মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
ফাতেমা এ্যানি
আপডেট
০১-১১-২০১৯, ০৬:৫৪

সড়ক পরিবহন আইন ২০১৮ : কোন অপরাধে কী শাস্তি বিস্তারিত

new-rules
সর্বোচ্চ ৫ বছর জেল ও ৫ লাখ টাকা জরিমানার বিধান রেখে শুক্রবার (১ নভেম্বর) থেকে কার্যকর হচ্ছে বহুল আলোচিত সড়ক পরিবহন আইন ২০১৮। নিয়ম লঙ্ঘনে নতুন আইনের প্রায় সব ধারায় বাড়ানো হয়েছে চালক ও পথচারীদের জেল-জরিমানার পরিমাণ। নতুন আইনে সব ধারায় আগের চেয়ে সাজা বাড়ানো হয়েছে। ফলে আইনটি কার্যকর হলে সড়কে বিশৃঙ্খলা ও দুর্ঘটনা কমে আসবে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, আইনে আপাতত কোনো পরিবর্তন বা সংশোধন নেই। সংশোধনের বিষয়টি পরে বিবেচনায় নেওয়া হতে পারে। তবে প্রজ্ঞাপনে সংশোধনের সুযোগ রাখায় আইন কার্যকর নিয়ে সাধারণ মানুষ সন্দিহান রয়েছে। তারা বলছেন, এ সুযোগ রেখে আইন সংশোধন করার পথ রেখে দিল সরকার।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, আইনটি কার্যকর করতে শুক্রবার থেকে মাঠে থাকবে ভ্রাম্যমাণ আদালত। পাশাপাশি গাড়ির কাগজপত্র ও ড্রাইভিং লাইসেন্সসহ অন্য সব কাগজপত্র যাচাইয়ে পুলিশেরও তৎপরতা আগের চেয়ে বাড়ানো হবে।

সড়ক পরিবহন আইন ২০১৮  যে অপরাধে, যে শাস্তি :


ড্রাইভিং লাইসেন্স ব্যতীত মোটরযান ও গণপরিবহন চালনার বিধি-নিষেধ সংক্রান্ত ধারা ৪ এবং ৫ এর লঙ্ঘনের দণ্ড- যদি কোনো ব্যক্তি ধারা ৪ এবং ৫ এর বিধান লঙ্ঘন করেন এ জন্য তিনি সর্বোচ্চ ছয় মাসের কারাদণ্ড বা সর্বোচ্চ ২৫ হাজার টাকা অর্থদণ্ড বা উভয়দণ্ডে দণ্ডিত হবেন।

ড্রাইভিং লাইসেন্স হস্তান্তর সংক্রান্ত ধারা ৬ এর বিধান লঙ্ঘনের দণ্ড- যদি কোনো ব্যক্তি ধারা ৬ এর উপ-ধারা (৫) এর বিধান লঙ্ঘন করেন এ জন্য তিনি সর্বোচ্চ এক মাসের কারাদণ্ড বা সর্বোচ্চ পাঁচ হাজার টাকা অর্থদণ্ড বা উভয়দণ্ডে দণ্ডিত হবেন।

বিদেশি নাগরিকের এ আইন, বিধি বা প্রবিধানের কোনো বিধান বা লাইসেন্সে প্রদত্ত শর্ত অমান্য সংক্রান্ত ধারা ৯ এর বিধান লঙ্ঘনের দণ্ড- যদি কোনো বিদেশি নাগরিক ধারা ৯ এর উপ-ধারা (৩) এর বিধান লঙ্ঘন করেন, এ জন্য তিনি সর্বোচ্চ ৩০ হাজার টাকা অর্থদণ্ডে দণ্ডিত হবেন।

কর্তৃপক্ষ ছাড়া ড্রাইভিং লাইসেন্স প্রস্তুত, প্রদান বা নবায়নে বিধি-নিষেধ সংক্রান্ত ধারা ১০ এর বিধান লঙ্ঘনের দণ্ড- যদি কোনো ব্যক্তি ধারা ১০ এর বিধান লঙ্ঘন করলে সর্বোচ্চ দুই বছর তবে কমপক্ষে ছয় মাসের কারাদণ্ড বা সর্বোচ্চ পাঁচ লাখ টাকা তবে কমপক্ষে এক লাখ টাকা অর্থদণ্ড বা উভয়দণ্ডে দণ্ডিত হবেন।


ড্রাইভিং লাইসেন্স স্থগিত, প্রত্যাহার বা বাতিল করা হলে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তির মোটরযান চালানোর ওপর বিধি-নিষেধ সংক্রান্ত ধারা ১২ এর বিধান লঙ্ঘনের দণ্ড- যদি কোনো ব্যক্তি ধারা ১২ এর উপ-ধারা (৩) এর বিধান লঙ্ঘন করেন তাহলে তিনি সর্বোচ্চ তিন মাসের কারাদণ্ড বা সর্বোচ্চ ২৫ হাজার টাকা অর্থদণ্ড বা উভয় দণ্ডে দণ্ডিত হবেন।

কন্ডাক্টর লাইসেন্স ছাড়া কোনো গণপরিবহণে কন্ডাক্টর হিসেবে দায়িত্ব পালন সংক্রান্ত ধারা ১৪ এর বিধান লঙ্ঘনের দণ্ড- যদি কোনো ব্যক্তি ধারা ১৪ এর বিধান লঙ্ঘন করেন, এ জন্য তিনি সর্বোচ্চ এক মাসের কারাদণ্ড বা সর্বোচ্চ পাঁচ হাজার টাকা অর্থদণ্ডে দণ্ডিত হবেন।

