আপডেট
১৩-০৩-২০১৮, ২৩:১৭
আন্তর্জাতিক সময়

কৃষকদের দাবি মেনে নিয়েছে ভারতের মহারাষ্ট্র সরকার

download-1-
তীব্র আন্দোলনের মধ্যে কৃষকদের দাবি মেনে নিতে বাধ্য হয়েছে ভারতের মহারাষ্ট্র সরকার। সোমবার দেশটির বাণিজ্যিক রাজধানী মুম্বাইয়ে অর্ধ লক্ষাধিক কৃষক-কৃষাণীর প্রতিবাদের মধ্যে আলোচনায় বসেন মুখ্যমন্ত্রী ও মন্ত্রিপরিষদের কয়েকজন জ্যেষ্ঠ সদস্য। এতে কৃষকদের সঙ্গে সমঝোতা হয়েছে বলে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ। তবে বিশ্লেষকরা বলছেন, দাবি আদায়ের জন্যই কেবল নয়, জাতীয় নির্বাচনের আগে বামফ্রন্টের এ ধরনের জনসমাবেশ- ক্ষমতাসীন বিজেপির কপালে ভাঁজের কারণ হতে পারে।

হাতে লাল পতাকা। স্লোগান আর বাদ্যের তালই যেন প্রতিবাদের ভাষা। দাবি আদায়ে বাণিজ্য নগরীতে এসে জড়ো হন হাজার হাজার কৃষক।

কৃষিনীতিতে আমূল সংশোধন আনার দাবিতে পশ্চিম ভারতের রাজ্য মহারাষ্ট্রের রাজধানী মুম্বাইয়ে অবস্থান নিয়েছেন তারা। দীর্ঘ ১৮০ কিলোমিটার পথ পাড়ি দিয়ে তারা এখানে জড়ো হন।

কৃষকরা জানান, অনেকটা পথ হেঁটে এসেছি, এটাই আমাদের প্রতিবাদ। যতক্ষণ পুরোপুরি দাবি মানা না হচ্ছে আমরা সরবো না।

কৃষকদের সম্মান দেয়া হয় না। তারা ন্যায্য মুজুরিও পান না। এছাড়া দেশে অন্তত ৮৫ শতাংশ কৃষক ঋণের বেড়াজাল থেকে বের হতে পারেন না।

মূলত ঋণ মওকুফ, ফসলের ন্যা‌য্য দাম, জমির অধিকারসহ বেশ কিছু দাবি নিয়ে তারা রাজপথে। বামফ্রন্ট সিপিএমের কৃষকসভার ডাকেই বিধানসভা ভবন ঘেরাও কর্মসূচিতে অংশ নেন তারা। এতে সমর্থন দিয়েছে শিবসেনাসহ আরও কয়েকটি সংগঠন।


রাজ্য বিধানসভায় চলছে বাজেট অধিবেশন। আর এ অধিবেশন থেকে ভালো কিছু আসবে এমন প্রত্যাশা করে কৃষকদের শান্ত থাকার আহ্বান জানিয়েছে সরকার।

ভারতের কর ও রাজস্ব বিষয়ক মন্ত্রী চন্দ্রকান্ত পাতিল বলেন, কৃষকদের দাবি অনেক বড়, তবে সরকার কমিটি গঠন করে ঋণ মওকুফ করবে। সরকার সবসময়ই অর্থনীতির প্রাণ কৃষকের অধিকারের বিষয়ে সচেষ্ট।

বিজেপি শাসিত এই রাজ্যে বিরোধীজোটের এমন লংমার্চ, কেন্দ্র সরকারকেও ভাবাচ্ছে বলে মত বিশ্লেষকদের।




DMCA.com Protection Status

এই বিভাগের সকল সংবাদ

Contact Address

Nasir Trade Centre, Level-9,
89, Bir Uttam CR Dutta Road, Dhaka 1205, Bangladesh
Email: somoydigitalsomoynews.tv

Find us on

  Live TV DMCA.com Protection Status
উপরে