আপডেট
১২-০৭-২০১৮, ০০:১৮
খেলার সময়

ঘুরে দাঁড়ানোর প্রত্যাশায় আজ মাঠে নামছে টাইগাররা

2nd-test-pre
জ্যামাইকার স্যাবাইনা পার্কে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সিরিজের দ্বিতীয় ও শেষ টেস্টে মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ। নিজের জন্মভূমিতে শিষ্যদের ঘুরে দাঁড়ানোর প্রত্যাশা বোলিং কোচ কোর্টনি ওয়ালশের। বলেছেন, অ্যান্টিগার মত স্যাবাইনা পার্কেও হবে বাউন্সি উইকেট। তাই টাইগারদের জন্য অপেক্ষা করছে আরও বড় চ্যালেঞ্জ। তবে বাংলাদেশের জন্য কিছুটা সুখবর, ইনজুরির কারণে দ্বিতীয় টেস্টে খেলতে পারছেন প্রথম টেস্টে ভয়ঙ্কর হয়ে ওঠা পেসার কেমার রোচ। ম্যাচটি শুরু হবে বাংলাদেশ সময় বৃহস্পতিবার রাত ৯ টায়।

 

অ্যান্টিগার নর্থ সাউন্ড থেকে জ্যামাইকার স্যাবাইনা পার্কের দূরত্ব প্রায় দু'হাজার কিলোমিটার। এভাবে না ভাবলেও চলে। বলা যায় এক দ্বীপ থেকে আরেক দ্বীপ।

টাইগাররা এখন বোলিং গুরু কোর্টনি ওয়ালশের জন্মভূমিতে। ক্যারিয়ারের শেষ টেস্টটাও এখানে খেলেছেন উইকেটের পাহাড়ে ওঠা ক্যারিবিয়ান কিংবদন্তি। গুরুর স্মৃতি বিজড়িত মাটিতে রোমাঞ্চিত হওয়ার সুযোগ কই? উল্টো চাপ মাথায় নিয়ে মাঠে নামতে হচ্ছে টাইগারদের।

প্রথম টেস্টে ইনিংস ও ২১৯ রানে হারায় ব্যাকফুটে থাকাটাই স্বাভাবিক। ম্যাচের আগে ওয়ালশ বলেছেন, ভেন্যু পরিবর্তন হলেও উইকেটের চরিত্রে আসবে না তেমন কোনো পরিবর্তন। তাই চ্যালেঞ্জ আগের মতোই। তবে নিজের ঘরের মাঠে শিষ্যদের কাছে ঘুরে দাঁড়ানোর আশা ওয়ালশের।

বাংলাদেশের বোলিং কোচ কোর্টনি ওয়ালশ বলেন, আমার মনে হয়, উইকেট হবে অ্যান্টিগার মতোই। ওয়েস্ট ইন্ডিজের জন্য এমন উইকেট কার্যকর হয়েছে। সবুজ ঘাসের উইকেট। সাথে বাউন্স আছে। এখন মনে হচ্ছে, আমি দ্রুত অবসর নিয়ে ফেলেছি। জন্মভূমিতে ফিরে ভালো লাগছে। আশা করছি, আমরা এখানে বাংলাদেশ ভালো কিছু করবে।


এমন বাউন্সি উইকেটে যদি নিজের ক্যারিয়ারটা আরো লম্বা করতে পারতেন। এমন আক্ষেপ ওয়ালশের কণ্ঠে। কিন্তু ছাত্রদের কাছে এ উইকেটটাই এখন গলার কাঁটা। রুবেল, রাব্বিদের অসহায় আত্মসমর্পণ দেখেছেন মাঠে বসে। ব্যাটসম্যানরা যে আরও বিবর্ণ। নিজের অভিজ্ঞতার সবটুকু উজাড় করে দিয়েছেন ওয়ালশ।

তিনি বলেন, আমাদের ধারাবাহিকতা ছিল না। বোলারদের ভালো বোলিং করতে হবে। বিশেষ করে ফাস্ট বোলারদের জন্য কঠিন পরীক্ষা। স্যাবাইনা পার্কে আমি অনেক খেলেছি। আমি ওদের সব অভিজ্ঞতার কথা বলেছি। আশা করছি, মাঠে গিয়ে তারা তা বাস্তবায়ন করতে পারবে।

উইকেটে খুব একটা পরিবর্তন আসার সম্ভাবনা নেই। তাই একাদশে থাকতে পারে তিন পেসার। সেক্ষেত্রে রুবেলের পরিবতে শফিউলের থাকার সম্ভাবনা বেশি। টপ অর্ডারে আসতে পারে একটা পরিবর্তন। সুযোগ মিলতে পারে ইমরুল কায়েস বা নাজমুল হোসেন শান্তর। এদিকে নির্ভার ওয়েস্টইন্ডিজ দ্বিতীয় টেস্টে পাচ্ছেনা কেমার রোচকে। ইনজুরিতে পড়ায় ১৩ সদস্যের দলে জায়গা পেয়েছেন তরুণ পেসার আলজারি জোসেফ।




DMCA.com Protection Status

এই বিভাগের সকল সংবাদ

Contact Address

Nasir Trade Centre, Level-9,
89, Bir Uttam CR Dutta Road, Dhaka 1205, Bangladesh
Email: somoydigitalsomoynews.tv

Find us on

  Live TV DMCA.com Protection Status
উপরে