SomoyNews.TV

Somoynews.TV icon মহানগর সময়

আপডেট- ২৬-০৩-২০১৮ ১৫:৫১:২৩

নেপালে বিমান দুর্ঘটনায় আহত শাহীন ব্যাপারীর অবস্থার অবনতি

shahin-bepari

নেপালের ওই দুর্ঘটনায় বেঁচে যাওয়া ১০ বাংলাদেশির মধ্যে অন্যতম শাহীন ব্যাপারীকে প্রথমে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছিলো কাঠমাণ্ডুতেই। তখন জানানো হয়েছিলো, তার শরীরের ১৬ শতাংশ পুড়ে  গেছে। 

কিন্তু পরবর্তীতে তাকে ঢাকায় নিয়ে আসা হলে ঢাকা মেডিকেলের বার্ন ইউনিট অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইউনিটের সমন্বয়ক অধ্যাপক ডা. সামন্ত লাল সেন গণমাধ্যমকে জানান, তার ক্ষতের পরিমাণ ধারণার চেয়ে দ্বিগুল। 

সামন্ত লাল সেন এও জানিয়েছিলেন, আহত যে ছয়জনকে বাংলাদেশে আনা হয়েছে, তাদের মধ্যে শাহীন ব্যাপারীর অবস্থাই সবচেয়ে গুরুতর।   

১২ মার্চ কাঠমান্ডুতে ত্রিভুবন বিমানবন্দরে উড়োজাহাজটি বিধ্বস্ত হওয়ার পর এতে আগুন ধরে যায়। যাত্রীদের মধ্যে শাহীনসহ ১০ বাংলাদেশি বেঁচে গেলেও তাদের প্রায় সবার দেহেই আগুনের ক্ষত রয়েছে।

শাহীন স্ত্রী রিমা ও আট বছরের মেয়ে সূচনাকে নিয়ে নারায়ণগঞ্জের আদমজীর একটি বাসায় থাকেন। ঢাকার সদরঘাটে 'করিম এন্ড সন্স' নামে একটি কাপড়ের দোকানে ম্যানেজার হিসেবে কাজ করেন তিনি।