ksrm
omarket24 odhikarnews sonargaonuniversity niet
আপডেট
১২-০১-২০১৯, ২০:০৩

নির্বাচন নিয়ে বিএনপি-ঐক্যফ্রন্টের প্রশ্নের জবাব দিলেন জয়

joy-gfx1
একাদশ সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের জয় নিয়ে প্রশ্ন উত্থাপনকারীদের জবাব দিলেন প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও প্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়। নির্বাচন নিয়ে বিএনপি ও ঐক্যফ্রন্টের নানা অভিযোগের প্রেক্ষাপটে শনিবার (১২ জানুয়ারি) নিজের ভেরিফাইড ফেসবুক পেইজে এক স্ট্যাটাসে তিনি আওয়ামী লীগের নিরঙ্কুশ জয় ও ঐক্যফ্রন্টের পরাজয়ের কারণ তুলে ধরেন।

সজিব ওয়াজেদ জয় লেখেন, এই নির্বাচনে আওয়ামী লীগ বিএনপির চেয়ে প্রায় ৪ কোটি ৯০ লাখ ভোট বেশি পেয়েছে। এতো বড় ব্যবধানে জয় কখনোই কারচুপির মাধ্যমে আদায় করা সম্ভব নয়। তার লেখায় দাবি করা হয়, আওয়ামী লীগের বাইরে যদি সব ভোট বিএনপি- জামায়াতের পক্ষে যেতো তা হলেও কমপক্ষে ২ কোটি ২০ লাখ ভোট বেশি পেতো আওয়ামী লীগ। 

জয়ের ফেসবুক পোস্টটি হুবহু তুলে ধরা হল-

সাম্প্রতিক নির্বাচনে ব্যালটের মাধ্যমে বিএনপি ও ঐক্যফ্রন্টকে বাংলাদেশের মানুষ পুরোপুরি প্রত্যাখ্যান করেছে। তাই তারা এখন তাদের বিদেশী প্রভুদের কাছে নালিশ করছে ও সাহায্য চাইছে। আন্তর্জাতিক অঙ্গনে যোগাযোগ ও লবিং এর মাধ্যমে তারা প্রমাণ করতে চাইছে যে নির্বাচনে কারচুপি হয়েছে, যা পরিসংখ্যান মোতাবেক একেবারেই অসম্ভব। আওয়ামী লীগ বিএনপি থেকে প্রায় ৪ কোটি ৯০ লক্ষ বেশি ভোট পেয়েছে। এতো বড় ব্যবধানের জয় কখনোই কারচুপির মাধ্যমে আদায় করা সম্ভব না। তারা বলছে ভয় ভীতির কথা, কিন্তু যদি আমরা ধরেও নেই আওয়ামী লীগের বাইরের সকল ভোট বিএনপি-জামাত এর পক্ষেই যেত, তাহলেও ২ কোটি ২০ লক্ষ ভোটের ব্যবধান থাকতো বিএনপি আর আওয়ামী লীগের মধ্যে।

তারপরেও আমাদের সুশীল সমাজের প্রতিনিধিরা কেউ কেউ বিএনপির এই আন্তর্জাতিক লবিং এর সাথে সমান তালে গলা মিলিয়ে নির্বাচনকে প্রশ্নবিদ্ধ করতে চাইছে। তাদের অভিযোগগুলোর উত্তর দেয়ার পাশাপাশি আমি নিজেও কিছু কথা বলতে চাই।

তাদের প্রথম অভিযোগ, ভোটার সংখ্যা ছিল অত্যধিক, তার মানে ভুয়া ভোট দেয়া হয়েছে। এবার ভোট দেয়ার হার ছিল ৮০ শতাংশ, যা বাংলাদেশের গণতান্ত্রিক ইতিহাসে সর্বোচ্চ নয়। ২০০৮ সালের 'তত্ত্বাবধায়ক সরকারের' অধীনে নির্বাচনে ভোট দেয়ার হার ছিল ৮৭ শতাংশ, যা এখন পর্যন্ত রেকর্ড। সেই নির্বাচনটিতেও আওয়ামী লীগ ৪৭ শতাংশ ভোট পেয়ে ব্যাপক ব্যবধানে জয় পেয়েছিলো। ২০০১ সালে ভোট দেয়ার হার ছিল ৭৫.৬ শতাংশ আর ১৯৯৬ সালে ছিল ৭৫ শতাংশ। ওই দুইটি নির্বাচনের তুলনায় এবার ভোট দেয়ার হার সামান্য বেশি ছিল কারণ এক দশকে এটাই ছিল প্রথম অংশগ্রহণমূলক জাতীয় নির্বাচন।


