স্বপ্নের শহর ভেনিস

Update: 2015-11-02 16:42:54, Published: 2015-11-02 16:42:54
china-venice


প্রাকৃতিক সৌন্দর্য আর বৈচিত্র্যময় সংস্কৃতির দেশ চীন। চীন ঘুরতে গিয়ে এক ঝলকে যদি ইতালির ভেনিস শহর দেখে আসার সুযোগ হয় তবে নিশ্চয়ই কেউ তা হাতছাড়া করবেন না। চীনের দালিয়ান সিটিতে গেলেই চোখে পড়বে অবিকল ভালবাসার নগরী ভেনিসের আদলে গড়ে তোলা একটি গোটা এলাকা। যেন এশিয়ার ভেতর একটুকরো ইউরোপ।

টলটলে জলাধার তার ওপর ভেসে আছে আধুনিক এক নগরী। এই অপার্থিব সৌন্দর্য দেখতে ইতালির ভেনিসে প্রতিবছর ভিড় করেন অসংখ্য দর্শনার্থী। তবে নৌকায় বসে থাকা চীনা এই দম্পতি ভেনিসে বেড়াতে এসেছেন এমনটা ভাবলে, ভুল হবে। কেননা অবিকল ভেনিসের গড়নে এই শহর গড়ে তোলা হয়েছে খোদ চীনের ভেতরেই। সেজন্য আপনাকে ঘুরে আসতে হবে উত্তর পূর্বাঞ্চলীয় লিয়াওনিং প্রদেশের বন্দর নগরী দালিয়ানে।

ইস্ট মন্তাজ নামে এই আবাসন প্রকল্পটির প্রতিটি কোনায় চোখে পড়বে ইতালীয় স্থাপত্যের কারুকাজ, ক্লাসিক্যাল ইউরোপীয় নকশা, ও স্মৃতিবহ দেয়ালচিত্র। যার বিস্তৃতি ৪ লাখ ৩ হাজার ৬শ বর্গমিটার। ২০১১ সাল থেকে এর নির্মাণ কাজ শুরু হয়। এখনও নির্মাণাধীন রয়েছে কয়েকটি ভবন। কৃত্রিম এ শহরটি নির্মাণে এ পর্যন্ত খরচ হয়েছে ৮শ কোটি ইউয়ান বা ১শ কোটি ২৬ লাভ মার্কিন ডলার।

ঝাং জুয়ান বলেন, যাদের ইউরোপে যাওয়ার উপায় নেই তাদের জন্য এ এক দারুণ সুযোগ। এর মাধ্যমে আমরা বিদেশীদের সংস্কৃতি, তাদের ঐতিহ্য সম্পর্কে জানতে পারবো।

দিং ইংরং বলেন, আবাসিক ভবন বলতে আমরা এতদিন ইট, বালু সিমেন্টের উঁচু একটা কাঠামোকেই বুঝতাম। কিন্তু এখানকার দৃশ্য একদমই অন্যরকম, প্রকৃতি ঘেঁষা। মনে হয় যেন পানির মধ্যে পাহাড় জেগে আছে।

প্রকৃতি ও নগরের আশ্চর্য এ মিশেল উপভোগ করতে আকর্ষণীয় প্রমোদতরীতে চেপে দর্শনার্থীদের ৪ কিলোমিটার ব্যাপী আঁকাবাঁকা খাল ধরে চলতে হবে। ভবনগুলোর নকশায় রেনেসাঁ আমলের ছাপ রাখা হলেও ভেতরে সব ধরণের আধুনিক ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। এ কারণে দৃষ্টিনন্দন এ পরিবেশে নিজের বাড়িটি কিনতে শুরু থেকেই ছিলো মানুষের উপচে পড়া ভিড়।

আবাসন প্রকল্পের উপ সাধারণ ব্যবস্থাপক ইয়ান ওয়েই বলেন, ''দালিয়ান শহরের আবাসন ব্যবস্থাকে আরো উন্নত করা সেই সঙ্গে একে পর্যটন নগরী হিসেবে গড়ে তোলাই আমাদের উদ্দেশ্যে ছিলো। এ লক্ষ্যে আমাদের ইতালি আর ফরাসি স্থাপত্যের মিশেলে ভবনগুলোর নকশা এঁকেছি। যা দর্শনার্থীদের মধ্যে ব্যাপক সাড়া ফেলেছে।'' পুরুষ

কৃত্রিম এ নগরীর দরজা খুলে দেয়ার সঙ্গে দেশি-বিদেশি উৎসুক দর্শনার্থীদের ভিড় ছিলো চোখে পড়ার মতো। এর আগে ২০০৭ সালে সাংহাইতে নির্মাণ করা হয় মিনি প্যারিস।

Update: 2015-11-02 16:42:54, Published: 2015-11-02 16:42:54

আপনার মন্তব্য লিখুন

পাঠকের মন্তব্য ( )


More News
  


আরও সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ



সরাসরি যোগাযোগ

৮৯, বীর উত্তম সি. আর. দত্ত রোড, ঢাকা ১২০৫, বাংলাদেশ।
ফ্যাক্স: +৮৮০২ ৯৬৭০০৫৭, ইমেইল: info@somoynews.tv
উপরে en.Somoynews.tv