আপডেট
০৯-১১-২০১৮, ১২:১৯
বিনোদনের সময়

আর অভিনয় করতে পারবেন না প্রবীর মিত্র

pabir-mitro
বাংলা চলচ্চিত্রের প্রবীণ ও শক্তিমান অভিনেতা প্রবীর মিত্র। প্রায় চার যুগ তিনি চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন। বাংলা চলচ্চিত্রই যার ধ্যান-জ্ঞান সেই আজ আর অভিনয় করতে পারবেন না। পর্দায় আর দেখা যাবে না এই প্রবীণ অভিনেতাকে। এখন তার দিন কাটছে নিজের ঘরে বসেই। 

বছরখানেক ধরেই নিজের ভাড়া বাসায় দিন কাটছে প্রবীর মিত্রের। দুই পায়ের হাঁটুর হাড় ক্ষয় হয়ে গেছে। এ কারণে তিনি এখন আর আগের মতো হাঁটতে পারেন না। লাঠিতে ভর করে কিছুটা হাঁটার চেষ্টা করেন। চিকিৎসার মাধ্যমে পায়ের ব্যথা নিরাময় হলেও কোনোদিনই আর স্বাভাবিকভাবে হাঁটতে পারবেন না তিনি। এ কারণে আর কোনো দিন শুটিংও করতে পারবেন না।

এ বিষয়ে তিনি একটি অনলাইনকে বলেন, ‘শুটিং এখন আমার কাছে অতীত। আর কোনো দিন আমি শুটিং করতে পারব না। ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ী ওষুধ খেয়ে যাচ্ছি। এতে করে ব্যথা কিছুটা কমলেও কোনো দিনই একেবারে সেরে উঠব না। এভাবেই হয়তো কাটবে আমার বাকি জীবন।’

দুই হাঁটুর হাড় ক্ষয় হয়ে গেছে জানিয়ে প্রবীর মিত্র বলেন, ‘হাঁটুর টিস্যুগুলোও দুর্বল হয়ে গেছে। এ কারণে হাঁটতে পারি না। পা নড়াচড়া করতে কষ্ট হয়। এ ছাড়া আমার বয়সও তো হয়েছে।’

কীভাবে কাটছে দিন—জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘সকাল ১০টার দিকে ঘুম থেকে ওঠে একটু হাঁটার চেষ্টা করি। স্নান করতে করতে দুপুর। তার পর আবারও একটা ভাতঘুম। সন্ধ্যায় ড্রয়িংরুমে বসে টিভি দেখা। এভাবেই কাটছে দিন।’

সপ্তম শ্রেণিতে পড়ার সময় অভিনয় শুরু করেন প্রবীর মিত্র। এইচ আকবর পরিচালিত ‘জলছবি’ ছবিতে চিকিৎসকের চরিত্রের মধ্যে দিয়ে বাংলা চলচ্চিত্রে সূচনা হয় তার। এরপর একই পরিচালকের ‘জীবন তৃষ্ণা’ ছবিতে মূল চরিত্রে অভিনয় করেন তিনি। নায়ক চরিত্রে অভিনয় করেছে ‘তিতাস একটি নদীর নাম’, ‘চাবুক’, ‘নবাব সিরাজউদ্দৌলা’সহ বেশ কিছু চলচ্চিত্রে। প্রবীর মিত্রের স্ত্রী অজন্তা মিত্র ২০০০ সালে মারা গেছেন। প্রবীর মিত্রের এক মেয়ে ও তিন ছেলে।





DMCA.com Protection Status

এই বিভাগের সকল সংবাদ

Contact Address

Nasir Trade Centre, Level-9,
89, Bir Uttam CR Dutta Road, Dhaka 1205, Bangladesh
Email: somoydigitalsomoynews.tv

Find us on

  Live TV DMCA.com Protection Status
উপরে