আপডেট
১৪-০৬-২০১৮, ২০:৩৫

ঠিকানা আছে কিন্তু ঠাঁই নেই

eid-back-night-1
ঈদের আগের শেষ কর্মদিবসে অনেকটা তাড়াহুড়ো করেই নগর ছাড়ছেন রাজধানীবাসী। বাস, ট্রেন, লঞ্চ কোথাও নেই তিল ধারণের ঠাঁই। তবুও ঝক্কিতেই স্বস্তি খুঁজে নিয়ে বাড়ির পানে ছুটছেন নগরবাসী। তবে যাত্রীচাপ সামলাতে হিমশিম খাচ্ছে কর্তৃপক্ষ। মহাসড়কে যানজট আর তেমন ভিড় না থাকায় বিভিন্ন গন্তব্যে ছেড়ে গেছে বেশিরভাগ যানবাহন।
শেকড়ের টান যে কত তীব্র হতে পারে, বিমানবন্দর রেলস্টেশনের এ চিত্র যেন তারই জানান দেয়।

দিনভর ট্রেনযাত্রার ব্যবস্থাপনায় বড় ধরনের কোন অভিযোগ ছিল না নগরছাড়া মানুষদের। তবে ঈদের আগের শেষ কর্মদিবসের এ যাত্রায় ৩-৪ ঘন্টা বিলম্ব করেছে খুলনাগামী সুন্দরবন, সৈয়দপুর-চিলহাটিগামী নীলসাগরসহ রাজশাহী ও লালমনিরহাটগামী ৪টি ট্রেন। কমলাপুরের পাশাপাশি বিমানবন্দর স্টেশনেও বাড়িফেরা মানুষের হুড়োহুড়ি ছিলো চোখে পড়ার মতো।

 যাত্রীরা বলেন, এটা অদ্ভূত ফিলিংস, আপনাদের বলে বোঝাতে পারব না।

কর্তৃপক্ষের একজন বলেন, এত চাপ এত ভীড়ে সবাইকে প্রটেকশন ও দেয়া যাচ্ছে না।

 একজন যাত্রী বলেন, লঞ্চে এক তিল জায়গা নেই। আমরা ফিরে যাচ্ছি।


সড়ক পথের ঈদযাত্রা সকালের দিকে নির্ঝঞ্চাট থাকলেও, বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে ভিড় বাড়তে থাকে যাত্রীবাহী বাসগুলোতে।

সদরঘাটে দিনভর দক্ষিণাঞ্চলের যাত্রীদের চাপ থাকে। বিকেল গড়াতে সেই চাপ বেড়ে যায় কয়েকগুণ। জীবনের ঝুঁকি নিয়ে আগের লঞ্চটি পাবার চেষ্টায় মরিয়া হয়ে উঠে বরিশাল, ভোলাসহ সাগরপারের জেলার মানুষ। জেলাপ্রশাসনসহ ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে নিয়োজিত বিভিন্ন সংস্থার বেগ পেতে হয় পরিস্থিতি সামাল দিতে।


সব প্রতিবন্ধকতা পেড়িয়ে ঘরেফেরা এসব মানুষে যাত্রা শুভ হোক, সেই প্রত্যাশা সকলের।




DMCA.com Protection Status

এই বিভাগের সকল সংবাদ

Contact Address

Nasir Trade Centre, Level-9,
89, Bir Uttam CR Dutta Road, Dhaka 1205, Bangladesh
Email: somoydigitalsomoynews.tv

Find us on

  Live TV DMCA.com Protection Status
উপরে