দ্বিতীয় অপপ্রচার হচ্ছে আওয়ামী লীগ নাকি এবার ৯০ শতাংশ ভোট পেয়েছে। এই কথাটি পুরোপুরি মিথ্যা। আওয়ামী লীগ ভোট পেয়েছে ৭২ শতাংশ। মহাজোটের অন্যান্য শরিকরা পেয়েছে ৫ শতাংশের কম ভোট। এই ৭২ শতাংশও আওয়ামী লীগের এর জন্য সর্বোচ্চ না। কারণ ১৯৭৩ সালের নির্বাচনে আওয়ামী লীগ পেয়েছিলো ৭৩.২ শতাংশ ভোট। সেইবার যেমন স্বাধীনতা ও মুক্তি সংগ্রামে নেতৃত্ব দেয়ার কারণে আওয়ামী লীগ বিশাল বিজয় পেয়েছিলো, এবারের নির্বাচনেও আওয়ামী লীগের ভোট বাড়ার পেছনে আছে দুইটি সুনির্দিষ্ট কারণ।

প্রথম কারণটি খুবই পরিষ্কার। আওয়ামী লীগ আমলে মানুষের জীবনমানের উন্নতি হয়েছে যেকোনো সময়ের থেকে বেশি। আমরা নিম্ন মধ্যম আয়ের দেশ হয়েছি, মাথাপিছু আয় প্রায় তিনগুণ বেড়েছে, দারিদ্রের হার অর্ধেক করা হয়েছে, মোটামুটি সবাই এখন শিক্ষার সুযোগ, স্বাস্থ্যসেবা ও বিদ্যুতের সুবিধা পাচ্ছে ইত্যাদি। বাংলাদেশের মানুষের জন্য যে উন্নয়ন আওয়ামী লীগ সরকার করেছে তা এখন দৃশ্যমান।

আমাদের সুশীল সমাজ সবসময়ই বলার চেষ্টা করে বাংলাদেশের ভোটাররা নাকি পরিবর্তন চায়। এইসব ঢালাও কথাবার্তা, যার কোনো বৈজ্ঞানিক ভিত্তি নেই।এ থেকেই বুঝা যায় আসলে তারা কতটা জনসম্পৃক্ততাহীন। আপনি যদি একজন সাধারণ মানুষ হন, এমনকি ধনী ব্যবসায়ীও হন, আওয়ামী লীগ সরকারের আমলে বাংলাদেশের অর্থনীতি যেই হারে বৃদ্ধি পাচ্ছে, তার সুফল আপনিও পাচ্ছেন। কেউ কেন এমন একটি সরকারের বিরুদ্ধে ভোট দিতে চাইবে যাদের আমলে তার জীবন বা ব্যবসার উন্নতি ঘটেছে?

দ্বিতীয় কারণ হচ্ছে আমাদের নির্বাচনী প্রচার কিন্তু গত বছর শুরু হয়নি। আমরা ২০১৪ সালের নির্বাচনের পর থেকে আমাদের প্রচারণা শুরু করে দিয়েছিলাম। জনগণের কাছে আমাদের উন্নয়নের বার্তা পৌঁছে দেয়ার কোনো সুযোগই হাতছাড়া করিনি। আমরা তাদেরকে বুঝিয়েছি যা উন্নয়ন ও অগ্রগতি হচ্ছে তা আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় থাকার কারণেই হচ্ছে। অর্থনৈতিক ও সামাজিক যত উন্নয়ন দেখা যাচ্ছে তার পেছনে আছে আমাদের দলের ভিশন, পৰিকল্পনা, বাস্তবায়ন ও পরিশ্রম। যার কৃতিত্ব আমাদের দলীয় মন্ত্রী, সাংসদ, কাউন্সিলর সহ সকলের। যখন আমাদের বিরোধী পক্ষ ও সুশীল সমাজ ব্যস্ত ছিল সমস্যা ও নালিশ নিয়ে, আমরা ব্যস্ত ছিলাম জনগণকে সমস্যার সমাধান দিতে।

