ksrm
bpl
আপডেট
২০-০৪-২০১৮, ১৯:৩২

আদালত প্রাঙ্গণেই ধর্ষকের গোপনাঙ্গ কর্তন!

akku-yadav
একের পর এক ধর্ষণের ঘটনায় উত্তপ্ত ভারত। রাজনৈতিক বিতর্কের বিষয়ও হয়ে গেছে এই ধর্ষণ। শিশু, কিশোরী, নারী কেউই বাদ যাচ্ছে না এই ধর্ষণের হাত থেকে। এমন অবস্থায় প্রায় দেড় দশক আগের স্মৃতি মনে করছে দেশের অগ্রগামী শহর ভারতের নাগপুর। যেখানে আদালত কক্ষে প্রায় ২০০ জন নির্যাতিতার হাতে খুন হয়েছিলেন এক ধর্ষক। সেই ঘটনা আবারো সামনে এনেছে দেশটির গণমাধ্যম।

সমগ্র বিশ্ব জুড়ে আলোড়ন সৃষ্টিকারী সেই ঘটনাটি ঘটেছিল ২০০৪ সালের ১৩ আগস্ট। ঠিক তার পরের দিনেই ফাঁসি হয় ধর্ষক ধনঞ্জয় চট্টোপাধ্যায়ের। নাগপুর জেলা আদালতের মার্বেল বসানো আদালত কক্ষের মেঝেতেই ফেলে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছিল ধর্ষক আক্কু যাদবকে। শুধু তাই নয়, কেটে নেওয়া হয়েছিল ধর্ষকের পুরুষাঙ্গটিও।

নাগপুরের কোস্তুরবা নগরের বেশ প্রভাবশালী পরিবারের ছেলে ছিল আক্কু যাদব। যার বিরুদ্ধে একটা বিস্তীর্ণ এলাকার প্রায় সকল মহিলাকে ধর্ষণের অভিযোগ ছিল। প্রায় এক দশক ধরে ওই এলাকার বিভিন্ন মহিলাকে নিয়মিত ধর্ষণ করেছিল সে। দাপুটে এবং প্রভাবশালী হওয়ার কারণে আইনের শাস্তির হাত থেকে রেহাই পেয়ে যেতো ধর্ষক আক্কু। কিন্তু, একসময় তার কাছে নির্যাতনে শিকার হওয়া নারীরাই তাকে শিক্ষা দিয়েছিলো আদালতের মধ্যেই।

কোস্তুরবা নগর এলাকায় যেখানে আক্কু যাদব থাকতো তার পাশেই ছিল বড় বস্তি। সেই সকল দরিদ্র পরিবারের মহিলারাই ছিল আক্কুর অশ্লীল কাজের টার্গেট। বস্তির মহিলাদের ধর্ষণ স্বভাবে পরিণত করে ফেলেছিল সে। প্রতি ক্ষেত্রেই পুলিশের কাছে দায়ের হত অভিযোগ। নিয়ম মাফিক গ্রেফতারও হতো কিন্তু, খুব সহজেই মিলে যেতো জামিন। কারণ, সেভাবেই তৈরি হতো পুলিশের চার্জশিট। নিয়মিত মাসোহারা এবং মদের বোতল উপহার দিত আক্কু।

ধর্ষণের শিকার ২২ বছরের এক মহিলা পুলিশের কাছে অভিযোগ জানালে তাকে আক্কুর প্রেমিকা দেখিয়ে চার্জশিট পেশ করে পুলিশ। অধিকাংশ ক্ষেত্রেই নির্যাতিতাদের যৌন কর্মী দেখিয়ে আক্কুর জামিনের পথ সুগম করে দিত আইনের রক্ষকেরা। শুধু একা আক্কু নয়, তার সাঙ্গপাঙ্গরাও এই কাজে সামিল ছিল। অনেক সময় বস্তির মেয়েদের কোস্তুরবা নগরের অদূরে পরিত্যক্ত বহুতলে নিয়ে গিয়ে মেয়েদের উপর পাশবিক নির্যাতন চালানো হতো। মেয়েদের বয়স ১২ পার হলেই সে আক্কু বাহিনীর লক্ষ্য বস্তু হয়ে যেতো ।

