আপডেট
১৪-০৯-২০১৭, ০৯:৫৩

রোহিঙ্গা নিধনযজ্ঞের নিন্দায় জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের বিবৃতি

un-myan-jpg-eeeeeeee
রাখাইনে রোহিঙ্গাদের ওপর সহিংসতার নিন্দা জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদ। নিরাপত্তা পরিষদের বৈঠকে রোহিঙ্গা নির্যাতন বন্ধে জরুরি পদক্ষেপ নেয়ারও আহ্বান জানানো হয়। এদিকে, রাখাইনে সেনা অভিযান স্থগিতের আহ্বান জানিয়েছেন জাতিসংঘ মহাসচিব অ্যান্তোনিও গুতেরেস।
তিনি বলেন, 'রাখাইনে রোহিঙ্গা নির্যাতনের তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি। রোহিঙ্গাদের এই সংকটকালে বিশ্বের সব দেশকে তাদের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান জানাচ্ছি। জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদ রোহিঙ্গা ইস্যু নিয়ে যে সিদ্ধান্ত নিয়েছে আমি তা স্বাগত জানাচ্ছি।'

রাখাইনে মিয়ানমার সেনাবাহিনীর হত্যা-অগ্নি সংযোগের মুখে জীবন বাঁচাতে সীমান্ত পাড়ি দিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নিচ্ছে লাখ লাখ রোহিঙ্গা। এমন প্রেক্ষাপটে বুধবার যুক্তরাজ্য ও সুইডেনের আহ্বানে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের বৈঠকে আলোচনা হয় রোহিঙ্গা ইস্যুতে।

পরে এক বিবৃতিতে ১৫ সদস্যের এই কাউন্সিল রাখাইনে নিরাপত্তা বাহিনীর অভিযানে সহিংসতার খবরে উদ্বেগ জানায়। পাশাপাশি সহিংসতা বন্ধে অবিলম্বে মিয়ানমার সরকারকে পদক্ষেপ নেয়ারও আহ্বান জানানো হয়য়।

জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের ভারপ্রাপ্ত প্রেসিডেন্ট তেকেদা অ্যালেমু বলেন, 'রাখাইনে বর্তমান পরিস্থিতি নিয়ে নিরাপত্তা পরিষদ তীব্র নিন্দা জানাচ্ছে। সেখানে নিরাপত্তা বাহিনীর অভিযান ও সহিংসতা নিয়ে আমরা খুবই উদ্বিগ্ন। আশা করি সহিংসতা বন্ধে অবিলম্বে মিয়ানমার সরকার পদক্ষেপ নেবে।'

জাতিসংঘে যুক্তরাজ্যের রাষ্ট্রদূত ম্যাথিউ রাইক্রফট বলেন, গত নয় বছরের মধ্যে এই প্রথম মিয়ানমার নিয়ে বিবৃতিতে সম্মত হয়েছে নিরাপত্তা পরিষদ। তিনি বলেন, 'বর্তমান পরিস্থিতিতে মিয়ানমারের বিষয়ে প্রাথমিক পদক্ষেপ গ্রহণে আমরা একমত হয়েছি। মিয়ানমারে শান্তি ফিরিয়ে আনতে প্রথমত নিরাপত্তা বাহিনীর অভিযান বন্ধ করতে হবে। এরপর সেখানে রোহিঙ্গাদের সব ধরনের সুযোগ সুবিধা নিশ্চিত করতে হবে। এছাড়া, আনান কমিশন যে প্রস্তাবনা দিয়েছে তা পূর্ণ বাস্তবায়ন দরকার।'


নিরাপত্তা পরিষদের ওই বৈঠকের আগে রাখাইনে সেনা অভিযান স্থগিত এবং রোহিঙ্গাদের ওপর সহিংসতা বন্ধে মিয়ানমার সরকারের প্রতি আহ্বান জানান জাতিসংঘ মহাসচিব অ্যান্তোও গুতিরেস। নিউইয়র্কে জাতিসংঘ সদর দপ্তরে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, রোহিঙ্গা সঙ্কটে মানবিক পরিস্থিতি বিপর্যয়কর অবস্থায় পৌঁছেছে।

গত ২৪ আগস্ট রাতে রাখাইনে কয়েকটি পুলিশ পোস্ট ও একটি সেনা ঘাঁটিতে সন্ত্রাসী হামলার পর রোহিঙ্গা অধ্যুষিত এলাকাগুলোতে অভিযান শুরু করে মিয়ানমার সেনাবাহিনী। দমন অভিযানের মুখে এরইমধ্যে প্রায় চার লাখ রোহিঙ্গা ঘর-বাড়ি ছেড়ে পালিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে বলে জানিয়েছে জাতিসংঘ।




DMCA.com Protection Status

এই বিভাগের সকল সংবাদ

Contact Address

Nasir Trade Centre, Level-9,
89, Bir Uttam CR Dutta Road, Dhaka 1205, Bangladesh
Email: somoydigitalsomoynews.tv

Find us on

  Live TV DMCA.com Protection Status
উপরে