সুশীল সমাজের একটি বড় অপপ্রচার হচ্ছে নতুন ভোটাররা রাজনৈতিক দল নিয়ে মাথা ঘামায় না ও তাদের বেশিরভাগই নাকি পরিবর্তন চায়। তারা বুঝতে পারেনি যে এই নতুন ভোটাররা আমাদের আমলের উন্নয়নের মধ্যে বড় হয়েছে যা তাদের জীবনকে করেছে আরো সহজ ও উন্নত। তারা কেন আমাদের ভোট দিবে না?

২০১৩ সাল থেকেই আওয়ামী লীগের জন্য আমি জনমত জরিপ করাই। আপনারা হয়তো খেয়াল করেছেন যে এবার কিন্তু সুশীল সমাজের পক্ষ থেকে কোনো জরিপ আসেনি। ২০১৪ সালের নির্বাচনের আগে কিন্তু তারা ঠিকই একের পর এক জরিপ প্রকাশ করছিলো দেখানোর জন্য আওয়ামী লীগের অবস্থা কত খারাপ। আসলে বাংলাদেশে খুব কম ব্যক্তি বা সংগঠনই সঠিকভাবে জনমত জরিপ করতে পারে। হার্ভার্ডে থাকতে আমি জনমত জরিপের উপর পড়াশুনা করি। জরিপ করতে আমরা যাদের ব্যবহার করি তাদের বাছাই করার আগে আমি নিজে একাধিক গবেষণা সংগঠনের সাথে বসে আলাপ করি। ভুয়া জরিপ করে নিজেদের জনপ্রিয়তা দেখানোর কাজ আমরা করিনা, কারণ আমাদের জন্যই সঠিক তথ্যটি পাওয়া খুবই জরুরি। আমরা জানতে চেষ্টা করি নির্বাচনী লড়াইয়ে আমাদের অবস্থান ও সক্ষমতা, তাই জরিপের ব্যাপারে আমরা খুবই সতর্ক থাকি।

নির্বাচনের দুই সপ্তাহ আগে আমাদের জরিপ থেকে আমরা জানতে পারি আওয়ামী লীগ পাবে ৫৭ থেকে ৬৩ শতাংশ ভোট আর বিএনপি পাবে ১৯ থেকে ২৫ শতাংশ ভোট। তাহলে আমরা ৭২ শতাংশ ভোট কিভাবে পেলাম? আমাদের জরিপের জন্য স্যাম্পল নেয়া হয় ৩০০ আসন থেকে, অর্থাৎ ১০ কোটি ৪০ লক্ষ নিবন্ধিত ভোটারের মধ্যে থেকে। কিন্তু ভোট দেয়ার হার কখনোই ১০০ শতাংশ হয় না আর ৩০ ডিসেম্বর নির্বাচন হয়েছিল ২৯৮ টি আসনে। ২৯৮ টি আসনে ১০ কোটি ৩৫ লক্ষ নিবন্ধিত ভোটারের মধ্যে ৮০ শতাংশ ভোট দিয়েছেন, অর্থাৎ ৮ কোটি ২৮ লক্ষ। আওয়ামী লীগ পেয়েছে প্রায় ৬ কোটি ভোট। ১০ কোটি ৩৫ লক্ষ ভোটারের মধ্যে ৬ কোটি মানে ৫৮ শতাংশ। অর্থাৎ, আমাদের জরিপের সাথে এই বিষয়টি মিলে যায়।

