আপডেট
১৪-০৩-২০১৮, ১৬:৫৭

ট্রাম্পকে সতর্ক করার কারণেই টিলারসনকে বরখাস্ত

trump-rex
রাশিয়া বিষয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পকে সতর্ক করার কারণেই পররাষ্ট্রমন্ত্রীর পদ থেকে বরখাস্ত হতে হয়েছে বলে দাবি করেছেন রেক্স টিলারসন। এ মাসের শেষে যুক্তরাষ্ট্রের নতুন পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে দায়িত্ব বুঝিয়ে দিয়ে পদ ছাড়বেন বলেও জানান তিনি। মঙ্গলবার টিলারসনকে বরখাস্তের পাশাপাশি নতুন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিসেবে সি.আই.এ পরিচালক মাইক পম্পেও'র নাম ঘোষণা করেন ট্রাম্প। তিনি পম্পেওকে অসাধারণ বুদ্ধিমান ও বিচক্ষণ বলে উল্লেখ করেন। প্রশাসনের প্রধান কূটনীতিককে বরখাস্তের ঘটনায় মিশ্র প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন মার্কিন সিনেটররা।


কাতার, ইরান, উত্তর কোরিয়া সর্বশেষ রাশিয়া ইস্যুতে ট্রাম্পের বিপক্ষে মত প্রকাশ করে পদ হারালেন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী রেক্স টিলারসন। মার্কিন প্রেসিডেন্টকে গাধা এবং তার প্রেসিডেন্সি নিয়ে প্রশ্ন তোলার পরই দু'পক্ষের এ দ্বন্দ্বের শুরু।

ইরানের সঙ্গে করা ছয় জাতিগোষ্ঠীর চুক্তিকে ভয়ংকর উল্লেখ করে সরে যাওয়ার ঘোষণা দিলেও ট্রাম্পের সিদ্ধান্তের বিপক্ষে অবস্থান নেন টিলারসন। একইভাবে উত্তর কোরিয়াকে ছাড়খাড়ে ট্রাম্পের হুমকি উপেক্ষা করেই আলোচনার ওপর গুরুত্বারোপ করেন গেছেন টিলারসন।

সবশেষ যুক্তরাজ্যে রুশ গুপ্তচরকে নার্ভ এজেন্ট দিয়ে হত্যা চেষ্টায় রাশিয়াকে সরাসরি দায়ী করে মস্কোকে ভুগতে হবে বলে হুঁশিয়ারির উচ্চারণ করেন টিলারসন। এক্ষেত্রে ব্রিটেনের পক্ষ নিলেও ট্রাম্প প্রশাসন রাশিয়ার বিষয়ে ছিল নীরব। এসবের ফলশ্রুতিতে, মঙ্গলবার টিলারসনকে বরখাস্তের ঘোষণা দিয়ে সিআইএ প্রধানকে পররাষ্ট্রমন্ত্রী করার সিদ্ধান্ত জানান ট্রাম্প।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেন, 'পম্পেও কর্মঠ এবং অসাধারণ বিচক্ষণ। আমাদের চিন্তাভাবনাও একইরকম। আমাদের সম্পর্কও খুব ভালো। একারণে তাকে পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিসেবে নিয়োগ দেয়া হয়েছে।'

প্রায় ১৪ মাস পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব পালনের জন্য টিলারসনকে ধন্যবাদ জানিয়ে, এসময় প্রথম নারী সিআইএ প্রধান হিসেবে জিনা হাসপেলের নাম ঘোষণা করেন ট্রাম্প।


বরখাস্ত হওয়ার প্রতিক্রিয়ায় আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে নিজের সময়কার বিভিন্ন অর্জন তুলে ধরেন সদ্য বরখাস্ত হওয়া মার্কিন এ পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

সদ্য বরখাস্ত হওয়া মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী রেক্স টিলারসন বলেন, '৩১ মার্চের মধ্যরাত পর্যন্ত পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করবো। এসময়ে আমার চলে যাওয়ার বিষয়সহ সুষ্ঠু ও সুন্দরভাবে পরবর্তী পররাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছে দায়িত্ব হস্তান্তরের কাজগুলো করবো।'

ট্রাম্পের ঘোষণার পরই শপথ গ্রহণ করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের নতুন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও। শপথ গ্রহণের পর দেয়া বক্তব্যে মার্কিন নির্বাচনে রাশিয়ার তথ্য হাতিয়ে নেয়া ও উত্তর কোরিয়ার পরমাণু অস্ত্রধারী হয়ে ওঠার বিষয়ে কথা বলেন তিনি। তার এ নিয়োগে মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখিয়েছেন মার্কিন সিনেটররা।




DMCA.com Protection Status

এই বিভাগের সকল সংবাদ

Contact Address

Nasir Trade Centre, Level-9,
89, Bir Uttam CR Dutta Road, Dhaka 1205, Bangladesh
Email: somoydigitalsomoynews.tv

Find us on

  Live TV DMCA.com Protection Status
উপরে