মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
আপডেট
১৪-০৮-২০১৯, ১৪:৪২

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু : বাঙালির মুক্তির নায়ক

mujib-pic
আগস্ট মাস বাঙালির ইতিহাসের শোকের মাস। এ মাসে আমরা হারিয়েছি তিনজন মহান বাঙালিকে রবীন্দ্রনাথ, বঙ্গবন্ধু এবং নজরুল। রবীন্দ্রনাথ ছিলেন পৃথিবীর প্রথম অশ্বেতাঙ্গ নোবেল বিজয়ী। এই মহান মনীষীর মহাপ্রয়াণের ঠিক ত্রিশ বছর পর স্বাধীন বাংলাদেশের জন্ম হয় এমন আর এক বাঙালির নেতৃত্বে কালের বিবর্তনে তাঁকে মনে করা হয় সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি, এমনকি রবীন্দ্রনাথের মতো কালজয়ী বিশ্বের অন্যতম শ্রেষ্ঠ মানুষটিকে ডিঙ্গিয়ে, ঠিক যেমনটা ইংরেজরা উইনস্টন চার্চিলের গলায় শ্রেষ্ঠ ইংরেজের বরমাল্য পরিয়ে দিয়েছেন শেক্সপিয়রের মতো আর এক কালজয়ী মানুষকে ডিঙ্গিয়ে।
   
১৯৯৫ সালে কানাডার দু’জন সাংবিধানিক বিশেষজ্ঞ লিখছিলেন, ‘১৯৪৫ সালের পর বাংলাদেশই একমাত্র দেশ যে সফলভাবে সশস্ত্র সংগ্রামের মাধ্যমে পাকিস্তান থেকে নিজেকে বিচ্ছিন্ন করার কৃতিত্ব অর্জন করে। এ সশস্ত্র সংগ্রামের প্রধান শক্তি ছিল ঐ জাতির সহজাত নেতা শেখ মুজিবুর রহমান, যাঁর নেতৃত্বে আওয়ামী লীগ নির্বাচনে এক অতুলনীয় বিজয় ছিনিয়ে আনে। তিনি যে আস্বাদিত জনসমর্থন পেয়েছিলেন সেটা একটি পশ্চিমা গণতন্ত্রে অভাবনীয়।’ অনুরূপ মতামত যেমন- ‘শেখ মুজিবের একমাত্র অপরাধ একটি গণতান্ত্রিক নির্বাচনে তিনি জয়ী হয়েছিলেন’- আমাদের স্বাধীনতাযুদ্ধ চলাকালে, ক্যাপিটল হিলে যেটা নিরন্তর প্রতিধ্বনিত হয়েছিল।


নিউইয়র্ক টাইমস পত্রিকার লেখক পেগী ডারদিন যিনি ১৯৭১ সালের ২৮ ফেব্রুয়ারি থেকে ঢাকায় অবস্থান করছিলেন, তিনি ২ মে ১৯৭১ সালে ‘পূর্ব পাকিস্তানে তাড়িত রাজনৈতিক জোয়ার’ শিরোনামে একটি নিবন্ধ লিখেছিলেন। যেটাতে তিনি লেখেন, ‘সমস্ত মার্চে শেখ মুজিব এবং তাঁর সহকর্মীরা আঁকাবাঁকা গেম খেলেন এবং তাঁদের লক্ষ্য ও কৌশল স্পষ্ট করতে অস্বীকার করেন। অবশ্য তাঁদের এটা করা ছাড়া কোন উপায় ছিল না। স্বাধীনতার জন্য একটি খোলাস্ট্যান্ড হতো সরাসরি বিশ্বাসঘাতকতা এবং তাঁদের বিরুদ্ধে দেশদ্রোহের অভিযোগ আনা যেত। ... শেখ মুজিব পূর্ব ও পশ্চিমের এক জাতীয় নেতা হয়ে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী হওয়ার বিন্দুমাত্র আগ্রহ দেখাননি, যদিও একটি সর্বপাকিস্তান সরকারের প্রধানমন্ত্রীর পদ পাওয়ার মতো সংখ্যাগরিষ্ঠতা জাতীয় পরিষদে তাঁর ছিল।’

