আপডেট
১২-১০-২০১৭, ১২:৩৮

ব্রাজিল থেকে রাশিয়া, মেসির রোমাঞ্চকর যাত্রা

untitled-3
গত বছর কোপা আমেরিকার ফাইনালে হারের পর আন্তর্জাতিক ফুটবলকে বিদায় বলে দিয়েছিলেন মেসি। ভক্ত-সমর্থক আর আর্জেন্টিনার প্রেসিডেন্টের অনুরোধে আবারো ফেরেন আন্তর্জাতিক ফুটবলে। ২০১৮ বিশ্বকাপের বাছাই পর্বে ধুঁকতে থাকা আলবিসেলেস্তেদের রাশিয়ার টিকিট পাইয়ে দিতে নাটকীয় এক জয় এনে দিলেন তিনিই।
পরপর তিনটি মেগা আসরের ফাইনালে হারের পর আবারো কিংবদন্তির বিশ্বকাপ জয়ের সম্ভাবনা টিকে রয়েছে। ২০১৪ থেকে ২০১৭। ব্রাজিল থেকে চিলি। এরপর রাশিয়ার জাহাজে চড়তে মেসির ফুটবলীয় সংগ্রামের রোমাঞ্চে ভরা গল্প।

জিতলেন আর্জেন্টিনার মেসি। এটি আকাশী-নীল জার্সিতে তার অন্য অনেক জয়ের চেয়ে আলাদা। ইকুয়েডর বধে জাদু দেখালেন আলবিসেলেস্তেদের মহানায়ক। হ্যাট্রিক করে জয় ছিনিয়ে নিলেন তো বটেই, আর্জেন্টিনা দলের বিশ্বকাপে খেলার নিভু নিভু স্বপ্নে আলোর বিচ্ছুরণ ঘটালেন এলএম টেন।

ব্রাজিল থেকে রাশিয়া। একটা সূক্ষ্ম যোগসূত্র আছে। ২০১৪ বিশ্বকাপের ফাইনালে মারাকানায় জার্মানির কাছে শেষ মুহূর্তের গোলে হার, আর্জেন্টিনার ফুটবল ইতিহাসে রেখে গেছে বেদনার নীল খাম। চরম হতাশায় নুয়ে পড়া সেদিনের সেই মেসি, ৩ বছর পর হয়তো কিছুটা স্বস্তি পেলেন।

অথচ হতেও পারতো, এই ম্যাচটিতে থাকতেনই না তিনি। ২০১৫ সালের পর, শতবর্ষী কোপা আমেরিকার ফাইনালেও চিলির কাছে টাইব্রেকারে হারের দুঃখ সহ্য করতে না পেরে অবসরই নিয়ে ফেলেছিলেন। আন্তর্জাতিক ফুটবলে এই শূন্যতা বড়ই বেমানান। গোটা বিশ্বের ভক্তরা তো বটেই, আর্জেন্টিনার প্রেসিডেন্টও এই সিদ্ধান্ত বদলানোর অনুরোধ জানান। অনুরোধে সাড়া দিয়ে আবারো আকাশী জার্সিটা গায়ে জড়ান তিনি।

মেগা আসরের ফাইনাল আর আর্জেন্টিনার মেসি- এই দুই যেন ট্র্যাজেডির প্রতিশব্দ। বিশ্বকাপ বাছাই পর্বে ইকুয়েডরকে হারিয়ে অলিখিত এক ফাইনাল জিতেছেন তিনি। শেষ মুহূর্তে সাম্পাওলিদের রাশিয়ার জাহাজে টেনে তুলেছেন তিনি। সম্ভবত একইসঙ্গে নবজীবন পেয়েছে তার নিজের ক্যারিয়ারও। কারণ বিশ্বকাপে কোয়ালিফাই করা না হলে হয়তো লেখা হয়ে যেতো আর্জেন্টাইন কিংবদন্তির ক্যারিয়ারের এপিটাফ।





DMCA.com Protection Status

এই বিভাগের সকল সংবাদ

Contact Address

Nasir Trade Centre, Level-9,
89, Bir Uttam CR Dutta Road, Dhaka 1205, Bangladesh
Email: somoydigitalsomoynews.tv

Find us on

  Live TV DMCA.com Protection Status
উপরে