কিন্তু বিএনপি-ঐক্য ফ্রন্ট কেন এতো কম ভোট পেলো? কিছু যৌক্তিক কারণে। বিএনপির চেয়ারপার্সন দুর্নীতির দায়ে দণ্ডিত হয়ে জেলে আছেন। তাদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারপার্সনও দণ্ডিত আসামি, আছেন দেশের বাইরে পালিয়ে। তাদের সংগঠনের অবস্থা করুন। তার থেকেও বড় আরেকটি কারণ আছে যা আমাদের সুশীল সমাজ সহজে বলতে চায় না। যেই কারণটি বিএনপির জনপ্রিয়তায় ধসের পেছনে সবচেয়ে বড় ফ্যাক্টর বলে আমি মনে করি।

জনমত জরিপগুলো থেকে খেয়াল করেছি যে বিএনপি ২০১৩ থেকে ২০১৫ সাল পর্যন্ত যে অগ্নিসন্ত্রাস চালায় তার পর থেকেই তাদের জনপ্রিয়তায় ব্যাপক ধস নামে। পেট্রল বোমা সন্ত্রাসের আগে জরিপগুলোতে বিএনপি আওয়ামী লীগ থেকে জনপ্রিয়তায় ১০ শতাংশ পিছিয়ে থাকতো। কিন্তু রাজনীতির নামের সন্ত্রাসবাদের কারণে তাদের সাথে আওয়ামী লীগের ব্যবধান ৩০ শতাংশ হয়ে যায় আর তারপর থেকেই বাড়তেই থাকে।

এছাড়া তাদের আত্মঘাতী নির্বাচনী প্রচারণার বিষয়টিও আমাদের আমলে নিতে হবে। নির্বাচনী প্রচারণায় কমতি ছিল পরিষ্কারভাবেই। তার উপর তারা তারেক রহমানের মাধ্যমে নিজেদের মনোনয়ন প্রত্যাশীদের সাক্ষাৎকার নেয়। আর মানুষের মনে ভেসে উঠে হাওয়া ভবন আমলের দুর্নীতি ও সহিংসতার দুঃসহ সব স্মৃতি। তারেক রহমান আবার মনোনয়ন দেন একাধিক চিহ্নিত অপরাধী ও যুদ্ধাপরাধীদের। এর মাধ্যমে কি তাদের জনপ্রিয়তা বাড়বে না কমবে?

নির্বাচনের আগ মুহূর্ত পর্যন্ত তাদের সমর্থকদের তারা ইঙ্গিত দেয় যে তারা নির্বাচন থেকে সরে আসবে। আপনি যদি মনে করেন আপনার দল নির্বাচনেই আসবে না, তাহলে কি আপনি ভোট দেয়ার জন্য প্রস্তুত হবেন? এই কারণে তাদের নিজেদের সমর্থকদেরও ভোট দেয়ার হার কম ছিল যার ফলশ্রুতিতে তারা ভোট পায়ও কম।

বিএনপি-ঐক্য ফ্রন্টের বার্তাই ছিল আওয়ামী লীগ খারাপ। কিন্তু বাংলাদেশের মানুষ সেই বার্তা গ্রহণ করেনি কারণ তারা নিজেরাই দেখেছে কিভাবে আওয়ামী লীগ সরকারের আমলে তাদের জীবনমানের উন্নয়ন হয়েছে।

ঐক্য ফ্রন্টের নেতা কামাল হোসেন নিজে নির্বাচনই করেননি। কারণ উনি জানতেন উনি কোনো আসন থেকেই জিততে পারবেন না। কিন্তু তারা আমাদের কিছুটা অবাকও করেছেন। ভোটের লড়াইয়ে প্রথমবারের মতন কামাল হোসেনের নেতৃত্বাধীন গণ ফোরাম একটি নয়, দুইটি আসন থেকে জয়লাভ করে। কারচুপি যদি হতোই তাহলে যে দল আগে কোনো নির্বাচনেই কোনো আসন পায়নি তারা কিভাবে দুইটি আসনে জিতে?