মোটরযান রেজিস্ট্রেশন ছাড়া মোটরযান চালনা সংক্রান্ত ধারা ১৬ এর বিধান লঙ্ঘনের দণ্ড- যদি কোনো ব্যক্তি ধারা ১৬ এর বিধান লঙ্ঘন করেন, এ জন্য তিনি সর্বোচ্চ ছয় মাসের কারাদণ্ড বা সর্বোচ্চ ৫০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড বা উভয় দণ্ডে দণ্ডিত হবেন।

ভুয়া রেজিস্ট্রেশন নম্বর ব্যবহার ও প্রদর্শনে বিধি-নিষেধ সংক্রান্ত ধারা ১৭ এর বিধান লঙ্ঘনের দণ্ড- যদি কোনো ব্যক্তি ধারা ১৭ এর বিধান লঙ্ঘন করেন, এ জন্য তিনি সর্বোচ্চ দুই বছর তবে কমপক্ষে ছয় মাসের কারাদণ্ড বা সর্বোচ্চ পাঁচ লাখ টাকা তবে কমপক্ষে এক লাখ টাকা অর্থদণ্ড বা উভয় দণ্ডে দণ্ডিত হবেন।

মোটরযানের মালিকানা পরিবর্তন বা হস্তান্তরের কারণে হস্তান্তর গ্রহীতার রেজিস্ট্রেশন সংক্রান্ত ধারা ২১ এর বিধান লঙ্ঘনের দণ্ড- যদি কোনো হস্তান্তর গ্রহীতা ধারা ২১ এর বিধান লঙ্ঘন করেন, এ জন্য তিনি সর্বোচ্চ এক মাস কারাদণ্ড বা সর্বোচ্চ পাঁচ হাজার টাকা অর্থদণ্ড বা উভয় দণ্ডে দণ্ডিত হবেন।

মোটরযানের ফিটনেস সনদ ছাড়া বা মেয়াদোত্তীর্ণ ফিটনেস সনদ ব্যবহার করে বা ইকোনমিক লাইফ অতিক্রান্ত বা ফিটনেসের অনুপযোগী, ঝুঁকিপূর্ণ মোটরযান চালনা সংক্রান্ত ধারা ২৫ এর বিধান লঙ্ঘনের দণ্ড- যদি কোনো ব্যক্তি ধারা ২৫ এর বিধান লঙ্ঘন করেন, এ জন্য তিনি সর্বোচ্চ ছয় মাসের কারাদণ্ড বা সর্বোচ্চ ২৫ হাজার টাকা অর্থদণ্ড বা উভয় দণ্ডে দণ্ডিত হবেন।

ট্যাক্স-টোকেন ছাড়া বা মেয়াদোত্তীর্ণ ট্যাক্স-টোকেন ব্যবহার করে মোটরযান চালনা সংক্রান্ত ধারা ২৬ এর বিধান লঙ্ঘনের দণ্ড- যদি কোনো ব্যক্তি ধারা ২৬ এর বিধান লঙ্ঘন করেন, এ জন্য তিনি সর্বোচ্চ ১০ হাজার টাকা অর্থদণ্ডে দণ্ডিত হবেন।

রুট পারমিট ছাড়া পাবলিক প্লেসে পরিবহন যান ব্যবহার সংক্রান্ত ধারা ২৮ এর বিধান লঙ্ঘনের দণ্ড- যদি কোনো ব্যক্তি ধারা ২৮ এর উপ-ধারা (১) এর বিধান লঙ্ঘন করেন, এ জন্য তিনি সর্বোচ্চ তিন মাসের কারাদণ্ড বা সর্বোচ্চ ২০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড বা উভয় দণ্ডে দণ্ডিত হবেন।

বিদেশি নাগরিকের বাংলাদেশে প্রবেশের ক্ষেত্রে নিজ দেশের মোটরযান/গণপরিবহণের রুট পারমিট গ্রহণ না করা সংক্রান্ত ধারা ২৯ এর বিধান লঙ্ঘনের দণ্ড- যদি কোনো বিদেশি নাগরিক ধারা ২৯ এর বিধান লঙ্ঘন করেন, এজন্য তিনি সর্বোচ্চ ৩০ হাজার টাকা অর্থদণ্ডে দণ্ডিত হবেন।

মোটরযানের বাণিজ্যিক ব্যবহার সংক্রান্ত ধারা ৩১ এর বিধান লঙ্ঘনের দণ্ড- যদি কোনো ব্যক্তি ধারা ৩১ এর বিধান লঙ্ঘন করেন, এ জন্য তিনি সর্বোচ্চ তিন মাসের কারাদণ্ড বা সর্বোচ্চ ২৫ হাজার টাকা অর্থদণ্ড বা উভয় দণ্ডে দণ্ডিত হবেন এবং চালকের ক্ষেত্রে অতিরিক্ত হিসেবে দোষসূচক ১ পয়েন্ট কাটা হবে।

গণপরিবহনে ভাড়ার চার্ট প্রদর্শন ও নির্ধারিত ভাড়ার অতিরিক্ত ভাড়া দাবি বা আদায় সংক্রান্ত ধারা ৩৪ এর বিধান লঙ্ঘনের দণ্ড- যদি কোনো ব্যক্তি ধারা ৩৪ এর উপ-ধারা (৩) ও (৪) এর বিধান লঙ্ঘন করেন, এ জন্য তিনি সর্বোচ্চ এক মাসের কারাদণ্ড বা সর্বোচ্চ ১০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড বা উভয় দণ্ডে দণ্ডিত হবেন এবং চালকের ক্ষেত্রে অতিরিক্ত হিসেবে দোষসূচক ১ পয়েন্ট কাটা হবে।

