আপডেট
১৭-০২-২০১৭, ১৪:৪০

পাকিস্তানে মাজারে বোমা হামলা: জঙ্গি বিরোধী অভিযানে নিহত ৩০

pak-situation
পাকিস্তানের সিন্ধু প্রদেশে মাজারে আত্মঘাতী বোমা হামলার পর দেশজুড়ে জঙ্গি বিরোধী অভিযানে ৩০ জন নিহত হয়েছে। বৃহস্পতিবারের জঙ্গি হামলার পর পাকিস্তান জুড়ে নিরাপত্তা জোরদারের পাশাপাশি অপরাধীদের খোঁজে চলছে তল্লাশি অভিযান। যে কোনো মূল্যে দেশ থেকে সন্ত্রাস নির্মূলের প্রতিশ্রুতি ব্যক্ত করেছে দেশটির সরকার। গতকালের হামলায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৭৫ জনে দাঁড়িয়েছে। আহত হয়েছে দেড় শতাধিক মানুষ। এরই মধ্যে আইএস-এর পক্ষ থেকে এ হামলার দায় স্বীকার করা হয়েছ।

স্বজন হারা আহাজারিতে শুক্রবার ভারি হয়ে ওঠে পাকিস্তানের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলীয় শেহওয়ান শহরের পরিবেশ। এদিন শতশত মানুষ জঙ্গি হামলায় ক্ষতিগ্রস্ত বিখ্যাত লাল শাহবাজ কালান্দার মাজারের ভেতরে প্রবেশের চেষ্টা করলেও নিরাপত্তা জনিত কারণে তাদের বাধা দেয়া হয়।

শুধু শেহওয়ান নয় নিরাপত্তা চাদরে ঢেকে ফেলা হয় পুরো সিন্ধু প্রদেশকে। একইসঙ্গে দেশের বিভিন্ন স্থানে জঙ্গি বিরোধী অভিযান জোরদার করে সামরিক বাহিনী। পাকিস্তান রেঞ্জার্সের এক বিবৃতিতে বলা হয়, রাত ব্যাপী সিন্ধুর বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে ১৮ জঙ্গিকে হত্যা করা হয়েছে। একইদিন খাইবার পাখতুনখোয়ায় পুলিশি তল্লাশি কালে গোলাগুলিতে নিহত হয় আরও ১১ জন।

এর আগে শুক্রবার সিন্ধুর লাল শাহবাজ কালান্দার মাজারে গ্রেনেড ও আত্মঘাতী বোমা হামলায় ২ শতাধিক মানুষ হতাহত হয়। আহতদের মধ্যে অনেকের অবস্থা আশঙ্কাজনক থাকায় মৃতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে। এ ঘটনায় ৩ দিনের শোক পালনের ঘোষণা দিয়েছে সিন্ধু প্রাদেশিক সরকার। পাকিস্তানের বিভিন্ন স্থানে গত কয়েকদিন ধরে অব্যাহত সন্ত্রাসী হামলায় নিরাপত্তা শঙ্কায় রয়েছে দেশটির সাধারণ মানুষ।

এক ব্যক্তি বলেন, এখানকার নিরাপত্তা ব্যবস্থা এতোই দুর্বল যে, সন্ত্রাসীরা চাইলেই যা খুশি করতে পারে। এই হামলার অনেক সিন্ধুবাসীর স্বপ্নের মৃত্যু হয়েছে। এর দায় কারা নেবে।

অপর এক ব্যক্তি বলেন, আমার চোখের সামনে অনেককে মারা যেতে দেখেছি। এমন বিভীষিকাময় দিন আর কখনো আমার সামনে আসেনি। আমার চারপাশে যারা ছিলো তারা কেউ বেঁচে নেই।

হামলার নিন্দা জানিয়ে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফ জঙ্গি বিরোধী লড়াই অব্যাহত রাখার ঘোষণা দিয়েছেন। এ ঘটনায় জড়িত মূল হোতাদের খুঁজে বের করে এর প্রতিশোধ নেয়া হবে বলেও হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন পাক সেনাপ্রধান জাভেদ বাজওয়া।

বৃহস্পতিবারের ওই হামলার ঘটনায় আইএস দায় স্বীকার করলেও; আফগানিস্তান থেকে এ হামলা পরিচালনা করা হয়ে থাকতে পারে বলে ধারনা সামরিক বাহিনীর। শুক্রবার রাওয়ালপিন্ডিতে আফগান দূতাবাসের কর্মকর্তাদের তলব করে আফগানিস্তানে বসবাসরত ৭৬ জন সন্ত্রাসীর তালিকা তুলে দেয় পাকিস্তান সেনাবাহিনী। আফগান সরকারকে তাদের বিরুদ্ধে দ্রুত কঠোর ব্যবস্থা নতুবা ওই সন্ত্রাসীদের পাকিস্তানের কাছে হস্তান্তরের আহ্বান জানানো হয়।




DMCA.com Protection Status

এই বিভাগের সকল সংবাদ

Contact Address

Nasir Trade Centre, Level-9,
89, Bir Uttam CR Dutta Road, Dhaka 1205, Bangladesh
Email: somoydigitalsomoynews.tv

Find us on

  Live TV DMCA.com Protection Status
উপরে