সত্য আসলে বেশি জটিল না। বাংলাদেশের জনগণ, বিশেষ করে তরুণরা, দেখছে কিভাবে শেখ হাসিনার মতন একজন ডাইনামিক নেত্রী দেশকে উন্নতি ও সমৃদ্ধির পথে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে। তাই বিরোধীপক্ষের শত অপবাদ, অপপ্রচার ও কাদা ছোড়াছুড়ি কোনো কাজে আসেনি। কারণ দিন শেষে মানুষ তাকেই বেছে নেয় যে তাকে উন্নত জীবন দিতে পারবে।



DMCA.com Protection Status

এই বিভাগের সকল সংবাদ
উড়োজাহাজে যেসব খাবারকে ‘না’ স্টাইল করে চুল-দাড়ি-গোঁফ কাটায় ওসির নিষেধাজ্ঞা! ইরানে অবতরণের সময় উড়োজাহাজে আগুন গ্যাসের দাম বাড়লে তিতাসের অফিস ঘেরাওয়ের হুঁশিয়ারি জবি শিক্ষকের গাড়ি চাপায় আন্দোলনকারী দুই ছাত্রী আহত ঘূর্ণিঝড় ইডাইয়ের প্রভাবে মৃতের সংখ্যা ২শ’ আমি গুজুম-গাজুম করা লোক না: পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী উচ্ছেদ অভিযানে বাধা দিলেন ইউপি চেয়ারম্যান এরশাদের ৯০তম জন্মদিনে ৩০০ পাউন্ডের কেক 'ডিএসইসি'র উদ্যোগে ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প কাতারে ‘আয়নাবাজি’ সড়কে প্রাণহানি রোধে সরকারের ব্যর্থতা কেন অবৈধ নয়, জানতে চাইলেন হাইকোর্ট সরকারের সঙ্গে জাতীয় পার্টির সৌহার্দপূর্ণ সম্পর্ক দরকার: রাঙ্গা মিঠাপুকুরের শাপলা চত্বরে ১৪৪ ধারা জারি ঝালকাঠিতে হাত-মুখ বাঁধা যুবকের মরদেহ উদ্ধার ‘পর্ন সাইট থেকে মুক্ত হতে প্রয়োজন সামাজিক সচেতনতা’ হিলির ডলি মেমোরিয়াল স্কুলে বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা কুষ্টিয়ায় চলছে তিন দিনব্যাপী লালন স্মরণ উৎসব মজাদার মাংসের ঝাল পিঠার রেসিপি ৩৭তম বিসিএসে ১ হাজার ২২১ জনকে নিয়োগ এরশাদের জন্মদিনে গান গাইলেন রওশন ‘পাহাড়ের কোন্দলের সঙ্গে নির্বাচনের কোনো সম্পর্ক নেই’ গৃহবধূকে হত্যার অভিযোগে শাশুড়ি গ্রেফতার গুগলকে ১৪ হাজার কোটি টাকা জরিমানা বহরমপুরে গুলিতে হতাহতের ঘটনায় গ্রামবাসীর সাক্ষ্য গ্রহণ ময়মনসিংহে হত্যা মামলায় ৪ জনের মৃত্যুদণ্ডাদেশ সুনামগঞ্জে আ. লীগ নেতা হত্যায় মামলা স্টুডেন্ট টু স্টার্টআপ বশেমুরবিপ্রবিতে শেষ হলো অ্যাক্টিভেশন, বৃহস্পতিবার ‘পিচিং’ হানিফ পরিবহনের দুই বাসের সংঘর্ষে নিহত ৩ তিস্তার পানির হিস্যা দাবিতে বাসদের রোডমার্চ শুরু ফেলানী হত্যার রিটের দ্রুত নিস্পত্তি চাইলেন কিরীটি রায় জাল টাকা ও টাকা তৈরির সরঞ্জামসহ গ্রেফতার ৪ মানবতাবিরোধী অপরাধ মামলায় গ্রেফতার ৪ সিরাজগঞ্জে ট্রাক থেকে