মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
আপডেট
১৫-০৮-২০১৮, ১২:৫১

‘মহিউদ্দিনের স্ত্রী চিৎকার করে বলেছিলেন, বঙ্গবন্ধু আর নেই’

gaffar-15aug
‘আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙানো একুশে ফেব্রুয়ারি’ গানের রচয়িতা সাংবাদিক-কলামিস্ট আবদুল গাফফার চৌধুরী বর্তমানে লন্ডনে অবস্থান করছেন। বুধবার (১৫ আগস্ট) জাতীয় শোক দিবসে বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডের বিষয় নিয়ে সময়নিউজের সঙ্গে কথা বলেছেন গাফ্ফার চৌধুরী। সাক্ষাতকারটি নিয়েছেন আমাদের যুক্তরাজ্য প্রতিনিধি সোয়ের কবীর ।  
   



সময়নিউজ: বঙ্গবন্ধুকে যে হত্যা করা হল, এই মেসেজটা আপনি কীভাবে পেলেন? সেই দিনটার কথা একটু বলুন।

গাফ্ফার চৌধুরী: ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্টে আমি লন্ডনে ছিলাম। আমার স্ত্রীর চিকিৎসার জন্য ওই বছরের অক্টোবর মাসে লন্ডনে আসি। মাঝে মাঝে বাংলাদেশে যেতাম, বঙ্গবন্ধুর সঙ্গে দেখা করতাম। তিনি তখন বাকশাল গঠন করার জন্য ব্যস্ত। আমি যখন শেষবার তাকে দেখি ১৯৭৫ সালের জুন মাসে। তখন জেলা গভর্নরদেরকে ট্রেনিং দিচ্ছিলেন। আবার নতুন করে গভর্নমেন্ট (সরকার) হবে। আর তখনই আমি দেখে আসছিলাম, বাংলাদেশে একটি ষড়যন্ত্রমূলক আবহাওয়া কাজ করছে। যেখানে যাই সেখানেই বলে একটা রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ হবে। খুবই গভীর ষড়যন্ত্র। বঙ্গবন্ধু জানতেন কিনা জানি না। আমি তাকে (বঙ্গবন্ধু) সতর্ক করেছিলাম। কিন্তু বিশ্বাস করতে পারতেন না, বাঙালি তাকে হত্যা করতে পারে। এরপর জুন মাসেই আমি লন্ডন চলে আসি। আগস্ট মাসে এক ভোরবেলা ঘুম থেকে উঠেছি তখন আমি এই বাড়িতে (যে বাড়িতে বসে সাক্ষাৎকার দিয়েছেন) থাকতাম। এই বাড়িটা তখন ছিল বাংলাদেশ হাইকমিশনারের প্রেস সচিব মহিউদ্দিনের। তিনি আমার বন্ধু। সম্প্রতি তিনি মারা গেছেন। তার স্ত্রী ভোরবেলা চিৎকার করে বলেছিলেন যে, বঙ্গবন্ধু আর নেই।

তাড়াতাড়ি ঘুম থেকে উঠেছি, রেডিও ধরেছি এবং তাই শুনেছি। শেষরাতে বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করা হয়েছে। কিন্তু তার পরিবারের কি হয়েছে তখন তা বলা হয়নি। বাংলাদেশ হাইকমিশনে তখন সুলতান সাহেব রাষ্ট্রদূত, আমার বন্ধু ফারুক আহমেদ চৌধুরী উপ-রাষ্ট্রদূত এবং আমার আরেক বন্ধু যায়যায় দিনের শফিক রেহমান আমার বাসায় এসেছেন। তাদেরকে সঙ্গে নিয়ে ঢাকার হাইকমিশন লন্ডনে যাই। গিয়ে দেখি সেই বিধ্বস্ত। সেইখানে এক অফিসারকে মারধর করা হয়েছে। বঙ্গবন্ধুর ছবি ভেঙে ফেলা হয়েছে। ওইখানে বসে আবার শুনলাম বঙ্গবন্ধু নেই এবং পরিবারের কী হয়েছে, সেটা জানতে চেষ্টা করা হচ্ছে। তারপর দিন শেষে জানা গেল ওই পরিবারের কেউ নেই। তার ছেলে, ছেলের বউ, পত্মী, আত্মীয় স্বজন, শেখ ফজলুল হক মণি, তার স্ত্রী সকলকে হত্যা করা হয়েছে।