এভাবেই চলছিল আক্কুর জীবন। আর এতেই তিতিবিরক্ত হয়ে পড়েছিল কোস্তুরবা নগরের আম জনতা। প্রায় ৩০০ পরিবারের কাছে আতংক হয়ে দাঁড়িয়েছিল সিকি শতক বয়সের যুবক আক্কু যাদব। যার কাছে ধর্ষণ প্যাশন হয়ে দাঁড়িয়েছিল।


ক্ষোভের আগুনে ঘি পরে ২০০৪ সালের আগস্ট মাসে। কোস্তুরবা নগরের বাসিন্দা মহিলারা একজোট হয়ে রুখে দাঁড়ায় আক্কুর বিরুদ্ধে। সকলকে একত্রিত করার পিছনে ছিলেন ২৫ বছর বয়সী সমাজকর্মী উষা নারায়ণে। প্রায় ৫০০ মহিলা একসঙ্গে হামলা চালায় আক্কুর বাড়িতে। দিনটা ছিল ২০০৪ সালের ৬ আগস্ট। ওই দিন বিকেলের দিকে তারা সমবেত হয়ে আক্কুর বাড়িতে যায়। কিন্তু বাড়িতে ছিল না আক্কু। বিপদ বুঝে আগেই পুলিশের কাছে আত্মসমর্পণ করে সে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, পুলিশের পরামর্শেই আত্মসমর্পণ করেছিল ধর্ষক আক্কু যাদব। কারণ, বাড়িতে বা অন্যত্র থাকলে কোস্তুরবা নগরের মহিলাদের হাতেই তার প্রাণ যেত। এর চেয়ে পুলিশের হেফাজত অনেক নিরাপদ ছিল।

১৩ আগস্ট ছিল নাগপুর জেলা আদালতে ছিল আক্কুর পরবর্তী শুনানি। সেদিন আদালতে হাজির ছিল প্রায় ২০০ জন মহিলা। তারা প্রত্যেকে সঙ্গে করে নিয়ে এসেছিল সবজি কাটার ছুরি আর শুকনো লঙ্কার গুড়ো। মহিলাদের পরিকল্পনা ছিল, যেভাবেই হোক নিজের বাড়িতে আর ফিরতে দেওয়া যাবে না ধর্ষক আক্কু যাদবকে। প্রয়োজনে জেলে যেতেও তারা প্রস্তুত ছিল। যদিও এই বিষয়টিকে পরিকল্পিত খুন বলে মানতে নারাজ সমাজকর্মী উষা নারায়ণে।

তাঁর মতে, 'সম্মিলিত আবেগের বহিঃপ্রকাশ ঘটেছিল নাগপুর আদালতে।'

শুনানির জন্য আদালতে প্রবেশের সময়েও একবিন্দু অহংকার কমেনি আক্কুর। পুলিশের কারসাজিতে জামিন পাওয়ার বিষয়ে নিশ্চিত ছিল ৩২ বছরের আক্কু। আদালতে ঢোকার মুখে নির্যাতনের শিকার এক মহিলাকে উদ্দেশ্য করে গালি দেয় এবং তাকে দেখা নেওয়ার হুমকি দেয়। আদালতের মধ্যে এক ধর্ষক মহিলাকে হুমকি দিচ্ছে দেখেও কিছু করেনি পুলিশ, উলটে হাসছিল। তখনই ওই মহিলা চিৎকার করে বলে ওঠে, 'আমরা দু’জনে একসঙ্গে পৃথিবীতে থাকতে পারব না। হয় তুই থাকবি না হয় আমি থাকব।' বলেই জুতো খুলে আক্ককুকে মারতে শুরু করে ওই মহিলা।

জমে থাকা ক্ষোভের বারুদে সেটিই ছিল প্রথম অগ্নি সংযোগ। এরপরেই চারপাশ থেকে আক্কুর উপরে ঝাঁপিয়ে পরে সকল মহিলারা। প্রায় ২০০ জন মহিলাকে সামাল দেওয়ার মতো পুলিশ আদালতে ছিল না। মাত্র ১৫ মিনিট সময়ের মধ্যেই সব শেষ। ধারাল অস্ত্র দিয়ে কোপান হয় আক্কু যাদবকে। এরপরে কাটা জায়গায় ছড়িয়ে দেওয়া হয় ঝালের গুড়ো। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট অনুসারে, আক্কুর শরীরে ৭০টি আঘাতের চিহ্ন ছিল। আরও বড় বিষয় হচ্ছে, হামলাকারী মহিলারা কেটে নিয়েছিল আক্কুর পুরুষাঙ্গ।