জেনারেল রাও ফরমান আলী অবশ্য বলেন ভিন্ন কথা। ‘সবশেষে তারা (বাঙালিরা) পাকিস্তান শাসন করার সম্ভাবনা দেখেছিল। মুজিব (পাকিস্তানের) প্রধানমন্ত্রী হতে চেয়েছিলেন। কিন্তু জাতীয় পরিষদের অধিবেশন স্থগিত হয়ে যাওয়ার পর তাঁর উপদেষ্টারা তাঁকে বুঝাতে সক্ষম হয়েছিলেন এবং তিনি এ সিদ্ধান্তে উপনীত হয়েছিলেন যে, সামরিক এবং পিপিপির সম্মিলিত বাহিনীর শক্তি তাঁকে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী হওয়ার ইচ্ছা সত্যে পরিণত হতে দেবে না। অতএব তিনি একটি নতুন জাতির ‘জনক’ হওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন।’

যাই হোক, তাঁর ছয় দফা থেকে এক দফায় রূপান্তর একটি দিন বা একটি মাসে ঘটেনি। নোভাকের কথায়- ‘মুক্তিযুদ্ধের বহু আগেই, মুজিব পূর্ববাংলাবাসীদের মনে সাফল্যের সঙ্গে এই বোধ সঞ্চারিত করতে পেরেছিলেন যে, তারা পাকিস্তানী আগ্রাসন ও অবিচারের শিকার। এর ফলে আন্দোলনরত বাঙালিরা সবসময় এক ধরনের নৈতিক স্বস্তিতে থেকেছে যে, তারা নির্দোষ এবং যা করছে তা ন্যায্য। তাঁর বিশ্বাস যাই হোক না কেন, তাঁর ব্যক্তিত্বই তাঁকে তাঁর যুগের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিতে পরিণত করেছিল। রাজনীতিতে তিনি ছিলেন ধূমকেতুর মতো। বস্তুত তিনি ছিলেন এক সজ্ঞাত শক্তি, যার ব্যক্তিত্ব এবং কর্মকাণ্ড বাংলাদেশ মানসের গভীরতম প্রদেশকে অনুপ্রাণিত করেছিল। তিনি ছিলেন এক নৌকা, যাতে চেপে জনগণের আকাক্সক্ষা বয়ে যেতে পারত।’

বহুদিন আগে সক্রেটিস যেমনটা বুঝেছিলেন তেমনি রাজনীতিবিদ শেখ মুজিবও বুঝেছিলেন যুক্তি এবং আবেগের সংমিশ্রণের। নোভাকের কথায়- ‘মুজিব সামরিক এবং মার্শাল পাকিস্তানী পাঞ্জাবীদের তুলনায় বাংলা সংস্কৃতির শ্রেষ্ঠত্বের বোধকে সবসময় উস্কে দিয়েছেন। এটা করতে গিয়ে তিনি বাঙালি কবিদের কবিতা দিয়ে পাকিস্তানের মহান কবি ইকবালের কবিতাকে প্রতিস্থাপিত করেছেন। জনগণকে উদ্দীপ্ত করার জন্য তিনি ব্যবহার করেছেন কাজী নজরুলের উদ্দীপনাময় গান এবং কবিতা। অকৃত্রিম বাঙালি মনের সূক্ষ্ম এবং শৈল্পিক গুণাবলী এবং সেই মনের নৈতিক অবস্থান ব্যাখ্যা-বিশ্লেষণে কবিতার ভূমিকা কি তা মুজিব বুঝেছিলেন। এটা বিশ্বাস করা হয়, ‘বাংলাদেশ কখনই কিছু বিশ্বাস করে না যতক্ষণ না একজন কবির দ্বারা তা উচ্চারিত হয়।’ রবীন্দ্রনাথ ছিলেন ইকবালের থেকেও বড় বাঙালি কবি। তার চেয়ে বড় যেটা রবীন্দ্রনাথ ছিলেন বাংলার সন্তান। ফলে ইকবালের চাইতে অনেক বেশি প্রিয়। মুজিবের এই কবিতা কৌশল এত ফলপ্রসূ হয়েছিল যে, এক পর্যায়ে পাকিস্তান সরকার রবীন্দ্রনাথের গান ও সাহিত্য গাওয়া এবং পাঠ করাকে দেশদ্রোহিতা আখ্যা দিয়ে নিষিদ্ধ ঘোষণা করে। বলার অপেক্ষা রাখে না, এটাই মুজিব চেয়েছিলেন। অন্যদিকে উদ্দীপনাময় গান ও কবিতার কারণে বিদ্রোহের পূর্বক্ষণে নজরুল হয়ে উঠেছিলেন আওয়ামী লীগের কর্মী বাহিনীর কাব্যিক কণ্ঠস্বর।’