এই খবর পেয়ে অন্ধকারে বাতির মতো দুই সন্তান বেঁছে আছে। শেখ হাসিনা ও শেখ রেহানা। তারা তখন ছুটি উপলক্ষে জার্মানিতে ছিলেন। আর সম্ভবত সেইদিন তারা ব্রাসেলস ছিলেন। ভাবলাম, এরাই সম্বল এদেরকে যেন হত্যা না করা হয়। ১৫ ও ১৬ আগস্ট বিষাদ ও অত্যন্ত শোকে কেটেছে। এবং তখনি আমার মাথায় চিন্তা এসেছে, বাংলাদেশে যে পাকিস্তানি ষড়যন্ত্র শুরু হয়েছে, এটা ব্যর্থ করার জন্য আমাদের কি করা উচিত।

সময়নিউজ: ১৫ আগস্ট আসলে আপনার কেমন...


গাফ্ফার চৌধুরী: ১৫ আগস্ট এলে খুব শোক হয়। কারণ, বঙ্গবন্ধুর সঙ্গে আমর ব্যক্তিগত সম্পর্ক ছিল। আমাকে তিনি অনেক সাহায্য করেছিলেন। আমার স্ত্রীর চিকিৎসার জন্য নানাভাবে সাহায্য করেছিলেন। তার চেয়ে বড় কথা হলো ১৯৪৮ সালে উনি যখন ছাত্রলীগের নেতা, তখন থেকে তার সঙ্গে আমার পরিচয়।  সেই সঙ্গে তার আইডিওলজি (মতাদর্শ) বিশ্বাস করতাম। ছয় দফা আন্দোলনে সমর্থন করেছিলাম এবং সরকারের রোষাণলে পড়েছিলাম।

স্বাধীনতা আন্দোলনে দেশ ত্যাগ করে মুজিবনগরে চলে গেছি, বঙ্গবন্ধুর প্রতি আমার চরম আনুগত্য ছিল আদর্শগত ও ব্যক্তিগত।  ফলে ১৫ আগস্ট এলে অনেকটাই পিতৃ শোকের মতো শোক আসতো। এই জন্য শেখ হাসিনা এবং তার আন্দোলনে যুক্ত হয়েছি, সমর্থন দিয়েছি। শেখ হাসিনা প্রধানমন্ত্রী হওয়ার পর এই শোক অনেকটা কেটে গেছে। এখনো আছে, তবে আওয়ামী লীগ আবার ক্ষমতায় আসায় এবং তার কন্যা প্রধানমন্ত্রী হওয়ায় অনেকটা সান্ত্বনা পাচ্ছি।

সময়নিউজ: বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনাকে কীভাবে মূল্যায়ন করছেন?

গাফ্ফার চৌধুরী: খুবই ভালোভাবে মূল্যায়ন করেছি। কেননা রাজনীতিতে তিনি গোড়া থেকে যুক্ত ছিলেন। বঙ্গবন্ধু বেঁচে থাকা অবস্থায় শেখ হাসিনা ইডেন কলেজে ভাইস প্রেসিডেন্ট হয়েছিলেন। বিভিন্ন আন্দোলনসহ..., ভাষা আন্দোলনে নয়, এরপরের আন্দোলনে শরিক হয়েছেন। এমনকি তিনি কলেজে পড়ার সময় কলেজের ভাইস প্রেসিডেন্ট হন ছাত্র ইউনিয়নের এবং একটি শহীদ মিনার নির্মাণ করেন। সেই কলেজের প্রিন্সিপাল ওই শহীদ মিনার নির্মাণ করার জন্য তার কক্ষে নিয়ে তাকে ৩-৪ ঘণ্টা বন্দী করে রেখে দিয়েছেন। পরদিন তিনি আবারও শহীদ মিনার তৈরি করেন। এতে আমার মনে হয়েছিল বঙ্গবন্ধুর যে সাহস এবং রাজনৈতিক চিন্তা সেটা তার কন্যার (শেখ হাসিনা) মধ্যে বর্তমান। তার ছেলে ও পরিবারকে হত্যা করে খুনিরা যা ভেবেছিল, সেটা হবে না। জার্মানি থেকে তিনি দিল্লী যান, দিল্লী থেকে ঢাকা আসেন। তখন তাকে অভ্যর্থনা দেওয়ার জন্য বিমানবন্দরে ১০ লাখ (লোক) সমবেত হয়েছিল। আর তখনই আমার মনে হয়েছিল বঙ্গবন্ধুর হত্যার একটা প্রতিকার হবে এবং হত্যাকারীদের বিচার হবে। বাংলাদেশে আবার বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের বাংলাদেশ গড়ার প্রচেষ্টা শুরু হবে।

সময়নিউজ: বঙ্গবন্ধুর সঙ্গে কোন স্মৃতি মনে দাগ কাটে?