ওই সময় আদালত চত্বরে উপস্থিত সকল মহিলাই আক্কুর খুনে নিজেদেরকে অভিযুক্ত বলে দাবি করেছিল। তাঁদের সকলকেই গ্রেফতার করার দাবিও উঠেছিল। প্রাথমিক অবস্থায় পাঁচ জনকে গ্রেফতার করা হলেও বিক্ষোভের কারণে তাঁদের ছেড়ে দিতে বাধ্য হয় পুলিশ। আক্কু যাদব খুনের সব দায় নিজের মাথায় নিয়ে আত্মসমর্পণ করেন সমাজকর্মী উষা নারায়ণে।

২০১২ সালে তাকে মুক্তি দেওয়া হয়। ওই ঘটনায় জড়িত মোট ২১ জনকে গ্রেফতার করেছিল পুলিশ। যাদের মধ্যে ছয় জন মহিলা ছিল। উপযুক্ত প্রমাণের অভাবে তাঁদের ছেড়ে দিতে বাধ্য হয় পুলিশ।

নাগপুরের এই ঘটনার চর্চা হয়েছিল সমগ্র বিশ্বজুড়ে। ভারতের মত দেশে মহিলাদের এই কীর্তি স্থান পেয়েছিল আন্তর্জাতিক স্তরের সকল সংবাদ মাধ্যমে। কিন্তু, পশ্চিমবঙ্গে সেই সময় বিশেষ গুরুত্ব পায়নি আক্কুর কাহিনী। কারণ, ২০০৪ সালের ১৪ আগস্ট কলকাতায় ফাঁসি হয় ধর্ষক ধনঞ্জয় চট্টোপাধ্যায়ের। যা নিয়ে আলোড়িত হয়েছিল সমগ্র বাংলা। হেতাল পারেখ এবং ধনঞ্জয় নিয়ে মত্ত বাঙালির কাছে সেভাবে পৌঁছাতে পারেনি নাগপুরের প্রমীলা বাহিনীর কীর্তির কথা।



DMCA.com Protection Status

এই বিভাগের সকল সংবাদ
গলায় কলা আটকে শিশুর মৃত্যু সহজেই রান্না করুন ঝাল পোলাও ভারতের ১০০ ওয়েবসাইট পাকিস্তানি হ্যাকারের দখলে একদিনে তিন হাজারের বেশি পানির জার ধ্বংস ইতালিতে জমকালো আয়োজনে শুরু বার্ষিক ভেনিস কার্নিভাল ঐক্যফ্রন্টের গণশুনানি শুক্রবার ‘কোনো শত্রুই ইরানের ক্ষতি করতে পারবে না’ বয়ঃসন্ধিকালে কিশোরীর অপরিহার্য পুষ্টি ‘ট্রাম্প যৌনরোগী’ মাছের ম্যাজিক নারায়ণগঞ্জে গাছে বেঁধে নারী নির্যাতন মামলায় রিমান্ডে ইউসুফ বাংলাদেশে বিনিয়োগে আগ্রহী আরবের এনএমসি-লুলু গ্রুপ ঝিনাইদহে শুদ্ধ সুরে জাতীয় সংগীত প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত ভিক্ষার চালে চলে লক্ষীর সংসার! ভারতের বিরুদ্ধে পাকিস্তানের ভিন্ন কৌশল জামালপুরে ড্রেজার মেশিনের পাইপ পড়ে কৃষকের মৃত্যু সালমানকে জিজ্ঞাসাবাদ পুলিশের ঘরবাড়ি পরিষ্কারে যেসব ভুল সন্তানের জন্য ক্ষতিকর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ৪ জনের প্রার্থিতা প্রত্যাহার অগ্নিকাণ্ডের দুর্ঘটনা এড়াতে সিলেটে ফায়ার ব্রিগেডের মহড়া ৫০ বছরেও রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতি মেলেনি সেনবাগে নিহত ৪ শহীদের ভারতের পক্ষে নামছে ইসরাইল ডাকাতিয়া নদীর তীরে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযান নাটোর সদর উপজেলায় বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় ৩ জন নির্বাচিত প্রেমের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করায় কিশোরীকে ব্লেড দিয়ে জখম স্বাভাবিক হয়েছে চট্টগ্রাম নগরীর গ্যাস সরবরাহ যেসব আদব-কায়দা থাকা দরকার বড়দের ব্রাহ্মণবাড়িয়ার গৃহবধূ হত্যার প্রতিবাদে মানববন্ধন গোপালগঞ্জে ৫টি কোচিং সেন্টার সিলগালা ডাকসু নির্বাচনে প্রার্থী চূড়ান্ত হয়নি ছাত্র সংগঠনগুলোর প্রেমিকের নাক কাটলেন প্রেমিকার চাচা বিয়েবাড়িতে ট্রাক দুর্ঘটনায় নিহত ১৩ রক্তঋণ শোধের দায়ে প্রস্তুত হচ্ছে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার সমুদ্রে ‘নরকের মাছ’ স্যুট পরার ৯ নিয়ম ‘রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে যুক্তরাজ্যের চাপ অব্যাহত থাকবে’ ‘অজানা ফোনে’ বন্ধ বিআইডব্লিউটিএ’র অভিযান জাহালমকে ক্ষতিপূরণ পাওয়ার আইনি লড়াই চালাবে মানবাধিকার কমিশন পেঁপের বীজে লুকিয়ে হরেক পুষ্টিগুণ পাক-ভারত উত্তেজনা: পরমাণু অস্ত্র বাড়াচ্ছে ইসলামাবাদ বাড়িকে তেলাপোকা মুক্ত করার ৩টি অব্যর্থ উপায় সিরিয়ায় জোড়া বোমা বিস্ফোরণে নিহত ১৫ ‘বিশ্বাসঘাতক জেরেমি করবিন’ অনিয়মিত মাসিকের ৯টি ঘরোয়া সমাধান মালদ্বীপের সাবেক প্রেসিডেন্টকে গ্রেফতারের নির্দেশ ‘যুক্তরাষ্ট্র চেষ্টা করলেও হুয়াওয়েকে ধ্বংস করতে পারবে না’ খুশকির সমস্যা দূর করতে সহজ কিছু টিপস কোমায় গর্ভবতী নারীর সন্তান প্রসব! পাকিস্তানিদের ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে রাজস্থান ছাড়ার নির্দেশ কুলভূষণকে মুক্তি দিতে আন্তর্জাতিক আদালতের প্রতি ভারতের আহবান বলিভিয়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ২৪ ন্যাটোর বিরুদ্ধে অস্ত্র সরবরাহের অভিযোগ এরদোয়ানের ক্লাসে বসে স্কুল ছাত্রীদের মদ্যপান, অজ্ঞান ২ পাকিস্তানে হামলা হলে পাল্টা জবাবের হুমকি ইমরানের ইরানে সন্ত্রাসী হামলার ঘটনায় আটক ৩ বিচারপতি বললেন, ‘মশার জ্বালায় বাঁচি না, বরাদ্দ করা কোটি টাকা কই যায়’ আইলাইনারে রঙিন হোক বসন্ত টাকা উত্তোলনের পর বাঁধ নির্মাণ না করায় আটক ৭ বিবির ইতিহাস বই প্রত্যাহারের নির্দেশ খাগড়াছড়িতে অগ্নিকাণ্ডে দম্পতিসহ দগ্ধ ৯ সিরাজগঞ্জে বিরল প্রজাতির মদন টাক উদ্ধার সরিয়ে নেওয়া হলো বিআইডব্লিউটিএ’র ঢাকা বন্দরের প্রধানকে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন কুদ্দুস বয়াতি দুই ভারতীয় যুদ্ধবিমান বিধ্বস্ত, পাইলট নিহত অনুমোদনহীন পানি সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে অভিযান চলবে সন্ত্রাসীদের কঠোর হাতে দমনের ঘোষণা মোদির বিস্ফোরক মামলায় উপজেলা চেয়ারম্যান কারাগারে আখেরি মোনাজাত শেষে রাস্তায় মানুষের ঢল ‘বাংলাদেশের আইন সহায়তার পলিসি উগান্ডায় বাস্তবায়ন করা হবে’ ধূসর হচ্ছে মোহামেডানের ঐতিহ্য তিন মাসে অচল রাস্তা সচল করার নির্দেশ কাদেরের আড্ডায় মাতুন 'হৃদয়ের রংধনু'র তারকাদের সঙ্গে ভবন ভাঙার প্রস্তুতি না থাকায় ফিরে গেল বিআইডব্লিউটিএ ব্যাংকের প্রধান সমস্যা তুলে ধরলেন অর্থমন্ত্রী উচ্ছেদ অভিযানে বাধা দিতে গিয়ে ছাত্রলীগ নেতা আটক ‘অস্ত্র হাতে নিলেই গুলি’ হোয়াইট ওয়াশ এড়াতে বুধবার মাঠে নামছেন মাশরাফিরা শপিংমলে ১০ টাকায় শাড়ি, অতপর...! (ভিডিও) চ্যাম্পিয়ন্স লিগে মুখোমুখি বায়ার্ন-লিভারপুল, মাঠে নামবে বার্সাও এটা রীতিমতো হাস্যকর: রিজভী আইসিটি মন্ত্রীর ফেসবুক স্ট্যাটাস নিয়ে যা বললেন সালমান মুক্তাদির উপজেলা নির্বাচন নিয়ে নুরুল হুদা-মাহবুব তালুকদারের ভিন্ন বক্তব্য শেবাচিম গাইনি বিভাগ প্রধানকে বরখাস্তের আবেদন একুশে ফেব্রুয়ারি রাজধানীর নিরাপত্তায় ১৬ হাজার পুলিশ পুলওয়ামা হামলা: বিজেপি সরকারেরও শাস্তি চাইলেন মমতা বাংলাদেশে যখন দেখা যাবে সুপারমুন এএসপি মিজান হত্যার তদন্ত প্রতিবেদন ২৪ মার্চ আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের জন্য প্রস্তুত কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার ডাকসু’র মনোনয়নপত্র বিতরণ শুরু শেষ হলো বিশ্ব ইজতেমা 'দেশি-বিদেশি সব ধরণের বিনিয়োগ বান্ধব নীতিমালা করা দরকার' বঙ্গোপসাগরে গ্যাস অনুসন্ধানের অনুমোদন পেল ব্রিটিশ কোম্পানি ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টারে সেবার পরিসর বাড়ানোর পরিকল্পনা শুক্রবার মুক্তি পাচ্ছে ‘হৃদয়ের রংধনু’ (ভিডিও) অনলাইনে পণ্যের মূল্য পরিশোধে কর ছাড় চায় ই-ক্যাব যে বয়সে যতটুকু ঘুমানো দরকার গুগলে ‘টয়লেট পেপার’ লিখলে আসছে পাকিস্তানের পতাকা কাশ্মীরে হামলা, ক্রিকইনফোর ওপর ভারতীয়দের ক্ষোভ চেলসিকে হারিয়ে এফ এ কাপের কোয়ার্টারে ম্যানইউ জঙ্গি হানার ঘটনা নিয়েও তৃণমূল-বিজেপি মুখোমুখি পশ্চিমবঙ্গে
আরও সংবাদ...
