আপডেট
১৯-০৫-২০১৭, ১২:৪০

'টাইমস স্কয়ারের ফুটপাথে গাড়ি তোলা সন্ত্রাসী ঘটনা নয়'

-usa-attack
যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কের মেয়র বিল ডি ব্লাজিও বলেছেন, টাইম স্কয়ারে ফুটপাথে গাড়ি উঠিয়ে দেয়ার ঘটনার সঙ্গে সন্ত্রাসবাদের কোনো সম্পর্ক নেই। মেয়রের এই বক্তব্যের পর স্বস্তি বোধ করছেন প্রবাসী বাঙালিরা। তবে টাইম স্কয়ারের ঘটনা যা-ই হোক, শহরের সার্বিক নিরাপত্তা জোরদারে তৎপর ভূমিকা নিয়েছে কর্তৃপক্ষ। বৃহস্পতিবারের ওই ঘটনায় ১ জন নিহত ও ২৩ জন আহত হন। বৃহস্পতিবার বেলা ১২টার দিকে ম্যানহাটনের টাইম স্কয়ারে বার্গেন্ডি রঙের হোন্ডা সেডান মডেলের একটি প্রাইভেটকার বেপরোয়া গতিতে ফুটপাতে উঠে পড়ে এবং একটি পোলের সঙ্গে ধাক্কা খায়। এতে ঘটনাস্থলেই ১৮ বছর বয়সী তরুণী এলিসা এলসম্যান নিহত ও বেশ কয়েকজন পথচারী আহত হয়। নিহত এলিসা মিশিগান থেকে নিউইয়র্কে বেড়াতে এসেছিলেন বলে জানা গেছে। ঘটনাস্থলের ধারণ করা ভিডিও ফুটেজে, আহতদের রক্তাক্ত অবস্থায় রাস্তায় যন্ত্রণায় কাতরাতে দেখা যায়। পরে ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা তাদের জরুরি ভিত্তিতে উদ্ধার করে স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করে।

এক নারী বলেন, আমি এই রাস্তাটা কেবল পার হয়েছি। তারপর একটা গাড়ির সংঘর্ষের শব্দ শুনলাম। পরে দেখি অনেক মানুষ চিৎকার করছে, সাহায্য চাইছে।

ঘটনার পরপরই গাড়িটির চালককে আটক করে পুলিশ। রিচার্ড রোজাস নামে ২৬ বছর বয়সী ওই মার্কিন নাগরিক মাতাল অবস্থায় গাড়ি চালাচ্ছিলেন বলে অভিযোগ রয়েছে। রিচার্ড, মার্কিন নেভির সাবেক কর্মকর্তা বলে জানায় গণমাধ্যম। ঘটনার সঙ্গে সন্ত্রাসী যোগ থাকতে পারে এমন সন্দেহ থেকে শুরুতে তা খতিয়ে দেখার কথা বললেও পরে একে দুর্ঘটনা হিসেবে নিয়ে তদন্ত পরিচালনার কথা জানায় পুলিশ। এরইমধ্যে টাইম স্কয়ার ও এর আশেপাশের এলাকায় লোকজনের চলাচল নিয়ন্ত্রণের পাশাপাশি নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে।

নিউইয়র্ক সিটি পুলিশ কমিশনার জেমস বলেন, ওই গাড়িটি বেপরোয়া গতিতে ওয়েস্ট ফোরটি টু স্ট্রিট থেকে ফোরটি ফিফথ স্ট্রিট পর্যন্ত এগিয়ে একটি পোলের সঙ্গে ধাক্কা খেয়ে থেমে যায়। ঘটনাটি এতো দ্রুত হয়েছে যে কেউ বুঝে উঠতে পারেনি।

প্রাথমিক তদন্তে ঘটনার সঙ্গে কোন সন্ত্রাসবাদের সংশ্লিষ্টতার প্রমাণ মেলেনি বলে জানিয়েছেন মেয়র বিল ডি ব্লাজিও। এ সময় তিনি হতাহতদের স্বজনদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।

নিউইয়র্ক মেয়র বিল ডি ব্লাজিও বলেন, এরসঙ্গে আপাতত সন্ত্রাসের কোন যোগ মেলেনি। রিচার্ডের রেকর্ড থেকে জানা গেছে, তিনি এর আগেও মাতাল অবস্থায় গাড়ি চালানোর দায়ে দুইবার গ্রেফতার হয়েছেন। তাকে এখন পুলিশী হেফাজতে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

মেয়রের এমন বক্তব্যে স্বস্তি ফিরে এসেছে বাংলাদেশ কমিউনিটিতে।

ব্রিটেন, জার্মানি, সুইডেন্ট ও প্যারিসের ঘটনার পরই স্বভাবতই বিশ্বের সবচেয়ে ব্যস্ততম পর্যটন কেন্দ্র এই টাইম স্কয়ারে নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। সেই সাথে এখানকার জনগণের নিরাপত্তার জন্য সব ধরনের ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।




DMCA.com Protection Status

এই বিভাগের সকল সংবাদ

Contact Address

Nasir Trade Centre, Level-9,
89, Bir Uttam CR Dutta Road, Dhaka 1205, Bangladesh
Email: somoydigitalsomoynews.tv

Find us on

  Live TV DMCA.com Protection Status
উপরে