গাফ্ফার চৌধুরী: ১৯৫৫ সালে রাষ্ট্রভাষা আন্দোলনে আমি জেলে ছিলাম। শতাধিক ছাত্র-ছাত্রী ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে ছিলাম। বঙ্গবন্ধুও ওই জেলে বন্দী ছিলেন। সেই সময় আমাদের সঙ্গে ক্লাস ফাইভের একটি ছেলে জেলে গিয়েছিল। জেলে তখন খাদ্যের মান এত নিচু স্তরের ছিল। ওটা খেয়ে বেঁচে থাকা যায় না। ওই ছেলেটি খাবার খেতে পারত না, আর কাঁদতো। পরে বঙ্গবন্ধু তা জানতে পারেন। তখন বাসা থেকে বঙ্গবন্ধুর যে খাবারটা আসতো, বঙ্গবন্ধু সেই খাবারের কিছু অংশ খেয়ে বাকিটা ওই ছেলের জন্য পাঠিয়ে দিতেন। আমরা যতদিন..., প্রায় আমরা একমাস জেলে ছিলাম, ততদিন তিনি খাবার পাঠিয়ে ছিলেন।

এই রকম মহানুভবতা আমি আরো অনেক দেখেছি। কিন্তু, এই স্মৃতিটা আমার মনে সবচেয়ে বেশি দাগ কেটেছে এবং এখনও মনে রেখেছি। বঙ্গবন্ধুর প্রতি আমার ব্যক্তিগতভাবে অনেক আনুগত্য ছিল।'