তাঁর কঠোর পরিশ্রম, সরলতা এবং সত্যবাদিতার কথা উল্লেখ করতে গিয়ে নোভাক লিখেছেন, ‘পশ্চিমা ধ্যান-ধারণায় অভ্যস্ত মুসলিম লীগাররা ঢাকা অথবা চট্টগ্রামের চেয়ে লন্ডনে থাকতে এবং দেশী নৌকার তুলনায় এ্যারোপ্লেনে ভ্রমণ করতে বেশি স্বচ্ছন্দবোধ করতেন। একইভাবে তারা ভোট প্রার্থনা বা ভোট অর্জনের চাইতে ভোট কিনতেন। অন্যদিকে শেখের রীতি ছিল কঠোর পরিশ্রম। অক্লান্তভাবে তিনি জেলায় জেলায়, মহকুমায় মহকুমায় ঘুরে বেড়িয়েছেন। গ্রাম থেকে গ্রামান্তরে মাঠের পর মাঠ হেঁটে মানুষের সঙ্গে মিশেছেন, মানুষদের সংগঠিত করেছেন। তাদের চা, ভাত, ডাল, লবণ ভাগ করে খেয়েছেন; নাম মনে রেখেছেন, তাদের সঙ্গে মসজিদে নামাজ আদায় করেছেন, ফসলের মাঠে প্রখর রোদে ঘর্মাক্ত হয়েছেন, কেউ মারা গেলে শেষকৃত্য অনুষ্ঠানে কেঁদেছেন এবং কুলখানিতে উপস্থিত থেকেছেন। শেখ মুজিব অন্যের আবেগ-অনুভূতির সঙ্গে একাত্ম হতেন আন্তরিকতার সঙ্গে, আচরণ করতেন সহানুভূতির সঙ্গে এবং হাত বাড়িয়ে যা স্পর্শ করতেন তা গোলফ ক্লাব বা ক্লাবের চেয়ার নয়, জনগণের ঘর্মাক্ত ধূলিমলিন হাত। জনগণ কি বিশ্বাস করে, কি চায় তা তিনি জানতেন এবং তাদের বোধগম্য ভাষায় সবকিছু ব্যাখ্যা করতে পারতেন। জনগণও এটা জানত বলে তারা বিশ্বাস করত তাঁর মিথ্যা বলার প্রয়োজন নেই।’ 


গণহত্যা, সশস্ত্র সংগ্রাম এবং অনুচ্চারিত দুঃখভোগের নয় মাসে শেখ মুজিবের নাম লাখ লাখ মানুষের অন্তরে রাতদিন প্রজ্বলিত হয়েছিল এবং তিনি হয়ে উঠেছিলেন বাংলাদেশের জনগণের এক উপদেবতা। জেনারেল রাও ফরমান আলীর ভাষায়Ñ ‘বাংলাদেশের জনগণের ৯০% শেখ মুজিবের ঐন্দ্রজালিক ক্ষমতা দ্বারা বিমোহিত হয়েছিল এবং তারা বাংলাদেশ সৃষ্টির জন্য তাদের জীবন দিতে প্রস্তুত ছিল।’

