SomoyNews.TV

Somoynews.TV icon মহানগর সময়

আপডেট- ২৮-০৩-২০১৮ ২০:৩০:২৫

কাটা হলো কবিরের পা, বাড়ি ফিরলো রুবায়েত-স্বর্ণা-মেহেদী

kabir

নেপালে বিমান দুর্ঘটনায় আহত রুবায়েত, স্বর্ণা ও মেহেদীকে ঢাকা মেডিকেল থেকে ছাড়পত্র দেয়া হয়েছে। ছাড়পত্র পেয়ে বাড়ি ফিরেছেন তারা।

এদিকে বিমান দুর্ঘটনায় দুই পায়ের হাঁটুর নিচ থেকে অনেক জায়গায় ভেঙে যাওয়ায় কবির হোসেনের ডান পায়ের হাঁটুর নিচের অংশ মঙ্গলবার কেটে ফেলা হয়েছে।

গত শনিবার এখানকার চিকিৎসকরা তার ডান পায়ের হাঁটুর নিচের অংশ কেটে ফেলার পক্ষে মত দিয়েছিলেন। সে সময় পরিবার তাকে সিঙ্গাপুর নেওয়ার আগ্রহ জানালে সোমবার ভোরে ইউএস- বাংলার একটি এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে কবিরকে সিঙ্গাপুর জেনারেল হাসপাতালে নেওয়া হয়। ওই হাসপাতালের কনসালট্যান্ট ডা. সি জ্যাকের অধীনে চিকিৎসাধীন আছেন তিন সন্তানের জনক কবির।

এছাড়া কবিরের শরীরের অনেক জায়গায়ই দগ্ধ হয়েছে। ঢাকা মেডিকেলের বার্ন ইউনিটে একবার অস্ত্রোপচারের পর তাকে আইসিইউতে রাখা হয়।

গত ১২ মার্চ কাঠমান্ডুর ত্রিভুবন বিমানবন্দরে ইউএস-বাংলার একটি উড়োজাহাজ বিধ্বস্ত হয়ে ৭১ আরোহীর মধ্যে ৪৯ জনের মৃত্যু হয়। তাদের মধ্যে চার ক্রুসহ ২৬ জন ছিলেন বাংলাদেশি।

আহতদের মধ্যে ১০ জন ছিলেন বাংলাদেশি। তাদের মধ্যে সাতজনকে দেশে ফিরিয়ে এনে ঢাকা মেডিকেলের বার্ন ইউনিটে ভর্তি করা হয়েছিল। গত সোমবার ভোরে কবির সিঙ্গাপুরে যাওয়ার পর বিকালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান শাহীন ব্যাপারী। আহতদের মধ্যে শাহীনই সবচেয়ে বেশি দগ্ধ হয়েছিলেন।

আহতদের মধ্যে মেহেদী, স্বর্ণা ও রুবায়েত ছাড়া আলমুন্নাহার অ্যানি ও শাহরিন আহমেদ ঢাকা মেডিকেলের বার্ন ইউনিটে ছিলেন। তিনজন চলে যাওয়ায় এখন শুধু অ্যানি ও শাহরিন সেখানে চিকিৎসাধীন আছেন।