কনট্রাক্ট ক্যারিজের মিটার অবৈধভাবে পরিবর্তন বা অতিরিক্ত ভাড়া দাবি বা আদায় সংক্রান্ত ধারা ৩৫ এর বিধান লঙ্ঘনের দণ্ড- যদি কোনো ব্যক্তি ধারা ৩৫ এর বিধান লঙ্ঘন করেন, এ জন্য তিনি সর্বোচ্চ ছয় মাসের কারাদণ্ড বা সর্বোচ্চ ৫০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড বা উভয় দণ্ডে দণ্ডিত হবেন এবং চালকের ক্ষেত্রে অতিরিক্ত হিসেবে দোষসূচক ১ পয়েন্ট কাটা হবে।

মহাসড়কের পার্শ্ববর্তী অবৈধ স্থাপনা নির্মাণ তাৎক্ষণিক অপসারণ সংক্রান্ত ধারা ৩৭ এর বিধান লঙ্ঘনের দণ্ড- যদি কোনো ব্যক্তি ধারা ৩৭ এর উপ-ধারা (১) এর বিধান লঙ্ঘন করেন, এ জন্য তিনি সর্বোচ্চ দুই বছরের কারাদণ্ড, বা স্থায়ী স্থাপনার ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ পাঁচ লাখ টাকা এবং অস্থায়ী স্থাপনার ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ ৫০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড বা উভয় দণ্ডে দণ্ডিত হবেন।

চাঁদাবাজি নিষিদ্ধকরণ সংক্রান্ত ধারা ৩৮ এর বিধান লঙ্ঘনের দণ্ড- যদি কোনো ব্যক্তি ধারা ৩৮ এর উপ-ধারা (৩) এর বিধান লঙ্ঘন করেন, তা হলে ওই অপরাধ পেনাল কোড, ১৮৬০ (অ্যাক্ট নম্বর এক্সএলভি অব ১৮৬০) এর অধ্যায়-১৭ এর অধীন চাঁদাবাজি সংক্রান্ত শাস্তিযোগ্য অপরাধ বলে গণ্য হবে।

কর্তৃপক্ষের নির্ধারিত কোনো মোটরযানের কারিগরি বিনির্দেশ অমান্য সংক্রান্ত ধারা ৪০ এর বিধান লঙ্ঘনের দণ্ড- যদি কোনো ব্যক্তি ধারা ৪০ এর বিধান লঙ্ঘন করেন, এ জন্য তিনি সর্বোচ্চ তিন বছরের কারাদণ্ড তবে কমপক্ষে এক বছর বা সর্বোচ্চ তিন লাখ টাকা অর্থদণ্ড বা উভয় দণ্ডে দণ্ডিত হবেন।

ট্রাফিক সাইন ও সংকেতের ব্যবহার মেনে চলা সংক্রান্ত ধারা ৪২ এর বিধান লঙ্ঘনের দণ্ড- যদি কোনো ব্যক্তি ধারা ৪২ এর বিধান লঙ্ঘন করেন, এজন্য তিনি সর্বোচ্চ ১ মাসের কারাদণ্ড বা সর্বোচ্চ ১০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড বা উভয় দণ্ডে দণ্ডিত হবেন এবং চালকের ক্ষেত্রে অতিরিক্ত হিসাবে দোষসূচক ১ (এক) পয়েন্ট কাটা হবে।

অতিরিক্ত ওজন বহন করে মোটরযান চালানো সংক্রান্ত ধারা ৪৩ এর বিধান লঙ্ঘনের দণ্ড- যদি কোনো ব্যক্তি ধারা ৪৩ এর বিধান লঙ্ঘন করেন, এ জন্য তিনি সর্বোচ্চ এক বছরের কারাদণ্ড বা সর্বোচ্চ এক লাখ টাকা অর্থদণ্ড বা উভয় দণ্ডে দণ্ডিত হবেন এবং চালকের ক্ষেত্রে অতিরিক্ত হিসাবে দোষসূচক ২ পয়েন্ট কাটা হবে।

মোটরযানের গতিসীমা নিয়ন্ত্রণ সংক্রান্ত ধারা ৪৪ এর বিধান লঙ্ঘনের দণ্ড- যদি কোনো ব্যক্তি ধারা ৪৪ এর বিধান লঙ্ঘন করেন, এ জন্য তিনি সর্বোচ্চ তিন মাসের কারাদণ্ড বা সর্বোচ্চ ১০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড বা উভয় দণ্ডে দণ্ডিত হবেন এবং চালকের ক্ষেত্রে অতিরিক্ত হিসেবে দোষসূচক ১ পয়েন্ট কাটা হবে।

নির্ধারিত শব্দমাত্রার অতিরিক্ত উচ্চমাত্রার কোনোরূপ শব্দ সৃষ্টি বা হর্ন বাজানো বা কোনো যন্ত্র, যন্ত্রাংশ বা হর্ন মোটরযানে স্থাপন সংক্রান্ত ধারা ৪৫ এর বিধান লঙ্ঘনের দণ্ড- যদি কোনো ব্যক্তি ধারা ৪৫ এর উপ-ধারা (২), (৩) ও (৪) এর বিধান লঙ্ঘন করেন, এ জন্য তিনি সর্বোচ্চ তিন মাসের কারাদণ্ড বা সর্বোচ্চ ১০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড বা উভয় দণ্ডে দণ্ডিত হবেন এবং চালকের ক্ষেত্রে অতিরিক্ত হিসাবে দোষসূচক ১ পয়েন্ট কাটা হবে।

