SOMOYNEWS.TV

টিভি দেখতে ক্লিক করুন

রাশিয়ার কাছে নিজের স্পর্শকাতর তথ্য থাকার খবর ভিত্তিহীন: ট্রাম্প

Update: 2017-01-11 16:11:05, Published: 2017-01-11 16:11:06
trump-cyber
রাশিয়ার কাছে ট্রাম্পের আর্থিক ও ব্যক্তিগত বিষয়ে স্পর্শকাতর তথ্য থাকার অভিযোগ অস্বীকার করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের পরবর্তী প্রেসিডেন্ট। মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থাগুলোর যৌথ প্রতিবেদনে এমন কথা আছে বলে সিএনএন যে খবর প্রচার করেছে; তা ভিত্তিহীন ও রাজনৈতিক উদ্দেশ্য প্রণোদিত বলে মন্তব্য করেন ট্রাম্প। প্রেসিডেন্ট ওবামা ও ডোনাল্ড ট্রাম্পের কাছে উপস্থাপন করা ঐ প্রতিবেদনের একটি সংক্ষিপ্তসার তাদের হাতে এসেছে বলে দাবি করে গতকাল সিএনএন খবরটি প্রচার করে।

এদিকে, শুধু যুক্তরাষ্ট্র নয়, আরও অন্তত ২০টি দেশের রাজনীতি ও নির্বাচনে মস্কো প্রভাব বিস্তার করতে থাকতে পারে বলে জানিয়েছে এফবিআই।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রুশ হস্তক্ষেপের বিষয়ে গত সপ্তাহে একই সঙ্গে প্রেসিডেন্ট ওবামা ও নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের কাছে মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থাগুলোর যৌথ প্রতিবেদন উপস্থাপনের পর ট্রাম্পের ওপর অভ্যন্তরীণ ও বিদেশি চাপ ক্রমশ বাড়তে থাকে। কিন্তু সব অভিযোগ ও কানাঘুষা উপেক্ষা করে যুক্তরাষ্ট্রকে আবারও মহান করার প্রত্যয় নিয়ে ক্ষমতায় আসা ট্রাম্প তার প্রশাসন গুছানোকেই প্রাধান্য দিয়ে আসছেন।

তবে গোয়েন্দাদের এবারের তথ্যটি ট্রাম্পকে একটু বেশিই নাড়া দিয়েছে। শুরু থেকেই যুক্তরাষ্ট্রের চির বৈরী দেশ রাশিয়াকে সমীহ করে কথা বলে, বারবার গণমাধ্যমের শিরোনাম হওয়া ট্রাম্পের বেশকিছু স্পর্শকাতর তথ্য রুশ গোয়েন্দা সংস্থার কাছে রয়েছে, যা প্রকাশ হয়ে পড়লে পরবর্তী মার্কিন প্রেসিডেন্টের মারাত্মক ক্ষতি হতে পারে-- এমন একটি খবর প্রচার করেছে সিএনএন। ঊর্ধ্বতন গোয়েন্দা কর্মকর্তাদের বরাতে প্রকাশ করা এই খবরকে রাজনৈতিক প্রতিহিংসার বহিঃপ্রকাশ বলে এক টুইট বার্তায় উল্লেখ করেছেন ট্রাম্প।

সিএনএন-এর সংবাদে ৩৫ পৃষ্ঠার গোয়েন্দা প্রতিবেদনটির একটি ২ পৃষ্ঠার সারসংক্ষেপের কথা বলা হলেও; সেটি কারা তৈরি ও প্রকাশ করেছে তার সুনির্দিষ্ট ব্যাখ্যা দেয়া হয়নি। প্রকাশিত তথ্যমতে, রাশিয়ার কাছে রিপাবলিকান ও ডেমোক্র্যাট উভয় দলেরই গোপন ও স্পর্শকাতর তথ্য রয়েছে; কিন্তু ট্রাম্পকে সহযোগিতা ও হিলারির ক্ষতির জন্য শুধু ডেমোক্র্যাটদের তথ্য ফাঁস করা হয়েছে।

মঙ্গলবার সিনেট ইন্টেলিজেন্স কমিটির এক শুনানিতে মার্কিন নির্বাচনে রুশ হস্তক্ষেপের বিস্তারিত তুলে ধরেন গোয়েন্দা সংস্থাগুলো প্রধানগণ। বৈঠকে রাশিয়ার বিরুদ্ধে ডেমোক্র্যাট দলের ইমেইল হ্যাক করে তথ্য চুরি, রিপাবলিকান প্রচারণা দল ও তাদের পুরনো ইমেইল হ্যাক করার প্রমাণ পাওয়ার তথ্য তুলে ধরা হলেও; ট্রাম্পের প্রচারণা দল কিংবা আরএনসি'র বর্তমান কোনো তথ্যে মস্কো সফলভাবে হানা দিতে পারেনি বলে উল্লেখ করা হয়।

এফবিআই পরিচালক জেমস কোমি বলেন, 'রিপাবলিকান দলের বেশকিছু গুরুত্বপূর্ণ প্রতিষ্ঠানে রাশিয়া সাইবার হামলা চালিয়েছে। কিন্তু যেসব ইমেইল ডোমেইন তারা হ্যাক করেছে, সেগুলো এখন আর ব্যবহার করা হয় না। ট্রাম্পের প্রচারণা কমিটির কোনো তথ্য হ্যাক করার প্রমাণ আমরা পাইনি।'

গোয়েন্দা প্রধান জেমস ক্ল্যাপার বলেন, 'আমি মনে করি, বিভিন্ন দেশে দখলদারিত্ব কায়েম করার মনোভাব থেকেই রাশিয়ার অন্য দেশের রাজনীতিতে হস্তক্ষেপ করার বাসনা তৈরি হয়েছে। আর এ জন্যই হয়তো তারা যুক্তরাষ্ট্রসহ বেশ কয়েকটি দেশের নির্বাচন প্রভাবিত করার চেষ্টা করেছে।'

এদিকে, ট্রাম্পের মন্ত্রিসভার চূড়ান্ত অনুমোদনে সিনেটে শুনানি শুরু হওয়ার প্রথম দিনেই কয়েকজনকে বিক্ষোভ করতে দেখা যায়। সাধারণত মন্ত্রিসভার প্রস্তাবিত সদস্যদের মনোনয়ন অনুমোদন করতে বিশেষ বেগ পেতে না হলেও; এবারের শুনানিতে সিনেটরদের মধ্যে বেশ বিতর্ক হচ্ছে বলে জানিয়েছে গণমাধ্যম।

Update: 2017-01-11 16:11:05, Published: 2017-01-11 16:11:06

More News
loading...

Exclusive Live


সর্বশেষ সংবাদ



Contact Address

89, Bir Uttam CR Dutta Road,
Banglamotor, Dhaka 1205, Bangladesh.
Fax: +8802 9670057, Email: info@somoynews.tv
উপরে