বিবিসির বাংলা বিভাগের শ্রোতাদের পৃথিবীব্যাপী জরিপে তিনি যখন সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি হিসেবে বিবেচিত হন তখন বিবিসি শ্রোতাদের মতামতের সংক্ষিপ্ত সার ছিল নিম্নরূপ : ‘তিনি ছিলেন বাঙালি জনগণের অন্ধকারাচ্ছন্ন যুগের আলোর বাতিঘর। তাঁর রাজনৈতিক প্রজ্ঞা, বাঙালিদের স্বার্থের জন্য আপোসহীনতা শুধু বাংলাদেশের ভৌগোলিক সীমার মধ্যে নয়, সারাবিশ্বের বাঙালিদের প্রথমবারের মতো ঐক্যবদ্ধ করে এবং তিনিই তাদের জাতীয়তা দিয়েছেন। সারা পৃথিবীর বাঙালি, যারা বাংলাদেশের নাগরিকত্ব লালন করেন, তারা এক ব্যক্তির নেতৃত্বের কাছে এই জাতীয়তার জন্য ঋণী এবং তিনি শেখ মুজিবুর রহমান ছাড়া অন্য কেউ নন।’

এ্যারিস্টটল লিখেছেন, বিয়োগান্তের নায়ক হওয়ার কারণ তার ‘ত্রুটিময় বিবেচনা’ বা তার নেতৃত্বের ‘দুঃখজনক ত্রুটির’ কারণে। তার দৈবদুর্বিপাক, যতটুকু তার ভাগ্যে প্রাপ্য তার চেয়ে অনেক বেশি। মুজিব প্রকৃতপক্ষে এক বিয়োগান্তক নায়ক।

 

[লেখক: শফিকুল আলম রেজা, প্রচার সম্পাদক, বাংলাদেশ ছাত্রলীগ।] 