পরিবেশ দূষণকারী, ঝুঁকিপূর্ণ ইত্যাদি মোটরযান চালনার বিধি-নিষেধ সংক্রান্ত ধারা ৪৬ এর বিধান লঙ্ঘনের দণ্ড- যদি কোনো ব্যক্তি ধারা ৪৬ এর উপ-ধারা (২) ও (৩) এর বিধান লঙ্ঘন করেন, এ জন্য তিনি সর্বোচ্চ তিন মাসের কারাদণ্ড বা সর্বোচ্চ ২৫ হাজার টাকা অর্থদণ্ড বা উভয় দণ্ডে দণ্ডিত হবেন এবং চালকের ক্ষেত্রে অতিরিক্ত হিসেবে দোষসূচক ১ পয়েন্ট কাটা হবে।

যদি কোনো ব্যক্তি ধারা ৪৬ এর উপ-ধারা (৪) এর বিধান লঙ্ঘন (ত্রুটি, ঝুঁকিপূর্ণ ও নিষিদ্ধ যানচালানো) করেন, এ জন্য তিনি সর্বোচ্চ তিন মাসের কারাদণ্ড বা সর্বোচ্চ ২০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড বা উভয় দণ্ডে দণ্ডিত হবেন এবং চালকের ক্ষেত্রে অতিরিক্ত হিসেবে দোষসূচক ১ পয়েন্ট কাটা হবে।

মোটরযান পার্কিং এবং যাত্রী বা পণ্য ওঠানামার নির্ধারিত স্থান ব্যবহার সংক্রান্ত ধারা ৪৭ এর বিধান লঙ্ঘনের দণ্ড- যদি কোনো ব্যক্তি ধারা ৪৭ এর বিধান লঙ্ঘন করেন, এ জন্য তিনি সর্বোচ্চ সর্বোচ্চ পাঁচ হাজার টাকা অর্থদণ্ডে দণ্ডিত হবেন এবং চালকের ক্ষেত্রে অতিরিক্ত হিসেবে দোষসূচক ১ পয়েন্ট কাটা হবে।

দ্রুতগতির মোটরযান প্রবেশের ক্ষেত্রে মহাসড়কের ব্যবহার সংক্রান্ত ধারা ৪৮ এর বিধান লঙ্ঘনের দণ্ড- যদি কোনো ব্যক্তি ধারা ৪৮ এর বিধান লঙ্ঘন করেন, এ জন্য তিনি সর্বোচ্চ এক মাসের কারাদণ্ড বা সর্বোচ্চ পাঁচ হাজার টাকা অর্থদণ্ড বা উভয় দণ্ডে দণ্ডিত হবেন এবং চালকের ক্ষেত্রে অতিরিক্ত হিসেবে দোষসূচক ১ পয়েন্ট কাটা হবে।

মোটরযান চলাচলের সাধারণ নির্দেশাবলি সংক্রান্ত ধারা ৪৯ এর বিধান লঙ্ঘনের দণ্ড- যদি কোনো ব্যক্তি ধারা ৪৯ এর উপ-ধারা (১) এ উল্লিখিত সাধারণ নির্দেশাবলির প্রথম অংশের কোনো বিধান লঙ্ঘন করেন, এ জন্য তিনি সর্বোচ্চ তিন মাসের কারাদণ্ড বা সর্বোচ্চ ১০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড বা উভয় দণ্ডে দণ্ডিত হবেন এবং চালকের ক্ষেত্রে, অতিরিক্ত হিসেবে দোষসূচক ১ পয়েন্ট কাটা হবে।

যদি কোনো ব্যক্তি ধারা ৪৯ এর উপ-ধারা (১) এ উল্লিখিত সাধারণ নির্দেশাবলির দ্বিতীয় অংশের কোনো বিধান লঙ্ঘন করেন, এ জন্য তিনি সর্বোচ্চ এক মাসের কারাদণ্ড বা সর্বোচ্চ পাঁচ হাজার টাকা অর্থদণ্ড বা উভয় দণ্ডে দণ্ডিত হবেন এবং চালকের ক্ষেত্রে অতিরিক্ত হিসেবে দোষসূচক ১ পয়েন্ট কাটা হবে।

বিস্ফোরক বা দাহ্য পদার্থ মোটরযানে পরিবহন সংক্রান্ত ধারা ৫১ এর বিধান লঙ্ঘনের দণ্ড- যদি কোনো ব্যক্তি ধারা ৫১ এর বিধান লঙ্ঘন করেন, এ জন্য তিনি সর্বোচ্চ তিন মাসের কারাদণ্ড বা সর্বোচ্চ ২৫ হাজার টাকা অর্থদণ্ড বা উভয় দণ্ডে দণ্ডিত হবেন।

মোটরযানের মালিক বা প্রতিষ্ঠান কর্তৃক আর্থিক সহায়তা তহবিলে বাৎসরিক বা এককালীন চাঁদা প্রদানের বাধ্যবাধকতা সংক্রান্ত ধারা ৫৩ এর বিধান লঙ্ঘনের দণ্ড- যদি কোনো ব্যক্তি ধারা ৫৩ এর উপ-ধারা (৩) এর বিধান লঙ্ঘন করেন, এ জন্য কর্তৃপক্ষ তার গণপরিবহণ চালনার অনুমতিপত্র ও রুট পারমিট বাতিল করিতে বা ক্ষেত্রমতে রেজিস্ট্রেশন, ফিটনেস সনদ বা উহার নবায়ন করিতে অস্বীকৃতি জ্ঞাপন করতে পারবে এবং তদোতিরিক্ত নির্ধারিত হারে জরিমানা আরোপ করা যাবে।