মাঝরাতে সালমানের বাড়ির গেট ভাঙচুর করলেন জেসিয়া (ভিডিও) শাকিবের বাড়িতে অপু-বাপ্পীর ‘আংটি বদল’ ২ সার্কুলারে ২ লাখ ৩০ হাজার নিয়োগ! স্ত্রী’র পরকীয়া নিয়ে ফেসবুক স্ট্যাটাসের পর চিকিৎসকের ‘আত্মহত্যা’ মডেলিংয়ে পোশাক খোলার গোপন তথ্য জানালেন পিয়া ২৫ বছরের মধ্যে বিয়ে না করলেই শাস্তি! সালমানের বিরুদ্ধে মুখ খুললেন জেসিয়া ৩৪ কোম্পানির প্রধান এই রিকশাচালক! সঙ্গীত পরিচালক আহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুল আর নেই বিএনপিকে কড়া বার্তা ভারতের প্রেমিকের সঙ্গে ইন্দোনেশিয়ায় 'রোমাঞ্চকর' পরীমণি অবিবাহিত নারীরা পাচ্ছেন সাতদিন ‘প্রেম করার ছুটি’ শেখ হাসিনাকে হত্যাচেষ্টার অস্ত্রবাহী জাহাজ ডুবে যায় সাগরে ফোন হ্যাক করে নায়িকার আপত্তিকর ছবি ফাঁস! সাংবাদিককে আত্মহত্যা করতে বললেন সচিব (ভিডিও) ওয়ানডে বিশ্বকাপের পূর্ণাঙ্গ সময়-সূচি ফোন চার্জে রেখে গান শুনতে গিয়ে যুবকের মৃত্যু আজীবন যৌবন ধরে রাখবে যে ১২ খাবার ওজন কমানোর স্বাস্থ্যসম্মত ডায়েট চার্ট নিম্নমানের ভিটামিন ক্যাপসুল কিনতে বাধ্য করেছিল ভারত: স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী লাফিয়ে শূন্যে উঠে নারীকে জীবিত খেল কুমির ঢামেক নিউক্লিয়ার মেডিসিন বিভাগের প্রধান হলেন ডা. এজাজ ‘টেন ইয়ার চ্যালেঞ্জ’ একটি ফাঁদ! হেলমেটবিহীন হিরো আলমকে আটকালো পুলিশ সিমের মতো হ্যান্ডসেটও নিবন্ধন করতে হবে বন্ধ হচ্ছে ৭ দিনের নিচের ইন্টারনেট প্যাকেজ ছেলেদের হৃদযন্ত্রের ক্ষতির কারণ সুন্দরী মেয়ে: গবেষণা চট্টগ্রামে চিকিৎসক ‘আত্মহত্যার’ ঘটনায় স্ত্রী আটক রাসায়নিক খাওয়ানো গরুর দুধ মদের চেয়ে ক্ষতিকর: দাবি বিশেষজ্ঞের চাইলে অনেক কিছুই করতে পারতাম, জেসিয়া প্রসঙ্গে সালমানের মা মাশরাফি একটু ‘ক্ষুব্ধই’ সংরক্ষিত আসনে আওয়ামী লীগের এমপি হলেন যারা ম্যাসেঞ্জারে যুক্ত হলো নতুন সুবিধা অবশেষে ওয়ানডে দলে ইমরুল ঐক্যফ্রন্ট ও বিজয়ীদের বিষয়ে খালেদা জিয়ার সিদ্ধান্ত ধানমণ্ডির সুলতান'স ডাইনকে জরিমানা হঠাৎ বিএনপি নেতার কলার চেপে ধরলেন ফখরুল! সম্পর্ক ভাঙলো সালমান-জেসিয়ার রাতারাতি ভাইরাল যে প্রধান শিক্ষক (ভিডিও) বিসিবি কর্মকর্তার নির্দেশে সময় টিভির সাংবাদিককে হেনস্তা আপাতত বাংলাদেশে কোন আইসিসি টুর্নামেন্ট আয়োজন করা সম্ভব নয়: আইসিসি চেয়ারম্যান বেতন বাড়ল পোশাক শ্রমিকদের ইমরান খানকে এগিয়ে আসার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর আপনার মোবাইলটি বৈধ কিনা যাচাই করবেন যেভাবে ফিরছেন ‘অশ্লীল’ পরিচিতি পাওয়া সেই দুই নায়িকা ভুল প্রশ্নপত্রে এসএসসি পরীক্ষা নেওয়ার অভিযোগ বাণিজ্যমেলায় পুলিশ কর্মকর্তার সাথে হাজী বিরিয়ানির কর্মীদের হাতাহাতি নষ্ট মোবাইল ফেরত দিলে টাকা পাওয়া যাবে বুড়ো হতে না চাইলে খেতে হবে এই ১২টি খাবার ট্রাক চালক পেলেন ২৫০০ কোটি টাকা!
আরও সংবাদ...


somoytv subscribe
সময়ের সকল ভিডিও দেখতে সাবস্ক্রাইব করুন

Contact Address

Nasir Trade Centre, Level-9,
89, Bir Uttam CR Dutta Road, Dhaka 1205, Bangladesh
Email: somoydigitalsomoynews.tv

Find us on

  Live TV DMCA.com Protection Status
উপরে