চালক-হেলপারের মরদেহ উদ্ধার রাঙ্গামাটি হামলা: কঠোর আন্দোলনের হুঁশিয়ারি দীপংকরের নেত্রকোনায় খালু ধর্ষণ করল ৪ বছরের শিশুকে দ্বিতীয় দিনে ছাত্র আন্দোলনে উত্তাল ঢাকা দামাল ঘোড়া থেকে ছিটকে পড়ল বালক, অতঃপর... প্রীতি ম্যাচে মুখোমুখি সার্বিয়া-জার্মানি সাফ নারী চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালের স্বপ্ন শেষ বাংলাদেশের ‘গ্যাসের দাম বাড়লে পোশাক প্রতিযোগিতায় পিছিয়ে পড়বে দেশ’ মাড়ি ফোলায় আরাম দেবে যা ইন্টারনেটের ক্ষতিকর দিক বর্জন করতে শিক্ষার্থীদের প্রতি আহ্বান আন্দোলন ৮ দিন স্থগিত ঘোষণা আ.লীগ রাজনৈতিকভাবে সম্পূর্ণ দেউলিয়া হয়ে গেছে: ফখরুল নিমগ্ন চিত্তে কান পাতলে ধরা দেয় ছন্দের মহিমা বাঘাইছড়ি হত্যাকাণ্ড: ২দিন পেরোলেও মামলা হয়নি মসজিদে হামলায় নিহতদের প্রতি ব্রিটিশ রাজ পরিবারের শ্রদ্ধা বিনোদন প্রকল্পে ২৩ বিলিয়ন ডলার বাজেট সৌদি আরবের ভূমধ্যসাগরে নৌকা ডুবে ১০ অভিবাসন প্রত্যাশীর মৃত্যু ইরাক থেকে পালানো দুই ভাইয়ের স্বপ্ন ফুটবলার হওয়া ক্রাইস্টচার্চে সন্ত্রাসী হামলায় দু’জনের জানাজা সম্পন্ন মিয়ানমারে আরাকান আর্মি-বিরোধী অভিযানে শিশুসহ আহত ৬ চুক্তিহীন ব্রেক্সিটের জন্য প্রস্তুতি নেয়ার আহ্বান ইইউ'র আবরারের ঘাতক চালকের ৭ দিনের রিমান্ড ‘বিজেপিকে ভোট দিয়ে ভারতীয়রা প্রতারণার শিকার হয়েছেন’ দক্ষিণ সাগরের জলসীমায় নতুন শহর গড়ার পরিকল্পনা চীনের কাশ্মীর ইস্যুতে আবারো উত্তপ্ত ভারত-পাকিস্তান ভারতে নির্মাণাধীন ভবন ধসে নিহত ৩ আবরারের আগে তরুণীকে চাপা দেয় সূপ্রভাতের চালক মেয়রের সঙ্গে দেখা করল শিক্ষার্থীদের প্রতিনিধি দল ওবায়দুল কাদেরের বাইপাস সার্জারি সম্পন্ন গোপালগঞ্জে বাসচাপায় নারী নিহত বর্ণবাদের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণার আহ্বান জাসিন্ডার ‘সড়ক দুর্ঘটনার আইন পরিবর্তন হওয়া উচিত’ মেয়েরা টয়লেটে বেশি সময় কী করে জানা যাবে প্রদর্শনীতে ‘বিশ্বনেতাদের চেয়ে নিউজিল্যান্ডবাসীর নিরাপত্তা নিশ্চিত করা প্রধান দায়িত্ব’ উচ্ছেদ কার্যক্রমে অসহযোগিতা করছে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট: বিআইডব্লিউটিএ সচিবের গাড়িতে ‘ঘুষের টাকায় লাইসেন্স হয় না?’ লিখলো আন্দোলকারী 'মাস্টারপ্ল্যান কার্যকর হলে, দখল নয় দূষণমুক্ত হবে নদী' মাংসে লবণ কম হওয়ায় বর পক্ষ-কনে পক্ষের সংঘর্ষ, আহত ২০ তনু হত্যাকাণ্ডের তিন বছর আজ কেক কেটে এরশাদের জন্মদিন উদযাপন সুপ্রভাত বাস চালকের লাইসেন্স ছিল না: মেয়র আতিকুল শ্রীলঙ্কাকে হারালো দক্ষিণ আফ্রিকা ৯ মাস বিরতির পর দলে ফিরছেন রোনালদো কাতারে শেষ প্রস্তুতি ম্যাচে যুবাদের ড্র উট থেকে পড়ে মারাত্মকভাবে আহত নায়ক অনন্ত জলিল মসজিদে হামলা লাশের স্তুপে থেকেও যেভাবে বেঁচে গিয়েছিলেন বাংলাদেশি ওমর ‘সরকার তাদের ভয় পায়’ আবরারের নামে ফুটওভার ব্রিজ নির্মাণের কাজ উদ্বোধন আবরারের মৃত্যুর ঘটনায় ৫ কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ চেয়ে হাইকোর্টে রিট উত্তরা হাউস বিল্ডিং সড়কে অবস্থান নিয়েছে শিক্ষার্থীরা হত্যার আগে তোলা মিহিরের শেষ ছবি ধানমন্ডিতে শিক্ষার্থীদের সড়ক অবরোধ জিল্লুর রহমানের মৃত্যুবার্ষিকীতে আ.লীগের শ্রদ্ধা 'একজন করে মারা যায় আর ফুটওভার ব্রিজ হয়, এটা কোন সমাধান নয়' সুন্দরগঞ্জে ট্রাক চাপায় স্কুলছাত্রী নিহত রাঙ্গামাটিতে ব্রাশফায়ার: দুদিন পার হলেও কোন মামলা হয়নি রাজশাহী রেলওয়ে এলাকায় উচ্ছেদ অভিযান সাভারে উচ্ছেদে বাধা দেওয়ায় ইউপি চেয়ারম্যান আটক যশোরে পিকআপ চাপায় স্কুলছাত্রীর পা বিচ্ছিন্ন বার্ষিক উন্নয়ন ১ লাখ ৬৫ হাজার কোটি বরাদ্দের অনুমোদন প্রগতি সরণিসহ ৫টি স্থানে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ, যান চলাচল বন্ধ ভবিষ্যতে দেশে হত দরিদ্র বলে কিছু থাকবে না: প্রধানমন্ত্রী গোপালগঞ্জে ট্রেনে কাটা পড়ে নিহত ৩ চট্টগ্রামে গুদামে ভয়াবহ আগুন, পুড়ে গেছে সব মালামাল মিরপুরে শর্টসার্কিট থেকে আগুন, স্বামী-স্ত্রীসহ দগ্ধ ৩ সড়ক অবরোধ করে আজও বিক্ষোভ শিক্ষার্থীদের ওবায়দুল কাদেরের বাইপাস সার্জারি শুরু
আরও সংবাদ...
সানাইয়ের বাগদান সম্পন্ন, বর সাবেক মন্ত্রী পড়ে আছে চার বন্ধুর মাথার খুলি আগুন থেকে যেভাবে পরিবারকে বাঁচালেন রাকিব সানাই আটক বয়ফ্রেন্ড নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি, যোগ্যতা উচ্চ মাধ্যমিক পাশ পিস্তলসহ বিমানবন্দরে প্রবেশ বিমান সচিবের বক্তব্যে ‘বিস্মিত’ ইলিয়াস কাঞ্চন যা বললেন ছাত্রলীগকে ‘ক্যাম্পাস ছাড়ার চ্যালেঞ্জ’ ভিপি নুরের পরিমাণ মতো গাঁজা সেবনে অনেক উপকার নিউজিল্যান্ডে মসজিদে হামলায় ২৭ জনের মৃত্যু নিশ্চিত, ৩শ মুসল্লি ছিল বিস্ময়কর লিনিয়ার অস্ত্রের ভয়ে পাকিস্তান-চীন গ্রেফতার হচ্ছেন সালমান মুক্তাদির? ধরতে পারেনি নিরাপত্তাকর্মীরা! এবার পিস্তল-গুলিসহ ইলিয়াস কাঞ্চনের বিমানবন্দর পার, তদন্ত কমিটি বেতন বাড়ার সম্ভাবনা