আপডেট
১৩-১১-২০১৭, ২০:১৭

ইতালিকে ছাড়াই বিশ্বকাপ? জবাব মিলবে আজ

adfr
চারবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন ইতালি খেলতে পারবে তো আসন্ন বিশ্বকাপে? নাকি এক যুগ পর সুযোগ মিলবে সুইডেনের? প্রশ্নের উত্তর মিলবে আজ রাতের ম্যাচে। বিশ্বকাপ বাছাইয়ে ফিরতি লেগের ম্যাচে মুখোমুখি হচ্ছে দুই দল। রাশিয়ার বিমান ধরতে হলে এই ম্যাচে জিততেই হবে আজ্জুরিদের। অন্যদিকে ড্র করলেই বিশ্বকাপে নাম লেখাবে সুইডেন। মিলানের সান সিরোতে ম্যাচটি শুরু হবে আজ (সোমবার) রাত পৌনে ২টায়।
যেন জীবন্ত বাঘের ডেরায় এক পা ঢুকিয়ে দেয়া হয়েছে কিংবা খাদের একেবারে কিনারে দাঁড় করিয়ে দেয়া হয়েছে। এখান থেকে পা হড়কালেই বিপদ। চারবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়নদের সুযোগই মিলবেনা পরের বিশ্বকাপে অংশ নেয়ার!

বলা হচ্ছে ইতালির কথা। আরেকবার বিশ্বকাপ যখন দরজায় কড়া নাড়ছে আজ্জুরিরা তখন লড়ছে নিজেদের বিশ্ব দরবারে হাজির করতে।

সুইডেনের কাছে গেল ম্যাচে হেরেই যতো বিপত্তি। শঙ্কা জেগেছে প্রায় ছয় দশক পর আবারো বিশ্বকাপ খেলতে না পারার। ১৯৫৮'র পর সবকটি বিশ্বকাপে ইতালিয়ানরা অতি পরিচিত নাম।

গেল ম্যাচে ১-০ গোলে জিতে নেয়া সুইডেন অবশ্য মিলানে নামছে একরাশ স্বপ্নালু চোখে। গেল বিশ্বকাপেই এক রোনালদোর হ্যাট্রিকের কাছে ধূলিসাৎ হয়েছিল বিশ্বকাপ স্বপ্ন। এবারো ঠিক এক ম্যাচ দূরত্বে দাঁড়িয়ে সুইডিশরা। এবার হবে তো?

কঠিনতম পরীক্ষার আগে ঠিক কতোটা স্বস্তিতে ইতালির কোচ পিয়েরে ভেন্তুরা? নিষেধাজ্ঞায় থাকা মার্কো ভেরোত্তি থাকছেন না। অস্বস্তিতে আছেন দলের গোলমেশিনরাও। সমালোচনার ঝড় বইছে কোচের ফরমেশন নিয়েও। গেল ম্যাচেই যেমন লরেঞ্জো ইনসিনিয়েকে শুরুর একাদশে না রেখে পড়েছিলেন তোপের মুখে। সবমিলিয়ে ইতালির ইতিহাসের সবচে বয়স্ক কোচকে মাথা ঘামাতে হচ্ছে এসব সমালোচনা নিয়েও।


'দেখুন গেল কদিনে সমর্থকদের কাছ থেকে আমি যে পরিমাণ পরামর্শ পেয়েছি সেসব যদি আমি শোনার চেষ্টা করি তাহলেও আমার মাসখানেক লেগে যাবে। আমি জানিনা এই ম্যাচটি ঠিক কেমন হবে। তবে আমি জানি আমাদের ভালো ফুটবল খেলতে হবে।' বলছিলেন ইতালির কোচ পিয়েরো ভেন্তুরা।

সুইডেনের রেকর্ড অতোটা সমৃদ্ধ নয় ঠিকই, তবে গেল ম্যাচেই ইতালিকে রুখে দেয়ার সুখস্মৃতি আছে। আর একটি ম্যাচের বাধা টপকাতে পারলেই এক যুগ পর বিশ্বকাপ খেলার সুযোগ। আত্মবিশ্বাসের পালেও লাগছে হাওয়া।

সুইডেনের কোচ জ্যান এন্ডারসন বলেন, 'আমরা আমাদের কাজের ব্যাপারে সচেতন। আমরা এগিয়ে থাকতে চেয়েছিলাম এবং সেটি পেরেছিও। আমরা আমাদের পারফরমেন্স নিয়ে সন্তুষ্ট এবং আবারো এগিয়ে যেতে চাই।'

ম্যাচটিতে হারলেই আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ার শেষ হয়ে যাবে কিংবদন্তী জিয়ানলুইজি বুফনের। ইতালির বিশ্বকাপজয়ীকে দেখতে হতে পারে মুদ্রার উল্টো পিঠ। নিজেদের মাঠে লেখা হয়ে যেতে পারে ট্র্যাজিক কোন কাব্য।



ইতালির বিশ্বকাপ ইতিহাস
১৯৩০- খেলতে পারেনি
১৯৩৪- চ্যাম্পিয়ন
১৯৩৮- চ্যাম্পিয়ন
১৯৫০- গ্রুপ পর্ব
১৯৫৪- গ্রুপ পর্ব
১৯৫৮- কোয়ালিফাই করতে পারেনি
১৯৬২- গ্রুপ পর্ব
১৯৬৬- গ্রুপ পর্ব
১৯৭০- ফাইনাল
১৯৭৪- গ্রুপ পর্ব
১৯৭৮- চতুর্থ
১৯৮২- চ্যাম্পিয়ন
১৯৮৬- শেষ ষোল
১৯৯০- তৃতীয়
১৯৯৪- ফাইনাল
১৯৯৮- কোয়ার্টার ফাইনাল
২০০২- শেষ ষোল
২০০৬- চ্যাম্পিয়ন
২০১০- গ্রুপ পর্ব
২০১৪- গ্রুপ পর্ব




DMCA.com Protection Status

এই বিভাগের সকল সংবাদ

Contact Address

Nasir Trade Centre, Level-9,
89, Bir Uttam CR Dutta Road, Dhaka 1205, Bangladesh
Email: somoydigitalsomoynews.tv

Find us on

  Live TV DMCA.com Protection Status
উপরে