SomoyNews.TV

বিশ্বকাপের সময়

আপডেট- ০৬-০৪-২০১৮ ১২:৪৯:৩৯

বিশ্বকাপের ভেন্যু পরিচিতি: রোস্তভ অ্যারেনা

rostov

রোস্তভ অন ডন। দক্ষিণ রাশিয়ার প্রশাসনিক কেন্দ্রবিন্দুর অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ বন্দরনগরী। প্রথমবারের মতো বড় কোনো ক্রীড়া ইভেন্টের সঙ্গে যুক্ত হতে যাচ্ছে শহরটি। বিশ্বকাপের ১২ স্টেডিয়ামের অন্যতম ভেন্যু এই শহরের 'রোস্তভ অ্যারেনা'।

 

এই স্টেডিয়ামের দর্শক ধারণ ক্ষমতা ৪৫ হাজার। আগামী ১৭ জুন ব্রাজিল ও সুইজারল্যান্ডের মধ্যকার ম্যাচ দিয়ে যাত্রা শুরু হবে স্টেডিয়ামটির। বিশ্বকাপের বিশেষ আয়োজনে আজ থাকছে রোস্তভ অ্যারেনার খবর।

রোস্তভ অন ডন, একইসঙ্গে সংস্কৃতি এবং ব্যবসা বাণিজ্যের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি শহর। রাশিয়ার ডন নদীর তীরে অবস্থিত ৩৪৮ বর্গ কিলোমিটার আয়তনের এ শহরটির রয়েছে ঐতিহ্যবাহী অতীত ইতিহাস এবং গৌরবান্বিত বর্তমান।

এর আগে কখনোই কোন ক্রীড়া ইভেন্টের সঙ্গে যুক্ত না থাকায় এর প্রস্তুতি নিয়ে সন্দেহ ছিলো অনেকের মনেই। তবে নিন্দুকদের মুখে ছাই দিয়ে বিশ্বকাপের আয়োজক হিসেবে দর্শনার্থীদের স্বাগত জানাতে ১০ লক্ষ ৮৯ হাজার জনসংখ্যার এই শহরটি এখন পুরোপুরি প্রস্তুত।

খেলাধুলার জন্য রোস্তভের সবচেয়ে বিখ্যাত ভেন্যু রোস্তভ অ্যারেনা স্টেডিয়াম। নিয়মিত রাশিয়ান লিগের খেলা আয়োজন করে থাকা এ মাঠটি মূলত এফ সি রোস্তভের হোম গ্রাউন্ড।

২০১৩ সালে প্রথমবারের মতো স্টেডিয়ামটির সংস্কার কাজে হাত দেয় রাশান সরকার। এসময় ২য় বিশ্বযুদ্ধের সময়কার বিভিন্ন গোলাবারুদ খুঁজে পাওয়া যায় স্টেডিয়ামটিতে। নিরাপত্তার স্বার্থেই এরপর আমূল পরিবর্তন করা হয় এর নকশায়, শুরু হয় নতুন করে নির্মাণ কাজ।

পপুলাসের নকশায় নির্মাণ করতে সময় লেগেছে ৭ বছর। অর্থের হিসেবে খরচ হয়েছে ৩ বিলিয়ন রুবল। যদিও বিশ্বকাপের পর এখানে আরো কিছু সংস্কার কাজ করা হবে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

রোস্তভ অ্যারেনার উদ্বোধন হবে বিশ্বকাপে গ্রুপ-ই'র সুইজারল্যান্ড ও ব্রাজিলের ম্যাচ দিয়ে। আরাধ্য এ ম্যাচের ৩ দিন পর, ২০ জুন সাবেক বিশ্বচ্যাম্পিয়ন উরুগুয়ের মুখোমুখি হবে সৌদি আরব। ২৩ জুন দক্ষিণ কোরিয়া-মেক্সিকো আর ২৬ জুন লড়বে আইসল্যান্ড ও ক্রোয়েশিয়া। গ্রুপ পর্বের এ ম্যাচগুলোর পর রোস্তভ অ্যারেনায় রাউন্ড অব সিক্সটিনের একটি ম্যাচও অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে।

বিশ্বকাপের আয়োজক অন্য শহরগুলোর মত, রোস্তভেও আছে প্রাকৃতিক ও ঐতিহাসিক কিছু নিদর্শন যা বাড়তি আকর্ষণ পর্যটকদের জন্য।