DMCA.com Protection Status

এই বিভাগের সকল সংবাদ
বাংলাদেশের ছবিতে সানি লিওন, হিরো আলমের ক্ষোভ (ভিডিও) বাগেরহাটে নিখোঁজের ২ দিন পর শিশুর মরদেহ উদ্ধার জামালপুরের সেই ডিসির আরেক ভিডিও ভাইরাল ইজিবাইকে চার্জ দিতে গিয়ে প্রাণ গেল যুবকের বিরলে গৃহবধূ ধর্ষণের ঘটনা ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টা বাগদানের ৬ মাসেই ভাঙলো নায়ক-নায়িকার বিয়ে ‘এটা আমার প্রশাসনিক ব্যর্থতা’ কলেজের শহীদ মিনার ভেঙে বাবার ম্যুরাল বানালেন এমপি কাশ্মীরের বাস্তব অবস্থা বোঝা যাচ্ছে এই নারীর কথায় (ভিডিও) নবাবগঞ্জে সাপের কামড়ে শিক্ষার্থীর মৃত্যু শ্রীলঙ্কাকে ৭-১ গোলে উড়িয়ে বাংলাদেশের জয় নেত্রকোনায় পুরনো টায়ারে এডিস মশা, জরিমানা মাদারীপুরে বাসচাপায় ভ্যানের দুই যাত্রী নিহত অধ্যাপক মোজাফফর আহমেদের দাফন সম্পন্ন রাজধানীর সব ভবনেই মিলছে এডিসের লার্ভা গভীর রাতে জামালপুর ছাড়লেন ডিসি তালা না ভেঙে ১০ সেকেন্ডে চুরি, ১১ সদস্য গ্রেফতার ডেঙ্গু আক্রান্তের সংখ্যা কমছে বিভিন্ন এলাকায় কাবিননামায় কুমারীর পরিবর্তে লিখতে হবে অবিবাহিত: হাইকোর্ট উখিয়ার কুতুপালংয়ে রোহিঙ্গাদের সমাবেশ রাষ্ট্রায়ত্ত্ব ৪ ব্যাংকে সব ধরনের পুনঃঅর্থায়ন বন্ধ এবার বড় পর্দায় আসছে বালাকোট হামলা কিসে মুক্তি খালেদা জিয়ার, তর্ক-বিতর্কে আইনজীবীরা পঁচাত্তরের প্রতিরোধ যোদ্ধা অসিত সরকার সজল রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে যুক্তরাষ্ট্রের আহবান বিপিএলের সপ্তম আসরেও থাকছে সিলেট সিক্সার্স ফ্রান্সে জি-সেভেন সম্মেলন শুরু ব্রাজিলের অ্যামাজন বনাঞ্চল জ্বলছে বলিভিয়ার পূর্বাঞ্চলীয় দাবানল এখনও নিয়ন্ত্রণে আসেনি যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করল ইরান সিরিয়ায় ইরানের ক্ষেপনাস্ত্র হামলার দাবি ইসরাইলের আরবের বেসামরিক সম্মাননায় ভূষিত হলেন নরেন্দ্র মোদি রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় ভারতের সাবেক অর্থমন্ত্রীর অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া সম্পন্ন ‘যুক্তরাষ্ট্রকে ব্রিটিশ প্রতিষ্ঠানের ওপর নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করতে হবে’ জামালপুরের ডিসির শুদ্ধাচার সনদ কেড়ে নেয়া হচ্ছে ডেনমার্ক প্রধানমন্ত্রীর প্রশংসা করলেন ট্রাম্প হংকংয়ে সরকার বিরোধী বিক্ষোভ চলাকালে গ্রেফতার ২৯ সচেতনতা শব্দটাই অধরা ঢাকায় মাহী বি চৌধুরীকে দুদকের জিজ্ঞাসাবাদ পাশ্চাত্যের অনুকরণে বেশিরভাগ রেস্টুরেন্ট ডিসি পরিবর্তন আরো দুই জেলায় সাবেক কারা মহাপরিদর্শককে দুদকের জিজ্ঞাসাবাদ আসছে শীতে আন্দোলনে নামার হুঁশিয়ারি বিএনপির প্রবাসী শ্রমিকদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে চায় সরকার : প্রধানমন্ত্রী রিয়াল বেতিসের সঙ্গে ম্যাচে ফিরতে পারেন মেসি শ্রীলঙ্কাকে বিপক্ষে বাংলাদেশের কিশোরদের দুর্দান্ত জয় দীর্ঘসময় নেটে ঘাম ঝরালেন সাকিব প্রথমবারের মত ফিফার রেফারির খাতায় দেশের দুই নারী অসাবধানতায় প্রাণ হারালেন নির্মাণ শ্রমিক মনির গাইবান্ধায় পোকামাকড় খাওয়া নবজাতকের লাশ উদ্ধার ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ২৬০ রানে এগিয়ে ভারত মেসিডোনিয়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় বাংলাদেশি নিহত অজিদের বোলারদের ভালোই জবাব দিচ্ছে ইংলিশরা ফৌজদারি অপরাধ করেছে গ্রামীণ ফোন: হাইকোর্ট পাখি মারতে গিয়ে দু'দিন পর লাশ হয়ে ফিরলো স্যামুয়েল কক্সবাজারে ১১ লাখ রোহিঙ্গার আশ্রয়, বাড়ছে সংঘাতের আশঙ্কা ভিডিও ইস্যুর পর জামালপুরে নতুন ডিসি নিয়োগের প্রজ্ঞাপন কাবিননামায় কুমারী শব্দ ব্যবহার করা যাবে না: হাইকোর্ট মাদারীপুরে বাসের ধাক্কায় ভ্যানের ২ যাত্রী নিহত প্রেমিক 'গরীব', পরিবার না মানায় স্ট্যাটাস দিয়ে মারিয়া'র আত্মহত্যা আর্সেনালকে হারিয়ে টেবিলের শীর্ষে লিভারপুল ৭২ ঘণ্টায় মিলবে ১০ বছর মেয়াদি পাসপোর্ট বিপর্যস্ত কাশ্মীরের অর্থনীতি পূর্বাচলে ১০ কাঠার প্লট চাইলেন বিএনপির রুমিন চীন-যুক্তরাষ্ট্রের পাল্টাপাল্টি শুল্কারোপ গৃহকর্মী টুনির বাড়িতে মাশরাফির পুরো পরিবার চামড়ার দাম নেই, বিপাকে ক্ষুদ্র-মৌসুমি ব্যবসায়ীরা বিকল্প সামগ্রীর বাড়ি বানাতে আসছে নীতিমালা মিয়ানমার রোহিঙ্গাদের সমস্যার সমাধান করেনি বলেই বাধাগ্রস্ত প্রত্যাবাসন মশা-আবর্জনার অভয়ারণ্য গাইবান্ধা সদর হাসপাতাল সাগরে ইলিশ ধরা পড়লেও মেঘনা-তেতুঁলিয়ায় চিত্র ভিন্ন ধর্ষণে বাধা দেয়ায় ছুরিকাঘাতে মামার মৃত্যু, গণপিটুনিতে 'ধর্ষক' নিহত ঢাকায় নেয়ার পথেই ডেঙ্গু আক্রান্ত সুমির মৃত্যু 'স্টার বন্ড' কিশোর গ্যাংয়ের ১৭ সদস্য আটক জন্মাষ্টমীর অনুষ্ঠান শেষে রাস্তা থেকে ধরে নিয়ে ধর্ষণের ঘটনায় মামলা বাংলাদেশের পাশে দাঁড়ানো উচিত: ট্রাম্প প্রশাসন ধর্ষণের শিকার ৬ বছরের শিশু নওগাঁয় দাদন ব্যবসা বন্ধের দাবিতে মানববন্ধন অপহরণের দুই দিন পর স্কুলছাত্রীকে উদ্ধার সুনাম বাড়তে পারে বৃষের, সাবধান সিংহ অ্যামাজন নিয়ে উদ্বিগ্ন বিশ্ব নেতারা প্রতিদিনই পাক-ভারত সেনাবাহিনীর মধ্যে গোলাগুলি হচ্ছে ওএসডি করা হচ্ছে জামালপুরে সেই ডিসিকে শেষ টেস্টে সুবিধাজনক অবস্থানে নিউজিল্যান্ড বিশ্বকাপ বাছাই পর্বের প্রস্তুতি শুরু অবশেষে প্রথম ইজিএম'র সিদ্ধান্ত নিল বাফুফে তৃতীয় ম্যাচে জয় পেলো চেলসি রোববার ম্যানচেস্টারের মুখোমুখি হবে বোর্নমাউথ গ্র্যান্ডস্লাম টুর্নামেন্ট ইউএস ওপেন সোমবার শুরু আইভি রহমানের স্মরণে মিলাদে প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশ শর্ট ফিল্ম ফোরামের ৩৩ বছর পূর্তি উদযাপন নানা সমস্যায় জর্জিত নেত্রকোনা আধুনিক হাসপাতাল ঝালকাঠিতে ৭দিন ব্যাপী ফলদ ও বৃক্ষ মেলা শুরু গাজীপুরে পোশাক কারখানায় আগুন দিনাজপুরে ইয়াসিন ট্র্যাজেডি দিবসে মানববন্ধন পালিত মেগা প্রকল্প, মেগা দুর্নীতি: অলি ঈদের ছুটিতে সড়কে ঝরেছে ১৮৫ প্রাণ সিরাজগঞ্জে দুপক্ষের সংঘর্ষে নিহত ১ নিরাপদ খাদ্য সরবরাহে ব্যতিক্রমী উদ্যোগ নিলো একটি রেস্টুরেন্ট ডার্ক চকলেটের যতো গুণ
আরও সংবাদ...
