্বস্তে শতাধিক যাত্রী নিহত

kuba

কিউবার রাজধানী হাভানায় যাত্রীবাহী অভ্যন্তরীণ রুটের বিমান বিধ্বস্ত হয়ে ১০০ জন নিহত হয়েছেন। শুক্রবার দেশটির হোসে মারতি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে উঠার পরপরই বিমানটি বিধ্বস্ত হয়। নিহতদের মধ্যে অন্য দেশের নাগরিক রয়েছে কিনা তা এখনও নিশ্চিত করা যায়নি। গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়েছে ৩ জনকে। এ ঘটনায় শোক প্রকাশ করে দেশটির প্রেসিডেন্ট দ্রুত দুর্ঘটনার কারণ অনুসন্ধানের নির্দেশ দিয়েছেন।

কিউবার জাতীয় বিমান পরিবহন সংস্থা 'কিউবানা ডি অ্যাভিয়েশন'র যাত্রীবাহী উড়োজাহাজটি হাভানা থেকে প্রায় সাড়ে ৬শ কিলোমিটার দূরে হলগুইন শহরের উদ্দেশ্যে ছেড়ে যায়। বোয়িং ৭৩৭ মডেলের উড়োজাহাজটি উড্ডয়নের কিছুক্ষণ পরই বিধ্বস্ত হয়।

কর্তৃপক্ষ বলছে, যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে পাশের একটি হাইওয়েতে এটি অবতরণ করতে চাইলেও সেটি সম্ভব হয়নি। বিধ্বস্তের পরপরই বিমানটিতে আগুন ধরে যায়।

স্থানীয় একজন বলেন, 'এই বৃদ্ধা তার মেয়েকে খুঁজতে এসেছেন। তার ২৪ বছর বয়সী মেয়ে এই উড়োজাহাজটিতে ছিল। জানি না তার মরদেহ এখন আর মিলবে কিনা।'

আরেকজন বলেন, 'হঠাৎ করেই বিকট শব্দ শুনতে পাই। এরপর পুরো আকাশ ধোঁয়ায় ছেয়ে যায়। তখন বুঝতে পারি বিমান বিধ্বস্তের ঘটনা ঘটেছে।'

ঘটনার পরপর উদ্ধারকাজ পরিদর্শনে যান কিউবার প্রেসিডেন্ট মিগেল ডিয়াজ-কানেল। পরে তিনি তিনি সাংবাদিকদের জানান, দুর্ঘটনার কারণ সম্পর্কে খতিয়ে দেখছে তার সরকার।

কিউবার প্রেসিডেন্ট মিগেল ডিয়াজ-কানেল বলেন, 'দুর্ঘটনার খবর পাওয়া মাত্রই আমাদের উদ্ধারকারী দল সাড়া দিয়েছে, তারা সঙ্গে সঙ্গে কাজে নেমে পড়ে। এতে আশপাশের বাড়িঘরের কোনো ক্ষতি হয়নি। এছাড়া, আমাদের বিমানবন্দরও সচল আছে। দুর্ভাগ্যজনক এ ঘটনায় যারা নিহত হয়েছেন, তাদের প্রত্যেকের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানাচ্ছি।'

এদিকে, লাশ শনাক্তে হাসপাতালগুলোতে ভিড় করেন স্বজনরা। আগুনে পুড়ে যাওয়ায় মৃতদেহ শনাক্তে সময়ের প্রয়োজন বলে জানিয়েছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

হতাহতের ঘটনায় হাভানায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।