আপডেট
২৭-০৩-২০১৫, ০৫:১৩

২৮ বছর পর এশীয় দলবিহীন ফাইনাল

aus-nz
এবারের বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালে উঠেছিল উপমহাদেশের চারটি দলই। কোয়ার্টার ফাইনাল থেকে একে একে বিদায় নেয় শ্রীলঙ্কা, বাংলাদেশ ও পাকিস্তান। ভারত অবশ্য আরেক ধাপ এগিয়েছিল। তবে সেমিফাইনাল থেকেই বিদায় নিতে হলো ধোনির দলকেও। কাজেই ২৯ মার্চ ফাইনালে লড়বে অস্ট্রেলিয়া-নিউজিল্যান্ড।
২৮ বছর পর এই প্রথম বিশ্বকাপ ক্রিকেটের ফাইনালে থাকছে না কোনো এশীয় দল।

সর্বশেষ এমনটা হয়েছিল ১৯৮৭ বিশ্বকাপে। উপমহাদেশে অনুষ্ঠিত সেই বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে উঠেছিল দুই আয়োজক ভারত ও পাকিস্তান। কিন্তু দুই দেশই ব্যর্থ হয় ফাইনালে উঠতে। ইংল্যান্ডের কাছে হারে ভারত, আর অস্ট্রেলিয়ার কাছে পাকিস্তান। কলকাতার ইডেন গার্ডেনের ফাইনালে মুখোমুখি হয়েছিল ইংল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়া। ইংলিশদের ৭ রানে হারিয়ে সেবারই প্রথমবারের মতো বিশ্বকাপে হাত রেখেছিল অস্ট্রেলিয়া।

এরপর আর কোনো বিশ্বকাপের ফাইনালই এশিয়ার কোনো দেশ ছাড়া অনুষ্ঠিত হয়নি। ১৯৯২ সালে পাকিস্তান-ইংল্যান্ড, ১৯৯৬ সালে শ্রীলঙ্কা-অস্ট্রেলিয়া। পরেরবার ১৯৯৯ সালে আবার অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে পাকিস্তান। ২০০৩ সালে অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গী ছিল ভারত। ২০০৭ ও ২০১১ সালে পরপর দু’বার ফাইনালে খেলেছিল শ্রীলঙ্কা। প্রথমবার অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে, শেষবার ভারতের বিপক্ষে। উপমহাদেশে ফিরে গত বিশ্বকাপ প্রথমবারের মতো দেখেছিল ‘অল এশিয়া’ ফাইনাল।

এবার এমসিজিতে লড়বে দুই আয়োজক দেশ অস্ট্রেলিয়া-নিউজিল্যান্ড।  যা মনে করিয়ে দিচ্ছে গত বিশ্বকাপের আয়োজক দেশের ফাইনালকেই। এবারের ট্রান্স-তাসমান লড়াইয়ে দেখা যাক, কার মাথায় ওঠে বিশ্বসেরার মুকুট। অজি বধ করে কিউইরা প্রথমবারের মতো বিশ্বসেরা হতে পারবে, নাকি ইতিহাসের দোরগোড়া থেকেই ফিরে যেতে হবে ম্যাকুলামদের, তা জানতে অপেক্ষা করতে হবে রবিবার পর্যন্ত।




DMCA.com Protection Status

এই বিভাগের সকল সংবাদ

Contact Address

Nasir Trade Centre, Level-9,
89, Bir Uttam CR Dutta Road, Dhaka 1205, Bangladesh
Email: somoydigitalsomoynews.tv

Find us on

  Live TV DMCA.com Protection Status
উপরে