আদালতের এক প্রশ্নে ‘চুপ’ হয়ে যান মিন্নি এরশাদ মারা গেছেন ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত নয়ন বন্ড ৫০০ মশা জমা দিলে ১০০ টাকা! জরিমানা গুনলেন জেসন রয় কুমিল্লায় হাসতে হাসতে অজ্ঞান ২৫ শিক্ষার্থী বরগুনায় কিলিং মিশনের মূল ভূমিকায় ছিল রিফাত ফরাজি (ভিডিও) স্কুল পরিদর্শনে এসে ‘ছেলেধরা’ গুজবের শিকার শিক্ষা কর্মকর্তা রিফাত ফরাজী গ্রেফতার 'শিশুর মাথা ব্যাগে রাখা সেই রবিন ছেলেধরা নয়' ফাঁসির আগে আসিফের শেষ সেলফি! ছোট্ট তুবাকে পুলিশ কর্মকর্তার আবেগঘন খোলা চিঠি বাংলাদেশের বিরুদ্ধে ট্রাম্পের কাছে ভয়ঙ্কর মিথ্যাচার (ভিডিও) ভুলেও গুগলে সার্চ করবেন না যা দ্বিতীয় রানারআপের খবর ভুয়া: নোবেল পাকিস্তানের বিপক্ষে খেলে বিদায় নিচ্ছেন মাশরাফি! ব্যারিস্টার সুমনের বিরুদ্ধে মামলা মিন্নি গ্রেফতার বাংলাদেশ থেকে যাওয়া রোহিঙ্গার প্রশ্নে ‘অবাক’ উত্তর ট্রাম্পের (ভিডিও) পাবনায় শিশুর মাথাবিহীন দেহ উদ্ধার হৃদয় গ্রেফতার ১৫৫ সিসির নতুন জিক্সার বাইক আনছে সুজুকি প্রিয়া সাহার বিরুদ্ধে করা ব্যারিস্টার সুমনের মামলা খারিজ ট্রেনের ধাক্কায় নিহত ছেলেকে দেখে বাবার মৃত্যু দ্রুত গতির বাউন্সারের আঘাতে মৃত্যু ক্রিকেটার জাহাঙ্গীরের ভারতের হারে কাশ্মীরে উৎসব (ভিডিও) বিদায় বললেন রাজা, আইসিসির সামনে রেখে গেলেন কয়েকটি প্রশ্ন ‘মাথায় আঘাত করে অচেতনের পর সায়মাকে ধর্ষণ ও হত্যা করে হারুন’ নতুন নিয়মে খুলতে হবে ফেসবুক অ্যাকাউন্ট সরকারি কর্মকর্তারা সরল বিশ্বাসে দুর্নীতি করলে সেটা অপরাধ নয়: দুদক চেয়ারম্যান ব্যারিস্টার সুমনের বিরুদ্ধে পাল্টা মামলার প্রস্তুতি রোহিত-কোহলি দ্বন্দ্বে দুই ভাগ ভারতীয় দল থানায় নারী পুলিশের নাচ ভাইরাল, চাকরিচ্যুত (ভিডিও) জাহান্নামের ভয় দেখিয়ে ১১ ছাত্রীকে ধর্ষণ! ‘রিফাত হত্যার মূল পরিকল্পনাকারীদের একজন মিন্নি’ বিশ্বকাপ খেলতে ইংল্যান্ড পৌঁছেছেন এমপিরা ঢাকায় এত আধুনিক চোর! (ভিডিও) ইংল্যান্ড-অস্ট্রেলিয়ায় বাংলাদেশের খেলা নিয়ে নতুন করে ভাববে আইসিসি ‘পদ্মা সেতুতে মানুষের মাথা লাগার খবর গুজব’ মোবাইল চার্জ দেওয়া নিয়ে ৫ ভুল ধারণা ‘ট্রাম্পের কাছে প্রিয়া সাহার অভিযোগ সঠিক নয়’ বিশ্বকাপে বিপর্যয়, ভারতীয় দল ছাড়লেন দুজন ২০৩০ বিশ্বকাপের যৌথ আয়োজক চার দেশ প্রিয়া সাহা ইজ নট ইকুয়াল টু বাংলাদেশ ‘অ্যানাবেল কামস হোম’ ভূতের ছবি দেখে সিনেমা হলেই মৃত্যু! ভারতের পরিবর্তে বাংলাদেশে হতে পারে পরবর্তী বিশ্বকাপ চিলিকে হারানোর ম্যাচে লাল কার্ড পেলেন মেসি ধর্ষণ শেষে গলায় রশি পেঁচিয়ে হত্যা করা হয় শিশু সায়মাকে সুবিধা অর্জনের চেষ্টায় মরিয়া প্রিয়া সাহা ভারতে রানের পাহাড় গড়ে ইনিংস ঘোষণা মুমিনুলদের
আরও সংবাদ...


somoytv subscribe
সময়ের সকল ভিডিও দেখতে সাবস্ক্রাইব করুন

Contact Address

Nasir Trade Centre, Level-9,
89, Bir Uttam CR Dutta Road, Dhaka 1205, Bangladesh
Email: somoydigitalsomoynews.tv

Find us on

  Live TV DMCA.com Protection Status
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
উপরে