আপডেট
২০-০৪-২০১৭, ১১:৪৮

ট্রাম্পের অভিবাসন নীতির বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থানে নিউইয়র্কের নগর প্রশাসন

usa-kisslu-12pm
ট্রাম্পের অভিবাসন নীতির বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থানে নিউইয়র্কের নগর প্রশাসন। নিউইয়র্ক সিটি ইমিগ্রেশন কমিশনার নিশা আগারওয়াল সাফ জানিয়ে দিয়েছেন অভিবাসীদের কোনো তথ্যই ইমিগ্রেশন কর্তৃপক্ষকে দেবে না তারা। বুধবার ইমিগ্রেন্ট হেরিটেজ উইকে এন.ওয়াই.আইডি বিতরণের ভ্রাম্যমাণ কর্মসূচিতে অংশ নেন নিউইয়র্ক সিটি ইমিগ্রেশন কমিশনার।
নগর সরকারের দেয়া পরিচয়পত্র গ্রহণ করে ট্রাম্প প্রশাসনের অভিবাসন নীতির বিরুদ্ধে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানান তিনি। এই পরিচয়পত্র পেতে আবেদন করছেন প্রবাসী বাঙালিরা।

নিউ ইয়র্কের কুইন্সে ১শ' ৬০টি ভাষাভাষী জাতিগোষ্ঠীর বসতি। ইমেগ্রেন্ট হেরিটেজ সপ্তাহ উপলক্ষে বুধবার কুইন্সের প্রাণকেন্দ্র জ্যাকসন হাইটসের ডাইভারসিটি প্লাজায় জড়ো হন অনেকে। লাইনে দাঁড়িয়ে মূল্যছাড়ে, কোন কোন ক্ষেত্রে বিনামূল্যে সুযোগ সুবিধা পেতে নিউইয়র্কের নগর প্রশাসনের পরিচয়পত্র নেন তারা। এই পরিচয়পত্র পাঠাগার, জাদুঘর, সংস্কৃতি চর্চা কেন্দ্রের বিভিন্ন সুবিধা পেতে সাহায্য করবে। এন.ওয়াই.আইডি বা নিউইয়র্ক পরিচয় পত্র'র ভ্রাম্যমান কর্মসূচির সূচনা করেন নিউইয়র্ক সিটির ডেপুটি মেয়র রিচার্ড বেরি এবং ইমিগ্রেশন কমিশনার নিশা আগারওয়াল।

বৈধ-অবৈধ নির্বিশেষে এ সুযোগ গ্রহণে নগরবাসীর প্রতি আহ্বান জানান প্রশাসনের দুই শীর্ষ কর্মকর্তা।

নিউইয়র্ক সিটি ডেপুটি মেয়র রিচার্ড বেরি বলেন, 'সবার মনে রাখা উচিত অভিবাসীরা যুক্তরাষ্ট্রের শক্তি। কিন্তু সাম্প্রতিক সময়ে বিভিন্ন কারণে তাদের হেনস্তার স্বীকার হতে হচ্ছে। এমন অবস্থা থেকে উত্তরণে অভিবাসীদের সবসময় ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে। আমার বাবা-মা ও দাদা-দাদীও পানামা থেকে এদেশে অভিবাসী হিসেবে এসেছিলেন।'

ইমিগ্রেশন কমিশনার নিশা আগারওয়াল-বাংলাদেশি-সহ দক্ষিণ এশীয়দের পরিচয়পত্র গ্রহণের ওপর গুরুত্বারোপ করেন।


ইমিগ্রেশন কমিশনার নিশা আগরওয়াল বলেন, 'অভিবাসীদের ঐক্যবদ্ধ রাখতে এই কর্মসূচি আরও আগেই শুরু করা উচিত ছিলো। দেড়িতে হলেও এই কর্মসূচি শুরু হওয়ায় অভিবাসীদের জন্য অনেক গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। আমরা সবাইকে বিষয়টি বুঝিয়ে তাদেরকে এই সুযোগের আওতায় আনতে এন.ওয়াই.আইডি বিতরণের ভ্রাম্যমাণ কর্মসূচি চালিয়ে যাবো। অভিবাসীরা যুক্তরাষ্ট্রের ঐতিহ্যের সঙ্গে জড়িয়ে আছে, তারা কখনো অধিকার বঞ্চিত হতে পারেন না।'

পরিচয়পত্র না থাকায় ভোগান্তির কথা জানান এ নারী। নগর সরকারের পরিচয় পত্র সুবিধায় খুশি প্রবাসী বাঙালিরা।

২০১৫'তে শুরু হওয়া এন.ওয়াই.সি কর্মসূচির মাধ্যমে এ পর্যন্ত ১০ লাখ ৩০ হাজার নগরবাসী পরিচয়পত্র নিয়েছেন। এর মধ্যে বিভিন্ন সাংস্কৃতিক কেন্দ্রের সদস্য হয়েছেন পাঁচ লাখ। ২০০৪ সাল থেকে প্রতিবছর ১৭ এপ্রিল থেকে ২৩ এপ্রিল ইমিগ্রেন্ট হেরিটেজ উইক পালন করে নগর প্রশাসন।




DMCA.com Protection Status

এই বিভাগের সকল সংবাদ

Contact Address

Nasir Trade Centre, Level-9,
89, Bir Uttam CR Dutta Road, Dhaka 1205, Bangladesh
Email: somoydigitalsomoynews.tv

Find us on

  Live TV DMCA.com Protection Status
উপরে