সড়ক দুর্ঘটনায় আঘাতপ্রাপ্ত ব্যক্তির চিকিৎসা সংক্রান্ত ধারা ৬২ এর বিধান লঙ্ঘনের দণ্ড- যদি কোনো ব্যক্তি ধারা ৬২ এর উপ-ধারা (১) এর বিধান লঙ্ঘন করেন, এ জন্য তিনি সর্বোচ্চ এক মাসের কারাদণ্ড বা সর্বোচ্চ ২০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড বা উভয় দণ্ডে দণ্ডিত হবেন এবং চালকের ক্ষেত্রে অতিরিক্ত হিসেবে দোষসূচক ১ পয়েন্ট কাটা হবে।

মোটর ড্রাইভিং প্রশিক্ষণ স্কুল প্রতিষ্ঠা বা পরিচালনা সংক্রান্ত ধারা ৬৩ এর বিধান লঙ্ঘনের দণ্ড- যদি কোনো ব্যক্তি ধারা ৬৩ এর বিধান লঙ্ঘন করেন, এ জন্য তিনি সর্বোচ্চ এক লাখ টাকা অর্থদণ্ডে দণ্ডিত হবেন এবং কর্তৃপক্ষ তাৎক্ষণিকভাবে ওই ড্রাইভিং প্রশিক্ষণ স্কুল বন্ধ করিতে পারিবে।

মোটরযান মেরামত কারখানা স্থাপন বা পরিচালনা সংক্রান্ত ধারা ৬৪ এর বিধান লঙ্ঘনের দণ্ড- যদি কোনো ব্যক্তি ধারা ৬৪ এর বিধান লঙ্ঘন করেন, এ জন্য তিনি কমপক্ষে ২৫ হাজার টাকা এবং সর্বোচ্চ এক লাখ টাকা অর্থদণ্ডে দণ্ডিত হবেন এবং কর্তৃপক্ষ তাৎক্ষণিকভাবে ওই মোটরযান মেরামত কারখানা সিলগালা করে বন্ধ করতে পারবে।

ওভারলোডিং বা নিয়ন্ত্রণহীনভাবে মোটরযান চালনার ফলে দুর্ঘটনায় জীবন ও সম্পত্তির ক্ষতিসাধনের দণ্ড- যদি নির্ধারিত গতিসীমার অতিরিক্ত গতিতে বা বেপরোয়াভাবে বা ঝুঁকিপূর্ণ ওভারটেকিং বা ওভারলোডিং বা নিয়ন্ত্রণহীনভাবে মোটরযান চালনার ফলে কোনো দুর্ঘটনায় জীবন ও সম্পত্তির ক্ষতিসাধিত হয়, তা হলে সংশ্লিষ্ট মোটরযানের চালক বা কন্ডাক্টর বা সহায়তাকারী ব্যক্তির অনুরূপ মোটরযান চালনা হবে একটি অপরাধ, এবং এজন্য তিনি সর্বোচ্চ তিন বছর কারাদণ্ড বা সর্বোচ্চ তিন লাখ টাকা অর্থদণ্ড বা উভয় দণ্ডে দণ্ডিত হবেন। আদালত অর্থদণ্ডের সম্পূর্ণ বা অংশবিশেষ ক্ষতিগ্রস্ত ব্যক্তিকে দেয়ার নির্দেশ দিতে পারবেন।

অপরাধ সংঘটনে সহায়তা, প্ররোচনা ও ষড়যন্ত্রের দণ্ড- যদি কোনো ব্যক্তি এই আইনের অধীন কোনো অপরাধ সংঘটনে সহায়তা করেন বা প্ররোচনা প্রদান করেন বা ষড়যন্ত্র করেন এবং যার ফলে সংশ্লিষ্ট অপরাধটি সংঘটিত হয়, তা হলে ওই সহায়তাকারী, যড়যন্ত্রকারী বা প্ররোচনা প্রদানকারী ব্যক্তি ওই অপরাধ সংঘটনের জন্য নির্ধারিত দণ্ডের সমপরিমাণ দণ্ডে দণ্ডিত হবেন।

একই অপরাধ আবার করার দণ্ড- এই আইনে উল্লিখিত কোনো অপরাধের জন্য দণ্ডভোগকারী একই অপরাধের পুনরাবৃত্তি করলে, ওই ব্যক্তিকে সংঘটিত অপরাধের জন্য নির্ধারিত সর্বোচ্চ দণ্ডের দ্বিগুণ দণ্ডে দণ্ডিত করা যাবে এবং এটা কোনোক্রমে আগে দেয়া দণ্ডের দ্বিগুণের কম হবে না।

পরিদর্শনে বাধা প্রদান বা প্রদত্ত নির্দেশনা অমান্য সংক্রান্ত ধারা ১১৬ এর উপ-ধারা (২) এর বিধান লঙ্ঘনের দণ্ড- যদি কোনো ব্যক্তি ধারা ১১৬ এর উপ-ধারা (২) এর বিধান লঙ্ঘন করেন, এ জন্য তিনি সর্বোচ্চ এক মাসের কারাদণ্ড বা সর্বোচ্চ ১০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড বা উভয় দণ্ডে দণ্ডিত হবেন।

আদেশ পালন ও তথ্য প্রদানে বাধ্যবাধকতা সংক্রান্ত ধারা ১১৮ এর বিধান লঙ্ঘনের দণ্ড- যদি কোনো ব্যক্তি ধারা ১১৮ এর বিধান লঙ্ঘন করেন, এ জন্য তিনি সর্বোচ্চ এক মাসের কারাদণ্ড বা সর্বোচ্চ ১০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড বা উভয় দণ্ডে দণ্ডিত হবেন।

আক্রমণাত্মক আচরণ ও জনরোষ নিয়ন্ত্রণ সংক্রান্ত ধারা ১১৯ এর বিধান লঙ্ঘনের দণ্ড- যদি কোনো ব্যক্তি ধারা ১১৯ এর বিধান লঙ্ঘন করেন, এ জন্য তিনি সর্বোচ্চ এক মাসের কারাদণ্ড বা সর্বোচ্চ ১০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড বা উভয় দণ্ডে দণ্ডিত হবেন।

