আপডেট
২৫-০৮-২০১৮, ১৭:০৯

দমন-পীড়নের মধ্যেই গাজায় ফিলিস্তিনিদের বিক্ষোভ অব্যাহত

gaza-today
ইসরাইলি বাহিনীর ব্যাপক দমন-পীড়নের মধ্যেই গাজা সীমান্তে বিক্ষোভ অব্যাহত রেখেছে ফিলিস্তিনিরা। শুক্রবার (২৪ আগস্ট) জুমার নামাজের পর ইসরাইল সীমান্তে জড়ো হয়ে বিক্ষোভ শুরু করে কয়েক হাজার ফিলিস্তিনি। এ সময় তাদের লক্ষ্য করে ইহুদি বাহিনী নির্বিচারে গুলি ছুড়লে আহত হন প্রায় দুইশ' বিক্ষোভকারী। এমন উত্যপ্ত পরিস্থিতির মধ্যেই ফিলিস্তিনিদের সহায়তায় ২০ কোটি মার্কিন ডলার অর্থ বরাদ্দ বাতিলের ঘোষণা দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র।

 

ইসরাইলের সুসজ্জিত বাহিনী আর আধুনিক অস্ত্র দমিয়ে রাখতে পারছে না ফিলিস্তিনিদের। গেল ৩০ শে মার্চ থেকে শুরু হওয়া 'গ্রেট মার্চ অব রিটার্ন' শীর্ষক বিক্ষোভ আর প্রতিবাদে উত্তাল গাজার ইসরাইল সীমান্ত।

শুক্রবার জুম্মার নামাজের পর গাজা সীমান্তে জড়ো হয় হাজার হাজার ফিলিস্তিনি। টায়ারে আগুন জ্বালিয়ে ইসরাইলি দখলদারিত্বের বিরুদ্ধে স্লোগান দেন বিক্ষোভকারীরা। এসময় নিরস্ত্র ফিলিস্তিনিদের ওপর নির্বিচারে গুলি ও টিয়ারশেল নিক্ষেপ করে ইসরাইলি সেনাবাহিনী। এতে আহত হন অনেকে। প্রায় ৫ মাস ধরে চলা শান্তিপূর্ণ এ বিক্ষোভে ইসরাইলি বাহিনীর গুলিতে এ পর্যন্ত নিহত হয়েছে অন্তত ১৭০ ফিলিস্তিনি। আর আহত হয়েছেন দেড় হাজার। এদের মধ্যে ৩শ' ৬০ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানা গেছে। জাতিসংঘসহ আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংগঠনগুলো ইহুদি বাহিনীর হামলার তীব্র নিন্দা জানিয়ে আসলেও তা আমলে নিচ্ছে না ইসরাইল।

এমন পরিস্থিতির মধ্যেই ফিলিস্তিনিদের সহায়তায় অর্থ বরাদ্দ বাতিলের ঘোষণা দিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। শুক্রবার মার্কিন পররাষ্ট্র দফতরের এক কর্মকর্তা বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে জানান, ফিলিস্তিনি শরণার্থীদের জন্য গঠিত জাতিসংঘের সাহায্য সংস্থা-ইউ.এন.আর.ডব্লিউ এর ২০ কোটি মার্কিন ডলার অর্থ বরাদ্দ বাতিল করেছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। আগামী ৩০ সেপ্টেম্বরের নতুন বাজেটে ফিলিস্তিনিদের স্বাস্থ্য, শিক্ষা এবং সামাজিক উন্নয়নে বরাদ্দকৃত ২৫ কোটির বেশি মার্কিন ডলার অর্থ সহায়তা বাতিলের পরিকল্পনা রয়েছে। অন্যদিকে, ইসরাইলের সামরিক খাতে প্রতিবছর ৩শ' কোটির বেশি মার্কিন ডলার অর্থ সহায়তা দিয়ে আসলেও নতুন বাজেটে এর পরিমাণ বাড়ানোর ঘোষণা দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। ফিলিস্তিনিদের সহায়তায় যুক্তরাষ্ট্র অর্থ বরাদ্দ বন্ধ করে দেয়ায় গাজার ২০ লাখ মানুষ দুর্ভিক্ষের মুখে পড়তে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছে জাতিসংঘ।

জাতিসংঘ রিলিফ অ্যান্ড ওয়ার্ক এজেন্সির কমিশনার পিয়েরে ক্রেহেনবুল বলেন, যুক্তরাষ্ট্র অর্থ বরাদ্দ কমিয়ে দেয়ায় গেল দুই বছর ধরে ফিলিস্তিনিদের সহায়তা দেয়া আমাদের জন্য চ্যালেঞ্জিং হয়ে পড়েছে। আগামী বছরগুলোতে তাদের সহায়তা দেয়া আরো কঠিন হয়ে পড়বে।


এদিকে, পশ্চিম তীরে নতুন করে কয়েক হাজার বসতি নির্মাণের অনুমোদন দেয়ায় ইসরাইল সরকারের তীব্র নিন্দা জানিয়েছে যুক্তরাজ্য ও ইউরোপীয় ইউনিয়ন। এক বিবৃতিতে মধ্যপ্রাচ্য বিষয়ক ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আন্তর্জাতিক আইন লঙ্ঘন করে তেল আবিবের এ ধরনের পদক্ষেপ ইসরাইলি-ফিলিস্তিন সঙ্কট আরো জটিল করে তুলবে।

 




DMCA.com Protection Status

এই বিভাগের সকল সংবাদ

Contact Address

Nasir Trade Centre, Level-9,
89, Bir Uttam CR Dutta Road, Dhaka 1205, Bangladesh
Email: somoydigitalsomoynews.tv

Find us on

  Live TV DMCA.com Protection Status
উপরে