আপডেট
১২-১০-২০১৭, ১৫:৫০

ক্যালিফোর্নিয়ায় ভয়াবহ দাবানলে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ২১

cali-fire
ক্যালিফোর্নিয়ায় ভয়াবহ দাবানলে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ২৩ জনে দাঁড়িয়েছে। সোনোমা কাউন্টেই মারা গেছেন ১৩জন। এখনো সেখানকার ৩ শতাধিক মানুষ নিখোঁজ বলে জানিয়েছেন সেখানকার পুলিশ প্রধান। নিরাপদ আশ্রয়ে থাকা অনেকের মধ্যে নিখোঁজরা থাকতে পারেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।
দাবানলে ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ ১ হাজার কোটি ডলার ছাড়িয়ে গেছে বলে জানিয়েছেন ক্যালিফোর্নিয়ার গভর্নর জেরি ব্রাউন। এমন দুর্যোগপূর্ণ পরিস্থিতিতে সব ধরণের সহায়তা দেয়ার আশ্বাস দিয়েছেন ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্স।

দূর থেকে দেখে মনে হয় যেন যুদ্ধ বিধ্বস্ত কোন নগরী। এটি ক্যালিফোর্নিয়ার সোনোমো কাউন্টি চিত্র। রোববার থেকে এ পর্যন্ত দ্রুতগতিতে ছড়িয়ে পড়া দাবানলে ভস্মীভূত হয়ে পড়ে সোনোমোসহ রাজ্যের ৯টি কাউন্টির বিস্তীর্ণ অঞ্চল। আগুনে শতবর্ষী এক দম্পতি পুড়ে মারা গেছে বলে জানিয়েছে স্থানীয় প্রশাসন। ৭৫তম বিবাহবার্ষিকী উদযাপনের দিন আগুন কেড়ে নেয় এই প্রবীণ দম্পতির প্রাণ। বুধবার আগুন নিয়ন্ত্রিত এলাকাগুলোয় স্থানীয়রা ফিরে এলেও চিনতে পারছেন না এতদিনের পরিচিত ভিটেমাটিকে।

স্থানীয় এক নারী বলেন, আমার এতদিনের সাজানো ঘর পুরো তছনছ হয়ে গেছে। ভাগ্য ভালো যে আমার পরিবারের কারো ক্ষতি হয়নি।এখন তাদের সঙ্গে নিয়েই আবার নতুন করে শুরু করবো।

অপর এক ব্যক্তি বলেন, আগুন শহরের এতোটা ভেতরে চলে আসবে কখনো ভাবতে ও পারিনি। দেখে মনে হচ্ছিলো সিনেমার কোন শট। বাস্তব বলে বিশ্বাস হচ্ছিল না।

ক্যালিফোর্নিয়ায় ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে হতাহতের সংখ্যা প্রতিনিয়ত বেড়েই চলছে। নিখোঁজদের সন্ধানে তৎপর ভূমিকা পালন করছে নিরাপত্তা বাহিনী। আশ্রয়ে থাকা অনেকের মধ্যে নিখোঁজরা থাকতে পারেন বলে ধারণা করছেন তারা। আগুনের লেলিহান শিখায় এরইমধ্যে পুড়ে গেছে প্রায় ১ লাখ ৭৫ হাজার একর জমি। ছাই হয়ে গেছে সাড়ে তিন হাজার বসতঘর। আগুন নিয়ন্ত্রণে ৮ হাজার দমকলকর্মীর পাশাপাশি কাজ করছে ৩০টি এয়ার ট্যাঙ্কার ও ৭৩টি হেলিকপ্টার।


সবচেয়ে খারাপ অবস্থা স্যান সান্টা রোসা, নাপা ভ্যালি ও ওয়াইন কাউন্টির। সেখানকার অধিকাংশ শিল্প কারখানা, বিস্তীর্ণ আবাদি জমি, বিলাসবহুল হোটেল এমনকি স্কুল ও হাসপাতাল ভস্মীভূত হয়ে গেছে। সোনোমা ও নাপা কাউন্টিতে বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন হয়ে আছে অন্তত ১ লাখ বাসিন্দা। গ্যাস সরবরাহ বন্ধ রয়েছে ২৮ হাজার স্থাপনায়। এ পরিস্থিতিতে দুর্গতদের সব ধরণের সহায়তার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্স।

ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্স বলেন, যুক্তরাষ্ট্র একের পর এক দুর্যোগের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করে আসছে। হারিকেন দুর্গতদের সহায়তায় ট্রাম্প প্রশাসন যেভাবে কাজ করেছে ক্যালিফোর্নিয়ার ক্ষেত্রে ও একই ভূমিকা থাকবে।

দাবানলে ক্ষতির পরিমাণ ১ হাজার কোটি ডলার ছাড়িয়ে গেছে বলে জানিয়েছেন ক্যালিফোর্নিয়ার গভর্নর জেরি ব্রাউন। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে ৫টি কাউন্টিতে জরুরি অবস্থা অব্যাহত থাকবে বলে ঘোষণা করেন তিনি।

ক্যালিফোর্নিয়ার গভর্নর জেরি ব্রাউন বলেন, যে ক্ষতি হয়েছে সেটা শুধু টাকার অঙ্কে পরিমাপ করা যাবেনা। আমাদের একে অপরের পাশে দাঁড়িয়ে পরিস্থিতি মোকাবিলা করতে হবে। প্রশাসন যথাসাধ্য চেষ্টা করবে ক্যালিফোর্নিয়াকে দ্রুত আগের রূপে ফিরিয়ে নিতে।

খরতাপ এবং শুষ্ক বায়ু প্রবাহের কারণে দাবানল এতোটা দ্রুত ছড়িয়ে পড়েছে বলে জানান স্থানীয় আবহাওয়া দফতর। আগুন ২২টি খণ্ডে চতুর্দিকে ছড়িয়ে পড়ায় তা নিয়ন্ত্রণ করা কঠিন হয়ে পড়ে। তবে বুধবার আবহাওয়া শীতল হতে শুরু করলে এবং বাতাসের বেগ কমে যাওয়ায় আগুনের ছড়িয়ে পড়া অনেকটাই কমে আসে।




DMCA.com Protection Status

এই বিভাগের সকল সংবাদ

Contact Address

Nasir Trade Centre, Level-9,
89, Bir Uttam CR Dutta Road, Dhaka 1205, Bangladesh
Email: somoydigitalsomoynews.tv

Find us on

  Live TV DMCA.com Protection Status
উপরে