সরকারের দেয়া আদেশ ও নির্দেশনা সংক্রান্ত ধারা ১২৪ এর অধীন প্রণীত বিধান লঙ্ঘনের দণ্ড- যদি কোনো ব্যক্তি ধারা ১২৪ এর অধীন সরকারের দেয়া কোনো আদেশ বা নির্দেশনা এবং প্রণীত নীতিমালায় দেয়া নির্দেশনা লঙ্ঘন করেন, এ জন্য তিনি সর্বোচ্চ তিন মাসের কারাদণ্ড বা সর্বোচ্চ ২০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড বা উভয় দণ্ডে দণ্ডিত হবেন।

দুর্ঘটনা সংক্রান্ত অপরাধ- এই আইনে যাহা কিছুই থাকুক না কেন, মোটরযান চালনাজনিত কোনো দুর্ঘটনায় গুরুতরভাবে কোনো ব্যক্তি আহত হলে বা তার প্রাণহানি ঘটিলে, তৎসংক্রান্ত অপরাধসমূহ পেনাল কোড, ১৮৬০ এর এ সংশ্লিষ্ট বিধান অনুযায়ী অপরাধ বলে গণ্য হবে-

তবে শর্ত থাকে যে, পেনাল কোড, ১৮৬০ এর ধারা ৩০৪-বি এ যাহা কিছুই থাকুক না কেন, কোনো ব্যক্তির বেপরোয়া বা অবহেলাজনিত মোটরযান চালনার কারণে সংঘটিত দুর্ঘটনায় কোনো ব্যক্তি গুরুতরভাবে আহত হলে বা তার প্রাণহানি ঘটলে, ওই ব্যক্তি সর্বোচ্চ পাঁচ বছর কারাদণ্ড বা সর্বোচ্চ পাঁচ লাখ টাকা অর্থদণ্ড বা উভয় দণ্ডে দণ্ডিত হবেন।

কোম্পানি অপরাধ সংঘটন- কোনো কোম্পানি এই আইনের অধীন কোনো অপরাধ করলে ওই অপরাধের সঙ্গে প্রত্যক্ষ সংশ্লিষ্টতা রয়েছে ওই কোম্পানির এমন মালিক, পরিচালক, নির্বাহী কর্মকর্তা, ব্যবস্থাপক, সচিব, অন্য যেকোনো কর্মকর্তা বা কর্মচারী ওই অপরাধ সংঘটন করেছেন বলে গণ্য হবেন। যদি না তিনি প্রমাণ করিতে পারেন যে, ওই অপরাধ তার অজ্ঞাতসারে হয়েছে এবং এটা রোধ করার জন্য তিনি যথাসাধ্য চেষ্টা করেছেন।




