আপডেট
১৪-১১-২০১৭, ০৮:২৯
বাংলার সময়

অনেকটাই ফিকে হয়ে গেছে গ্রামগঞ্জের নবান্ন উৎসব

untitled-1-jpg-ed
নতুন ধানে হবে নবান্ন। পাকা ধানের সোনালী মাঠে, তাই কাস্তে হাতে কৃষকের আনাগোনা। নতুন ধানে পিঠা পুলি, পায়েস, মুড়িমুড়কি আর মোয়াসহ নানা খাবার তৈরি হবে এ দিনে। বাড়িতে বাড়িতে মেয়ে জামাইসহ আমন্ত্রিত হবেন আত্মীয়রা। তাই ব্যস্ততা বেড়েছে কৃষক-কৃষাণীর। তবে প্রাবন্ধিক গবেষকদের মতে, বনেদি কৃষকদের নাগরিক হতে শহরে আসা, ধানের নতুন জাত আর আর্থসামাজিক কারণে, নবান্ন উৎসব অনেকটাই ফিকে হয়ে গেছে।

বগুড়ার মাঠে মাঠে মাঠে চলছে ধান কাটা মাড়ার উৎসব। কয়েক দিন পর হবে নবান্ন উৎসব।  দুবারের বন্যায় ক্ষতির পর ধানের ভালো ফলন এবং বাজারমূল্য ভালো হওয়ায় দারুণ খুশি এলাকার কৃষক। তাই সামনের নবান্ন উৎসব তাদের মনে এনে দিয়েছে বাড়তি আনন্দ।

নবান্নের আয়োজনকে ঘিরে কৃষকের পাশাপাশি কৃষাণিরাও ব্যস্ত সময় পার করছেন। ঢেঁকিতে ধান ভেনে আটা করা, আর সেটা দিয়েই তৈরি হবে পিঠা পুলি।  আমন্ত্রণ জানানো হবে আত্মীয় স্বজনদের।

দিনটিকে ঘিরে আনন্দের মাত্রা বেড়ে যায় গ্রামের ছেলে মেয়েদের মধ্যে। আত্মীয় স্বজনদের সাথে আনন্দ করে ঘুরে বেড়ানো, গ্রাম্য মেলায় দল বেঁধে যাওয়া, খাবার খাওয়া সব মিলিয়ে বেশ আনন্দেই কাটে দিনটি।

গ্রামের বনেদী কৃষকদের অতি শহুরে হয়ে যাওয়া, নবান্নের জন্য ধানের বিশেষ জাতটি হারিয়ে ফেলাসহ আর্থসামাজিক নানা কারণে  নবান্নের উৎসব মুখর পরিবেশ অনেকটা ম্লান হয়ে গেছে বলে মনে করেন বগুড়া সরকারি আজিজুল হক কলেজের বাংলা বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ড. মীর ত্বাইফ মামুন মজিদ।

তিনি বলেন, 'কৃষকরা সব নাগরিক হওয়ার জন্য জমিজমা রেখে শহরে গিয়ে বসবাস করছে। ফলে নবান্নের যে উৎসব তা গ্রাম অঞ্চলে ভাটা পড়েছে।'


বাংলা বর্ষ পঞ্জিকায় পহেলা অগ্রহায়ণ উদযাপিত হয় গ্রাম বাংলার প্রাণের উৎসব নবান্ন।

পিএস/




DMCA.com Protection Status

এই বিভাগের সকল সংবাদ

Contact Address

Nasir Trade Centre, Level-9,
89, Bir Uttam CR Dutta Road, Dhaka 1205, Bangladesh
Email: somoydigitalsomoynews.tv

Find us on

  Live TV DMCA.com Protection Status
উপরে