আপডেট
১৯-০৫-২০১৭, ১০:২৩

ডিপিএলে শেখ জামাল ও ব্রাদার্স ইউনিয়নের জয়

dpl-match-up
ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের দশম রাউন্ডের দ্বিতীয় দিনে টান টান উত্তেজনাপূর্ণ ম্যাচে প্রাইম ব্যাংক ক্রিকেট ক্লাবকে ২ উইকেটে হারিয়েছে শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাব। এই জয়ে সুপার লিগে টিকে থাকার আশা জিইয়ে রাখলো ক্লাবটি। আগে ব্যাট করে ৯ উইকেট হারিয়ে ২৭০ রান করে প্রাইম ব্যাংক। জবাবে ৮ উইকেট হারিয়ে মাত্র এক বল হাতে রেখে লক্ষ্যে পৌঁছায় শেখ জামাল।
অন্যম্যাচে, মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাবকে ১২৯ রানের বড় ব্যবধানে হারিয়েছে ব্রাদার্স ইউনিয়ন। ফলে সুপারলিগে খেলা কিছুটা অনিশ্চিত হয়ে গেল ঐতিহ্যবাহী ক্লাবটির।

আগের রাতে বৃষ্টির কারণে ভেজা মাঠে খেলা শুরু হয় নির্ধারিত সময়ের প্রায় এক ঘণ্টা পর। তবে ভেজা মাঠেও শুরুতে টস জিতে ব্যাট করতে নেমে সূচনাটা বেশ ভালো করে প্রাইম ব্যাংক। মেহেদী মারুফ ও জাকির হোসাইন গড়েন ৯৪ রানের ওপেনিং জুটি গড়ে।

ফিফটি করে মারুফ ৬১ ও জাকির আউট হন ৩৪ রানে। এরপর হাল ধরে আবারো ৯৪ রানের জুটি গড়েন অভিমন্নু ও আল-আমিন। আল-আমিন ৪২ রানে আউট হলেও ফিফটি করেন অভিমন্নু।

তবে এরপরই রানের গতি কিছুটা ধীর হয়ে পড়ে আগের ৯ রাউন্ডে৭ টি জয় পাওয়া প্রাইম ব্যাংকের। শেষ পর্যন্ত আরিফুলের ২১ ও আসিফের ৩১ রানে ভর করে ৯ উইকেট হারিয়ে ২৭০ রানের পুঁজি পায় তারা।

জবাব দিতে নেমে শুরুতে হোঁচট খায় শেখ জামাল। দলীয় ১ রানে ফিরে যান ওপেনার মাহবুব। তবে প্রশান্ত চোপড়াকে নিয়ে ৭৩ রানের জুটি গড়ে প্রাথমিক ধাক্কা সামাল দেন আরেক ওপেনার ফজলে মাহমুদ। চোপড়া ৪৮ ও মাহমুদ আউট হন ৩৬ রান করে।


এরপর সোহাগ গাজী ও জিয়াউরের ব্যাটে জয়ের সুবাতাস পায় শেখ জামাল। জিয়া ৩৪ রানে আউট হলেও সোহাগ গাজী ফিফটি তুলে নিয়ে আউট হন ৫৪ রানে। তবে এই দু'জন ফিরলে দ্রুত বদলাতে থাকে ম্যাচের পরিস্থিতি। তবে শেষ পর্যন্ত ইলিয়াস সানির ৪৪ ও মাহমুদের অপরাজিত ২৭ রানে ভর করে অন্তিম মূহুর্তে জয় পায় তারা। এই জয়ে দারুণ উচ্ছ্বসিত শেখ জামাল সুপার লিগ নিশ্চিত করতে জয়ের ধারা অব্যাহত রাখতে চায় শেষ রাউন্ডেও।

অন্য ম্যাচে, টস হেরে ব্যাট করতে নেমে শুরুতে একটি উইকেট হারালেও জুনায়েদ সিদ্দিকির ব্যাটে বড় সংগ্রহ পায় ব্রাদার্স ইউনিয়ন। দারুণ এক সেঞ্চুরি তুলে নিয়ে জুনায়েদ আউট হন ১১০ রানে। তাকে সঙ্গ দিয়ে যাওয়া কাপালিও তুলে নেন ফিফটি। শেষ পর্যন্ত ৮ উইকেট হারিয়ে ২৭৬ রানের পুঁজি পায় ব্রাদার্স।

ব্যাটিংয়ে নেমে ওপেনার শামসুর দ্রুত ফিরলেও অভিষেক মিত্রকে নিয়ে জবাবটা ভালোই দিচ্ছিল আরেক ওপেনার সৈকত। কিন্তু অভিষেক ২৯ ও সৈকত ৭০ রান করে আউট হলে ধ্বস নামে মোহামেডানের ব্যাটিংয়ে। আর কোন ব্যাটসম্যান বড় স্কোর করতে না পারায় মাত্র ১৪৭ রানে গুটিয়ে যায় তাদের ইনিংস। ব্রাদার্সের হয়ে ইফতেখার সাজ্জাদ নেন ৪ টি উইকেট।

ফলে ১০ রাউন্ডে ৬ টি জয়ে কিছুটা অনিশ্চিত হয়ে গেল মোহামেডানের সুপার লিগ। এদিকে সুপার থেকে ছিটকে পড়লেও শেষ রাউন্ডেও জয় নিয়ে শেষটা ভালো করতে চায় ব্রাদার্স ইউনিয়ন।

একদিন বিরতি দিয়ে শনিবার মাঠে গড়াবে শেষ রাউন্ডের খেলা।




DMCA.com Protection Status

এই বিভাগের সকল সংবাদ

Contact Address

Nasir Trade Centre, Level-9,
89, Bir Uttam CR Dutta Road, Dhaka 1205, Bangladesh
Email: somoydigitalsomoynews.tv

Find us on

  Live TV DMCA.com Protection Status
উপরে