DMCA.com Protection Status

এই বিভাগের সকল সংবাদ
ওমান সফর শেষে দেশে ফিরলো বাংলাদেশ ফুটবল দল রাত পোহালেই বাফুফের কাঙ্খিত এজিএম আজ ভারতের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ ইমার্জিং দল ‌ফি‌রেই ব্রা‌জিল‌কে হরা‌লেন মে‌সি ব্রাজিলের পেনাল্টি মিস, মেসির গোলে এগিয়ে আর্জেন্টিনা ব্যাটসম্যান বেশি নিয়েও কাঙ্খিত ফল না আসায় ভুগতে হচ্ছে: ডোমিঙ্গ আবুধাবিতে অন্য এক শাকিব খান 'তারুণ্যের সময়'-এ আসছেন উপস্থাপিকা মৌসুমী মৌ ও ফারজানা বিথী সময় অনলাইনের ‘বদ্যিবাড়ি’র ১০০তম পর্ব উদযাপন ‘পাসওয়ার্ড’-এর প্রচারণায় ঢাকায় আসছেন দেব-রুক্মিণী অনলাইনে খাবারের অর্ডার দিয়ে ৪ লাখ টাকা খোয়া পেঁয়াজের ঘ্রাণ নেয়ার দৃশ্য ভাইরাল (ভিডিও) দিনে একবেলা খেতে দেয়া হয় এরিককে: বিদিশা একটি পেঁয়াজের জন্য... কুয়েতে জালালাবাদ অ্যাসোসিয়েশনের অভিষেক বিএনপির উইকেটের পতন হচ্ছে: কাদের বাজারে আসছে vivo u20 আইপিএল থেকে বাদ সাকিব আল হাসান ভেনিসের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ, জরুরি অবস্থা জারি মালয়েশিয়ার নাইটক্লাবে ৪ বাংলাদেশি নারীর কারাদণ্ডের খবর মিথ্যা যাত্রীর ২০ লাখ টাকা ফেরত দিলেন রিকশাচালক ‘সৌদিতে নারী গৃহকর্মী পাঠাতে নতুন করে ভাবতে হবে’ আওয়াজ তুলতে বললেন মিথিলা (ভিডিও) এরিকসহ অবরুদ্ধ বিদিশা, মন্তব্য করেননি জিএম কাদের কাস্টমসে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি বগুড়ায় চুরি হওয়া নবজাতক ২৮ ঘণ্টা পর উদ্ধার ‘গুলতেকিনের মতো আমি বিয়ে করলে চামড়া ছিইল্ল্যা লবণ লাগাইবো’ এক টুকরো স্বর্গরাজ্য ডায়েট না করেও স্লিম দিশা পাটানি বিমানে আসছে পেঁয়াজ নরসিংদীতে বন্দুকযুদ্ধে ডাকাত নিহত, আহত ৩ পুলিশ বন্ডে সই করবেন না নওয়াজ শরিফ আমিরাত সফরে মিশরের প্রেসিডেন্ট সিসি মিশরে তেলের লাইনে অগ্নিকাণ্ডে ৭ জনের মৃত্যু খালি চোখে জাল নোট চেনার উপায় ইউক্রেনকে রুশবিরোধী অবস্থান থেকে সরে আসার আহ্বান বংশীবাদক বারী সিদ্দিকীর জন্মদিন উদযাপন কলকাতার ‘জানবাজ’ বাংলাদেশে মুক্তি পাচ্ছে ২২ নভেম্বর শ্রীলঙ্কায় প্রেসিডেন্ট নির্বাচন শনিবার ছদ্মবেশী খুনির নাম ধরে ডাকতেই গুলি করা হয় সগিরাকে ব্রিটেনে জমে উঠেছে নির্বাচনী প্রচারণা ট্রাম্পের বিরুদ্ধে তদন্তে পরিবারে নেতিবাচক প্রভাব বাংলাদেশের কপালে আগারওয়াল দুর্গতি ইরাকে বিক্ষোভে আরো ৩ জন নিহত পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি পেঁয়াজের সিন্ডিকেট আওয়ামী লীগের লোক: রিজভী ভুল চিকিৎসায় প্রসূতির মৃত্যুর অভিযোগ মাদকসেবী ভূমি কর্মকর্তাকে বরখাস্তের দাবি বুলবুল চলে গেলেও বিদ্যুৎ নেই পিরোজপুরে সিগন্যাল মানেননি লোকোমাস্টার: তদন্ত প্রতিবেদন বলিভিয়ায় পুলিশের গুলিতে নিহত ২ কলেজছাত্রীকে অপহরণচেষ্টার অভিযোগে ছাত্রলীগ নেতাসহ আটক ১০ গোপালগঞ্জে ট্রলি চাপায় খাদ্য পরিদর্শক নিহত হংকংয়ে তুমুল সংঘর্ষে নিহত ১ টিফিনের টাকায় ৫৫ হাজার বৃক্ষরোপণ গাজায় বিমান ও ড্রোন হামলা ইসরাইলের পাকিস্তান জঙ্গি উৎপাদনের কারখানা: জয়শঙ্কর রোহিঙ্গা বিষয়ে জাতিসংঘে প্রস্তাব পাস সাদেক হোসেন খোকার চেহলাম অনুষ্ঠিত ছুটির দিনে করদাতাদের সরব উপস্থিতি বাংলাদেশ-ভারত বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক জোরদারের আহ্বান মোটা ছেলেদের ফ্যাশন টিপস মিয়ানমারের বিরুদ্ধে তদন্তের অনুমতি দিয়েছে আইসিসি যুক্তরাজ্য বিএনপির কমিটি ঘোষণা (পুরো তালিকা) ডিমের হালি ২২২৯ টাকা! শিডিউল বিপর্যয়ে উত্তর-দক্ষিণাঞ্চলের ট্রেন মেরিন জার্নালিস্ট নেটওয়ার্কের সভাপতি সোহেল, সম্পাদক ফরহাদ করের হার কমিয়ে পরিমাণ ঠিক রাখা হবে: অর্থমন্ত্রী পাগলা কুকুরের কামড়ে নোয়াখালীতে আহত ১৬ ‘তাড়াতাড়ি চলুন, গাড়িতে প্রসব হয়ে গেছে!’ পেঁয়াজের অস্থিরতা নিয়ন্ত্রণে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ পেঁয়াজ সংকট সাময়িক: কাদের দাম কমছে স্যামসং গ্যালাক্সি এ৫০-এ৩০ ফোনের চালের দাম বেড়েছে দিনাজপুরে পাকিস্তানে বজ্রঝড়ে ২৭ জন নিহত, জরুরি অবস্থা লাইভে ধরা পড়ল চুরি, ভিডিও ভাইরাল (ভিডিও) ক্লোজআপ ওয়ান তারকা কিশোরের বিয়ে নারীর গর্ভে সন্তান নেই, বের হলো গাঁজা! আলুর স্পেশাল জালি কাবাব পাঁচ কেজি পেঁয়াজ কিনলে ১০ টাকা ছাড় প্রধানমন্ত্রীর জন্য ইডেনে যা থাকছে মেন্যুতে কর আদায়ে আগামীতে কোনো অনিয়ম হবে না : অর্থমন্ত্রী বাংলাদেশে পুরুষাঙ্গের সফল প্রতিস্থাপন বিবিসির খবর নিয়ে আবারও নেতিবাচক প্রতিক্রিয়া অনলাইন বিজ্ঞাপনের ওপর যেকোনো সময় কর আরোপ ‘দীর্ঘদিন যারা দলে আছেন তাদেরকেই প্রাধান্য দেয়া হবে’ মন্টিনিগ্রোকে গোল বন্যায় ভাসাল ইংল্যান্ড সেরা করদাতা হলেন সাকিব-তামিম-মাশরাফী ইন্দোরে বড় লিডের পথে ভারত জয় দিয়ে টি-২০ সিরিজ শুরু করল ওয়েস্ট ইন্ডিজ রাজধানীতে পেঁয়াজের কেজি ২৪০ টাকা বই কিনলে পেঁয়াজ ফ্রি একদিন পেরিয়ে গেলেও রংপুর এক্সপ্রেসের বগি-ইঞ্জিন উদ্ধার হয়নি মেলার দ্বিতীয় দিনে রিটার্ন দাখিল করছেন করদাতারা ‘দিনে ঘুমাতে দিলেও সারারাত পুরুষ দিয়ে জ্বালাতন করত’ পেঁয়াজের নতুন নাম ‘উন্নয়ন’ ফল : পার্থ কসবায় দুর্ঘটনা প্রসঙ্গে যা বললেন অন্য ট্রেনের চালকরা ইউরোপের রাজনীতিতে মুসলিমবিদ্বেষ কেন? রকের মৃত্যু নিয়ে ফের গুজব রোনালদোর হ্যাটট্রিকে পর্তুগালের বড় জয়
আরও সংবাদ...
নকআউট মিশনে রাতে মাঠে নামবে বার্সেলোনা সিরিয়ায় বাগদাদির বোন আটক কে এই রহস্যময় আজিজ মোহাম্মদ ভাই (ভিডিও) এবার নারী সহকর্মীর সঙ্গে কৃষি কর্মকর্তার আপত্তিকর ভিডিও ফাঁস স্বপ্নে স্বামীর ভালবাসায় গর্ভবতী স্ত্রী! আন্দোলনে দেশের শীর্ষ ক্রিকেটাররা যুক্তরাষ্ট্র যাচ্ছেন সাকিব! ১৮ মাসের জন্য নিষিদ্ধ হচ্ছেন সাকিব! আবরার হত্যার আসামি ছেলে, দিশেহারা ভ্যানচালক বাবা আবরার হত্যার নতুন ভিডিও ভাইরাল (ভিডিও) আটক জেলে ছিনিয়ে নিতে আগে গুলি চালায় বিএসএফ বাংলাদেশ এখন বিশ্ব ফুটবলের রাজধানী: ফিফা সভাপতি ‘মিম’কে ‘ডিম’ বলে ডাকায় হত্যা! অ্যাম্বুলেন্স না পেয়ে প্রসব বেদনায় নায়িকার মৃত্যু সাকিবের কারণে ১০০ কোটি টাকা হারালাম : পাপন ক্যাসিনোতে জুয়া খেলছেন বিসিবি সভাপতি পাপন! (ভিডিও) হত্যার উদ্দেশ্য ছিলো না, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আসামিরা সেই দুঃসাহসিক নারী বাইকারের মর্মান্তিক মৃত্যু (ভিডিও) ভারত থেকে স্বাধীনতা ঘোষণা করল মনিপুর! অমিত সাহার সমর্থন করে ক্ষমাপ্রার্থী সহপাঠীরা টয়লেটে মোবাইল ব্যবহার করলেই পাইলস! ততদিনে আমার মেয়ে বড় হয়ে যাবে : তাহসান বিদ্যুৎস্পৃষ্টে শিক্ষার্থীর মৃত্যুর খবর 'গোপন' করে চললো অনুষ্ঠান বোরহানউদ্দিনে হেলিকপ্টারযোগে বিজিবি মোতায়েন বিয়ের ১১দিনেই স্ত্রীকে তালাক দিয়ে শাশুড়িকে বিয়ে! ৭ দিনে কোটিপতি হওয়ার ৭ উপায় ক্রিকেটে কালবৈশাখীর থাবা, উত্তাল ভক্তরা ভোলায় ফেসবুক আইডি হ্যাক করে গুজব ছড়ানো হয়েছে: প্রধানমন্ত্রী তাহসান জানালেন নতুন খবর সাকিব-তামিমদের ধর্মঘট নিয়ে যা বললেন সৌরভ গাঙ্গুলি সাকিবের বিরুদ্ধে অভিযোগই গঠন হয়নি! সাকিবদের বেতন ৪ লাখ টাকা : পাপন আদালতের টয়লেটে বিচারপ্রার্থী নারীর সঙ্গে ধরা পুলিশ কর্মকর্তা! ছবিটি দেখে দর্শকরা প্রতারিত হবেন না : আইরিন ভারতীয় বিমানকে ধাওয়া পাকিস্তানের, আফগানিস্তান গিয়ে রক্ষা (ভিডিও) নুসরাত হত্যা: ১৬ আসামির ফাঁসির আদেশ কাঁকড়ার খামার করছেন সাকিব (ভিডিও) আবরার হত্যা মামলায় অমিত সাহাকে ইচ্ছাকৃত বাদ দেয়া হয়নি: ডিবি আবরার হত্যার আগে বুয়েট ভিসি-আইজিপির সাক্ষাতে যে কথা হয় আবরার হত্যা: প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে যা বললো ১০ আসামি ভোলায় পুলিশের সঙ্গে এলাকাবাসীর সংঘর্ষে নিহত বেড়ে ৪ কনের আসনে ভাবী, দৌড়ে পালালেন কাজী বাংলাদেশে পাবজি নিষিদ্ধ জয়ের পর ফেসবুকে সাকিবের পোস্ট আবরার হত্যার প্রতিবাদে প্রতীকী কফিন মিছিল সিসিটিভির ফুটেজে আমার ছেলেকে দেখা যায়নি: রাসেলের মা শিশু তুহিনের শরীরে বিদ্ধ ছুরিতে দুইজনের নাম আমরা গরিব হলেও ফকির না: শবনম ফারিয়া আমি কাউকে ছাড় দেব না: শেখ হাসিনা যে কারণে ভোলায় সংঘর্ষ
আরও সংবাদ...


somoytv subscribe
সময়ের সকল ভিডিও দেখতে সাবস্ক্রাইব করুন

somoytv subscribe
বুলেটিন ও সম্পাদকীয় দেখতে সাবস্ক্রাইব করুন

Contact Address

Nasir Trade Centre, Level-9,
89, Bir Uttam CR Dutta Road, Dhaka 1205, Bangladesh
Email: somoydigitalsomoynews.tv

Find us on

  Live TV DMCA.com Protection Status
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
উপরে