DMCA.com Protection Status

এই বিভাগের সকল সংবাদ
গাইবান্ধায় ধানের চারার ব্যাপক সংকট হংকংয়ে সরকারের পক্ষে রাস্তায় লাখ মানুষ সীমান্ত সমস্যা: শিলংয়ে গেলেন ৭ জেলার ৫২ কর্মকর্তা পিরোজপুরে ডেঙ্গুতে হাসপাতালে ভর্তি ৬৬ দর্শনার্থীদের পদচারণায় মুখর বাগেরহাট শহর রক্ষাবাঁধ বাংলাদেশের প্রবৃদ্ধি ৮ শতাংশ হবে : এডিবি সুপ্রিম কোর্টে ৩৭০ ধারা বিলোপ আদেশকে চ্যালেঞ্জ ঠাকুরগাঁওয়ে সন্ত্রাসী হামলায় এনটিভির সাংবাদিকসহ আহত ২ চামড়া কেনাবেচা শুরু না হওয়ায় বিপাকে আড়ৎদাররা সাতক্ষীরায় আ. লীগের দু'গ্রুপের সংঘর্ষে আহত ২০ ঢাকার বাইরে ডেঙ্গুতে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েছে আজকের রাশিফল (১৯ আগস্ট) সিংহের বাড়িতে অতিথি সমাগম, ধনুর বিপদ আসতে পারে চামড়া খাতে সরকারি ব্যাংকগুলোর দেয়া ঋণের বেশিরভাগই খেলাপি জরাজীর্ণ ভবনে ঝুঁকি নিয়েই চলছে ক্লাস এপ্রিল টোয়েন্টি ফাইভকে হারানো সম্ভব: আবাহনী কোচ সাফ অনূর্ধ্ব-১৫'র জন্য ২৩ সদস্যের দল ঘোষণা নতুন কোচের অপেক্ষায় তাসকিন সাকিবের সঙ্গে দ্বন্দ্ব ইস্যুতে মুখ খুললেন মাহমুদুল্লাহ (ভিডিও) অনূর্ধ্ব-২১ হকি দলের দ্বিতীয় পর্বের ট্রায়াল ক্যাম্প শুরু জার্মানিতে প্রবাসীদের ঈদ পুনর্মিলনী সৌদিতে খালেদা জিয়ার রোগমুক্তি কামনায় দোয়া মাহফিল বলিউডে পা রাখছেন বাংলাদেশি অভিনেত্রী কোহলির নামে স্টেডিয়ামের গ্যালারি সব ধরণের ক্রিকেট থেকে নিষিদ্ধ মোহাম্মদ শেহজাদ ছিটকে গেলেন স্মিথ, পরিবর্তে ব্যাট করলেন লাবুশানে নিউজিল্যান্ডকে হারিয়ে সিরিজ শুরু শ্রীলঙ্কার শুটিংয়ে ফিরছেন নুসরাত রাঙামাটিতে টহল দলের ওপর সন্ত্রাসীদের গুলি, সেনা সদস্য নিহত জাকিরকে কড়া বার্তা মাহাথিরের ভারতের ১১টি যুদ্ধবিমান কেন বিধ্বস্ত হলো? মাঝ পদ্মায় দুটি লঞ্চ ও ফেরির সংঘর্ষে আহত ৫ বগুড়ায় বিয়েতে বরকে জিম্মি করে হিজড়াদের কাণ্ড, ভাঙচুর পাকিস্তানকে দেয়া অনুদানের টাকা কেটে নিল যুক্তরাষ্ট্র হজে গিয়ে বাংলাদেশি নারী নিখোঁজ ইসরাইলি বাহিনীর গুলিতে হামাসের ৫ সদস্য নিহত ভারতে অধিনায়ক হচ্ছেন সাকিব! ৪৫ দিনে সোনার দাম বাড়ল ৫ বার! দ্রুত বেতন বাড়ার ৫ কারণ স্কুল শিক্ষিকাকে ধর্ষণের পর হত্যা, গ্রেফতার ২ রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে প্রস্তুত বাংলাদেশ কলকাতায় গাড়িচাপায় নিহতদের বাড়িতে শোকের মাতম মামলায় সাক্ষ্য দিতে চাওয়ায় সাক্ষীর মেয়েকে তুলে নিয়ে ধর্ষণ সেরা পুরস্কার পাওয়ার একদিন পরই ঘুষসহ পুলিশ আটক রাজস্ব ফাঁকি প্রতিরোধে অ্যাপ আনছে এনবিআর ‘স্বাধীনতার ঘোষণার খবর পাঠকের ভূমিকায় ছিলেন জিয়া’ নোয়াখালীতে ডেঙ্গু জ্বরে যুবকের মৃত্যু কন্যা সন্তান জন্ম নেওয়ায় পাষণ্ড বাবার কাণ্ড ছাত্রী ধর্ষ‌ণ, খুলনার কর ক‌মিশনারের ছেলে রিমান্ডে সালমান এফ রহমান বললেন ১০ হাজার, শিল্পমন্ত্রীর মতে ৫ হাজার পিস চামড়া নষ্ট! টেবিলে দ্রুত খাবার না দেয়ায় গুলি করে হত্যা ইরানি জাহাজ নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের পরোয়ানা অগ্রাহ্য জিব্রাল্টারের সেই রুবির আত্মহত্যায় চেয়ারম্যানসহ ২ জনের বিরুদ্ধে মামলা বেনাপোল বন্দর দিয়ে আমদানি-রপ্তানি শুরু কেন ১০ কোটি টাকার বিজ্ঞাপনে কাজ করলেন না শিল্পা? ধামরাইয়ে স্কুলছাত্রের লাশ উদ্ধার ভাড়াটিয়ার ঘরে ঢুকে ধর্ষণের চেষ্টা, বাড়িওয়ালা গ্রেফতার বিএনপির যৌথ সভা কাল ‘বঙ্গবন্ধুর খুনিদের দোসররা এখন ষড়যন্ত্র করছে’ প্রতিদিন ডিম খাওয়ার উপকারিতা স্ট্রোক হয়েছে বুঝবেন যেভাবে ‘সালমানের সঙ্গে আমার বিয়ে হচ্ছে’ গাড়িচাপায় দুই বাংলাদেশি নিহত, ব্যবসায়ীপুত্রের ১২ দিনের রিমান্ড শিশু ধর্ষণ মামলার আসামি গ্রেফতার জনতার ধাওয়ায় পালানো সেই ২ এএসআই প্রত্যাহার ‘ক্রিকেট বিশ্বে পরাশক্তি হয়ে উঠবে বাংলাদেশ’ ফিরছেন রিয়াদ বন্ধ হচ্ছে না ম্যাসেঞ্জারে ‘গ্রুপ চ্যাট’ নৌরুটে বেড়েছে ফিরতি মানুষের ঢল ২০ পুলিশ সুপার হলেন অতিরিক্ত ডিআইজি জিআরপি থানায় ধর্ষণের শিকার সেই গৃহবধূর জামিন নামঞ্জুর ‘যে কোনো সময় শুরু হবে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন’ এক শিশু ছাড়া অটোরিকশার কেউ বাঁচল না... চামড়া সংকটে স্থায়ী সমাধান করা হবে: শিল্পমন্ত্রী ইন্টারনেটে ভিডিও দেখা বিপজ্জনক! ফেসবুকের গ্রুপেও পরিবর্তন, ক্লোজড ও সিক্রেট অপশনও বন্ধ ‘রাস্তায় ময়লা ফেলে পরিষ্কার অভিযানের চেয়ে হাস্যকর বিষয় আর নেই’ ভাসতে থাকা ২৭ শিশুকে বন্দরে প্রবেশের অনুমতি দিল ইতালি সেই ঘটনায় মুখ খুললেন মাহমুদউল্লাহ এফআর টাওয়ারের নকশা জালিয়াতির ঘটনায় তাসভীর গ্রেফতার ঢামেকে নার্স-স্টাফদের সংঘর্ষে মার খেলেন প্যাথলজি বিভাগের প্রধান বন্ধ হচ্ছে ফেসবুকের গ্রুপ চ্যাট সেবা গোপালগঞ্জে ২ জনকে পিষে মারল সুগন্ধা পরিবহন দ্বিতীয়বার ডেঙ্গু হলে করণীয় জেলে যাওয়ার ভয়ে গানটি বন্ধ রাখেন নোবেল আকাশেই ধ্বংস ইসরাইলের ক্ষেপণাস্ত্র সুদানে ক্ষমতা ভাগাভাগি নিয়ে ঐতিহাসিক চুক্তি সাক্ষর ব্রেক্সিট নিয়ে নতুন চুক্তির আহ্বান জানাবেন বরিস ফেনসিডিলসহ নারী মাদক ব্যবসায়ী আটক চলতি মাসেই উন্মুক্ত হচ্ছে মালয়েশিয়ার শ্রমবাজার অভিনেতা ফারুকের জন্মদিন আজ ভেড়া পেয়ে খুশি হয়ে প্রেমিকের হাতে স্ত্রীকে তুলে দিলেন স্বামী রোহিঙ্গা ইস্যুতে ঢাকায় আসছেন ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ভারতকে দাঁতভাঙা জবাব দেয়ার ঘোষণা পাকিস্তানের সপ্তাহে কয়টি ডিম খাওয়া উচিৎ? পাবনায় গণপিটুনিতে দুইজনের মৃত্যু ঝিনাইদহে গৃহবধূকে কুপিয়ে হত্যা শরীয়তপুরে নববধূর ঘরে ঢুকে বর উধাও, মানববন্ধন ভুয়া কনটেন্ট রিপোর্ট করা যাবে এমন ফিচার ইন্সটাগ্রামে সৌদিতে স্মরণকালের ভয়াবহ হামলা রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন প্রস্তুতি নিয়ে টাস্কফোর্স কমিটির বৈঠক
আরও সংবাদ...
