আপডেট
১৩-০৯-২০১৭, ১৭:৫৯

হতাশ মাহিয়া মাহি

untitled-1
বিয়ের পর দীর্ঘদিন যাবত আলোচনার বাইরে থাকা ঢালিউড অভিনেত্রী মাহিয়া মাহি আবারো লাইমলাইটে। হঠাৎ করে স্বামীর প্রতি নিজের ভালোবাসা প্রকাশে ব্যাকুল হয়ে উঠেছেন তিনি। দু'জনার ভালোবাসা কখনও ফুরিয়ে যাবেনা বরং শেষ পর্যন্ত একসঙ্গে থাকারও প্রত্যয় ব্যক্ত করছেন। সাম্প্রতিক ফেসবুকে মাহির বেশকিছু স্ট্যাটাসে প্রকাশ পাচ্ছিল ‘হতাশা’। গত মাসের ২৭ তারিখ হঠাৎ করেই এক ফেসবুক স্ট্যাটাসে সকলের কাছে দোয়া চান তিনি। ঠিক পরদিনই আরেক স্ট্যাটসে তিনি লেখেন, এটা হতে দাও। এ ঘটনার পরদিন মা’কে মিস করার কথা জানিয়ে আরো একটি স্ট্যাটাস দেন।

হুট করেই তার এ ধরনের স্ট্যাটাসের পর অনেকেই সন্দেহ করছিলেন তিনি কোনো ধরনের সমস্যার মধ্য দিয়ে যাচ্ছেন কিনা। আর তা জানতে মাহির কাছেই প্রশ্ন রাখেন অনেকে। অনেকেই ফেইসবুকে তার প্রতি প্রশ্ন রাখেন, কী হয়েছে? তার সমস্যার কথা জানতে চেয়ে ফেসবুক কমেন্টে আসা অসংখ্য প্রশ্নের মধ্যে কোনোটিরই জবাব দেননি তিনি।

এরপর কিছুটা চুপচাপ থাকলেও চলতি মাসের ১০ তারিখে আরেক ফেসবুক স্ট্যাটাসে তিনি লেখেন, 'এবং সে একজন ভৃত্য'। এখানে প্রশ্ন আসলেও তা উপেক্ষা করে যান তিনি।

এরপর গত সোমবার নিজের স্বামী পারভেজ মাহমুদ অপুকে ফেসবুকে ট্যাগ করে তিনি লেখেন, আমি তোমার সঙ্গে গভীর ভালোবাসার সম্পর্কে জড়িয়েছি, আশাকরি তুমি সেটা জানো। শেষ নিঃশ্বাস পর্যন্ত তোমাকে ভালবাসবো, এই ওয়াদা করলাম।

সর্বশেষ গত ১১ তারিখ এক পোস্টে অপুকে আবারও এক স্ট্যাটাসে ট্যাগ করে দু'জনের ছবিসহ লেখেন, পাথরের পৃথিবীতে কাঁচের হৃদয়, ভেঙে যায় যাক তার করিনা ভয়, তবু প্রেমের তো শেষ হবেনা।

হঠাৎ করেই ফেসবুকে হতাশাব্যঞ্জক স্ট্যাটাস, এরপর স্বামীর প্রতি নিজের ভালোবাসা প্রকাশের ব্যাকুলতা- মাহির এমন আচরণের পর অনেকেই সন্দেহ করছেন স্বামীর সঙ্গে হয়তো কোনো সমস্যায় দিন পার করছেন তিনি। তাই দুজনার মধ্যকার ভুল বোঝাবুঝি এড়াতে স্বামীর প্রতি নিজের ভালোবাসা প্রকাশের চেষ্টা করছেন তিনি। আর এ নিয়ে চলচ্চিত্রপাড়ায় চলছে আলোচনা সমালোচনা। অনেকেই আশঙ্কা প্রকাশ করে বলছেন, এবার হয়ত ভেঙে যাচ্ছে মাহির সংসার। বিষয়টি পরিষ্কার হতে মাহির সঙ্গে সময় নিউজের পক্ষ থেকে মোবাইল ফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

প্রসঙ্গত, ২০১৬ সালের মে মাসের ২৫ তারিখে পারভেজ মাহমুদ অপুর সঙ্গে বিয়ে হয় মাহির। অপু সিলেটের ছেলে। রাজধানীর উত্তরায় নিজের বাসায় সম্পূর্ণ ঘরোয়া পরিবেশেই বিয়ে হয়েছিল তাদের। সাংবাদিকদের ডেকে নিজের বরের সঙ্গে সবাইকে পরিচয় করিয়ে দিয়েছিলেন মাহিয়া মাহি নিজেই। তখন স্বামীর প্রসঙ্গে মাহিয়া মাহি বলেছিলেন, পরিবারের পছন্দে আমি বিয়ে করছি। আমার বরকে তারাই পছন্দ করেছেন। আমিও তাদের পছন্দকে সম্মান জানিয়েছি।

২০১২ সালে ‘ভালোবাসার রং’ চলচ্চিত্রের মাধ্যমে রুপালি পর্দায় পা রাখেন মাহি। এর পর বেশ কিছু জনপ্রিয় সিনেমা উপহার দিয়েছেন তিনি।




DMCA.com Protection Status

এই বিভাগের সকল সংবাদ

Contact Address

Nasir Trade Centre, Level-9,
89, Bir Uttam CR Dutta Road, Dhaka 1205, Bangladesh
Email: somoydigitalsomoynews.tv

Find us on

  Live TV DMCA.com Protection Status
উপরে