সরকারি চাকরিজীবীদের চা আনতে বলে ওসির হাতে ধরা ‘এএসপি’ নিউজিল্যান্ডের মসজিদে হামলাকারীর ছবি প্রকাশ্যে ভারতে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালিয়েছে পাকিস্তান! বিদেশি সাংবাদিকদের পেটাল রোহিঙ্গারা জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় হলের কক্ষে সন্তান প্রসব, ট্র্যাংকে লুকিয়ে হাসপাতালে মা সার্জেন্ট তপুর অবিশ্বাস্য বেঁচে যাওয়া! ১৭ মিনিট লাইভ করেন হামলাকারী ব্রেন্টন হার্ট সুস্থ রাখতে ডা. দেবী শেঠির পরামর্শ স্ত্রী দোলার রোমান্টিক স্ট্যাটাসে রুবেলের কমেন্ট বন্ধ হয়ে যাচ্ছে সাজেক? সন্তানকে জড়িয়ে ধরেই পুড়ে মরলেন মা, কাঁদলেন দমকল কর্মকর্তাও বিয়ের মাস পেরোনোর আগেই বিধবা একযোগে দেশের সব সিনেমা হল বন্ধের ঘোষণা বিমানবন্দরে ইলিয়াস কাঞ্চনের ব্যাগ স্ক্যানিংয়ের ভিডিও প্রকাশ মসজিদে হামলার কিছু অদেখা ছবি ঢাবির ভিপি কে এই নুরু? এবার লন্ডনে মুসল্লির ওপর হামলা পাকিস্তানি সেনার ব্যবহারে মুগ্ধ ভারতীয় পাইলট (ভিডিও) ধর্ষককে পুড়িয়ে মারলো ধর্ষিতা ছক্কা হাঁকিয়েছেন ইমরান পরিচয় মিললো জাবি হলের সেই নবজাতকের বাবার যুদ্ধের প্রস্তুতি নিচ্ছে পাকিস্তান, খালি করা হচ্ছে হাসপাতাল: ভারতীয় পত্রিকা বিমানে অস্ত্রধারী যুবক নায়িকা শিমলার ব্যর্থ প্রেমিক পরীক্ষা ছাড়াই হাজার হাজার বেকারকে চাকরি দিচ্ছে বিটাক সালমান মুক্তাদিরের বিরুদ্ধে আইসিটি মন্ত্রীর যুদ্ধ ঘোষণা মসজিদে লাশের উপরে লাশ, মুহুর্মুহু গুলি (ভিডিও) ছবিটি ফেসবুকে কে দিয়েছে, জানতে চেয়েছেন প্রধানমন্ত্রী খাদ্যমন্ত্রীর মেয়েজামাইয়ের রহস্যজনক মৃত্যু পরকীয়ার প্রতিবাদ করায় স্ত্রীকে পেটালেন হিরো আলম ১৪ প্রেমিকা বাসায় হাজির, অজ্ঞান হয়ে কোমায় প্রেমিক! সীমান্তে গোলাবর্ষণ শুরু করেছে পাকিস্তান টেরেন্টের রাইফেলে লেখা, 'এবা হত্যার প্রতিশোধ নিতে' পাকিস্তানি খেলোয়াড়দের ভিসা না দেয়ায় ভারতকে কঠিন শাস্তি ৩ লাখ নিয়োগের সার্কুলার আসছে ১০ ঘণ্টা পর চালু হলো ফেসবুক চকবাজার অগ্নিকাণ্ডে বিএনপির সম্পর্ক খতিয়ে দেখা প্রয়োজন: তথ্যমন্ত্রী ‘নির্বাচিত নুর ছাত্রলীগ করতেন’ (ভিডিও)
আরও সংবাদ...


somoytv subscribe
সময়ের সকল ভিডিও দেখতে সাবস্ক্রাইব করুন

Contact Address

Nasir Trade Centre, Level-9,
89, Bir Uttam CR Dutta Road, Dhaka 1205, Bangladesh
Email: somoydigitalsomoynews.tv

Find us on

  Live TV DMCA.com Protection Status
উপরে