SomoyNews.TV

বিশ্বকাপের সময়

আপডেট- ০৭-০৪-২০১৮ ১৩:২৭:৫১

বিশ্বকাপের ভেন্যু পরিচিতি: ফিশট অলিম্পিক স্টেডিয়াম

shift

বিশ্বকাপের আগেও রাশিয়ায় আয়োজিত হয়েছে মেগা ইভেন্ট। ২০১৪ সালে শীতকালীন অলিম্পিক ও প্যারালিম্পিক আয়োজন করে সোচি। বিখ্যাত ফিশট অলিম্পিক স্টেডিয়ামে এবার হবে ফুটবল বিশ্বকাপের খেলা।

 

১৫ জুন স্পেন-পর্তুগালের ম্যাচ দিয়ে শুরু হয়ে, ফিশট স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হবে মোট ৬টি ম্যাচ। বিশ্বকাপের বিশেষ আয়োজনে আজ থাকছে ফিশট অলিম্পিক স্টেডিয়ামের খবর।

দক্ষিণ পশ্চিম রাশিয়ার ককেশাস পর্বতমালার অন্যতম চূড়া মাউন্ট ফিশট। এই পর্বতের নামানুসারে সোচির ফিশট অলিম্পিক স্টেডিয়ামের নামকরণ করা হয়েছে।

১৯৮০ সালে মস্কো অলিম্পিকের পর, প্রথম কোনো বৈশ্বিক ইভেন্টের আয়োজক হয় রাশিয়ার সোচি। ২০১৪ সালে সফলভাবেই অনুষ্ঠিত হয় শীতকালীন অলিম্পিক ও প্যারালিম্পিক গেমস। এই দুই আসরের উদ্বোধনী ও সমাপনী হয়েছিল ফিশট অলিম্পিক স্টেডিয়ামে।

এবার এই ভেন্যুতে বসছে গ্রেটেস্ট শো অন আর্থ ফিফা ফুটবল বিশ্বকাপ। ২০১৪তে শীতকালীন অলিম্পিক অনুষ্ঠিত হওয়ায়, বিশ্বকাপের আগে প্রয়োজন হয়নি অবকাঠামোগত ব্যাপক উন্নয়ন। তারপরও ফিফা কনফেডারেশনস কাপ ও বিশ্বকাপকে সামনে রেখে ৪৬ মিলিয়ন মার্কিন ডলার ব্যয়ে আনা হয়েছে বেশ কিছু পরিবর্তন।

৪৭ হাজার দর্শক ধারণ ক্ষমতার এই স্টেডিয়ামটি নির্মাণ করা হয়েছে সোচির তুষারময় শিখরের আদলে। স্টেডিয়ামটির একদিক থেকে সরাসরি দেখা যায় ক্রাসনায়া পলিয়ানা পর্বতমালা আর বিপরীত দিকে থেকে দেখা যায় কৃষ্ণ সাগর।

২০১৭ ফিফা কনফেডারেশনস কাপের ৪টি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হলেও, বিশ্বকাপে এই স্টেডিয়ামে হবে ৬টি ম্যাচ। ১৫ জুন পর্তুগাল ও স্পেনের হাই ভোল্টেজ ম্যাচ দিয়ে শুরু হবে বিশ্বকাপ। এর তিন পর খেলবে বেলজিয়াম ও পানামা। ২৩ জুন জার্মানি গ্রুপ পর্বে সুইডেনের মুখোমুখি হবে এই মাঠে। আর ২৬ জুন খেলবে অস্ট্রেলিয়া ও পেরু। নক আউট পর্বেরও দুটি ম্যাচ হবে ফিশট স্টেডিয়ামে। ৩০ জুন রাউন্ড অব সিক্সটিন আর ৭ জুলাই হবে কোয়ার্টার ফাইনালের একটি ম্যাচ।

বিশ্বকাপের আয়োজক শহর নির্বাচনে পর্যটকদের কথাও বিবেচনায় ছিলো রাশিয়ার। গরম আবহাওয়া ও পর্যটনের জন্য বিখ্যাত সোচি। প্রতিবছর ২০ লাখেরও বেশী পর্যটক ভ্রমণ করে এই শহর। তাই বিশ্বকাপে শুধু খেলা না, সোচির প্রাকৃতিক সৌন্দর্যও মুগ্ধ করবে দর্শকদের।