আদালতের এক প্রশ্নে ‘চুপ’ হয়ে যান মিন্নি এরশাদ মারা গেছেন ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত নয়ন বন্ড ৫০০ মশা জমা দিলে ১০০ টাকা! জরিমানা গুনলেন জেসন রয় কুমিল্লায় হাসতে হাসতে অজ্ঞান ২৫ শিক্ষার্থী বরগুনায় কিলিং মিশনের মূল ভূমিকায় ছিল রিফাত ফরাজি (ভিডিও) স্কুল পরিদর্শনে এসে ‘ছেলেধরা’ গুজবের শিকার শিক্ষা কর্মকর্তা রিফাত ফরাজী গ্রেফতার 'শিশুর মাথা ব্যাগে রাখা সেই রবিন ছেলেধরা নয়' ফাঁসির আগে আসিফের শেষ সেলফি! ছোট্ট তুবাকে পুলিশ কর্মকর্তার আবেগঘন খোলা চিঠি বাংলাদেশের বিরুদ্ধে ট্রাম্পের কাছে ভয়ঙ্কর মিথ্যাচার (ভিডিও) ভুলেও গুগলে সার্চ করবেন না যা দ্বিতীয় রানারআপের খবর ভুয়া: নোবেল পাকিস্তানের বিপক্ষে খেলে বিদায় নিচ্ছেন মাশরাফি! ব্যারিস্টার সুমনের বিরুদ্ধে মামলা মিন্নি গ্রেফতার বাংলাদেশ থেকে যাওয়া রোহিঙ্গার প্রশ্নে ‘অবাক’ উত্তর ট্রাম্পের (ভিডিও) পাবনায় শিশুর মাথাবিহীন দেহ উদ্ধার হৃদয় গ্রেফতার ১৫৫ সিসির নতুন জিক্সার বাইক আনছে সুজুকি প্রিয়া সাহার বিরুদ্ধে করা ব্যারিস্টার সুমনের মামলা খারিজ ট্রেনের ধাক্কায় নিহত ছেলেকে দেখে বাবার মৃত্যু দ্রুত গতির বাউন্সারের আঘাতে মৃত্যু ক্রিকেটার জাহাঙ্গীরের ভারতের হারে কাশ্মীরে উৎসব (ভিডিও) বিদায় বললেন রাজা, আইসিসির সামনে রেখে গেলেন কয়েকটি প্রশ্ন ‘মাথায় আঘাত করে অচেতনের পর সায়মাকে ধর্ষণ ও হত্যা করে হারুন’ নতুন নিয়মে খুলতে হবে ফেসবুক অ্যাকাউন্ট সরকারি কর্মকর্তারা সরল বিশ্বাসে দুর্নীতি করলে সেটা অপরাধ নয়: দুদক চেয়ারম্যান ব্যারিস্টার সুমনের বিরুদ্ধে পাল্টা মামলার প্রস্তুতি রোহিত-কোহলি দ্বন্দ্বে দুই ভাগ ভারতীয় দল থানায় নারী পুলিশের নাচ ভাইরাল, চাকরিচ্যুত (ভিডিও) জাহান্নামের ভয় দেখিয়ে ১১ ছাত্রীকে ধর্ষণ! ‘রিফাত হত্যার মূল পরিকল্পনাকারীদের একজন মিন্নি’ বিশ্বকাপ খেলতে ইংল্যান্ড পৌঁছেছেন এমপিরা ঢাকায় এত আধুনিক চোর! (ভিডিও) ইংল্যান্ড-অস্ট্রেলিয়ায় বাংলাদেশের খেলা নিয়ে নতুন করে ভাববে আইসিসি ‘পদ্মা সেতুতে মানুষের মাথা লাগার খবর গুজব’ মোবাইল চার্জ দেওয়া নিয়ে ৫ ভুল ধারণা ‘ট্রাম্পের কাছে প্রিয়া সাহার অভিযোগ সঠিক নয়’ বিশ্বকাপে বিপর্যয়, ভারতীয় দল ছাড়লেন দুজন ২০৩০ বিশ্বকাপের যৌথ আয়োজক চার দেশ প্রিয়া সাহা ইজ নট ইকুয়াল টু বাংলাদেশ ‘অ্যানাবেল কামস হোম’ ভূতের ছবি দেখে সিনেমা হলেই মৃত্যু! ভারতের পরিবর্তে বাংলাদেশে হতে পারে পরবর্তী বিশ্বকাপ চিলিকে হারানোর ম্যাচে লাল কার্ড পেলেন মেসি ধর্ষণ শেষে গলায় রশি পেঁচিয়ে হত্যা করা হয় শিশু সায়মাকে সুবিধা অর্জনের চেষ্টায় মরিয়া প্রিয়া সাহা ভারতে রানের পাহাড় গড়ে ইনিংস ঘোষণা মুমিনুলদের
আরও সংবাদ...


somoytv subscribe
সময়ের সকল ভিডিও দেখতে সাবস্ক্রাইব করুন

Contact Address

Nasir Trade Centre, Level-9,
89, Bir Uttam CR Dutta Road, Dhaka 1205, Bangladesh
Email: somoydigitalsomoynews.tv

Find us on

  Live TV DMCA.com Protection Status
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
উপরে