আপডেট
৩০-০১-২০১৭, ২০:০২

সৌদি নয়, টাকা দিয়েছেন কুয়েতের আমীর- দাবি খালেদার আইনজীবীর

untitled-2
সৌদি আরব থেকে টাকা আসার সাক্ষ্য-প্রমাণ উপস্থাপন করে যখন জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলার কার্যক্রম শেষ পর্যায়ে নিয়ে এসেছে দুদক, ঠিক তখনি বেগম জিয়ার আইনজীবী তথ্য-প্রমাণ দিয়ে আদালতকে জানালেন টাকা এসেছে কুয়েত থেকে। এ কারণে মামলাটি পুনরায় তদন্তের আবেদন করলে, এ নিয়ে দিনভর চলে যুক্তি-তর্ক উপস্থাপন। আবেদনটি খারিজ কিংবা গ্রহণ, কোনোটিই না করে আরো শুনানির জন্য বৃহস্পতিবার মামলাটির পরবর্তী দিন ঠিক করেছেন আদালত। সঙ্গত কারণে সোমবারও আত্মপক্ষ সমর্থনে বেগম জিয়ার বক্তব্য গ্রহণ করতে পারেনি আদালত।

জিয়া অর্ফানেজ ট্রাস্ট মামলায় আত্মপক্ষ সমর্থন করে জবানবন্দি দিতে সোমবার সকালে বকশীবাজারে স্থাপিত অস্থায়ী বিশেষ জজ আদালতে যান বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া। এ দিনের কার্যক্রমের শুরুতেই মামলার তদন্তে উল্লেখ করা ট্রাস্টের টাকার উৎস চ্যালেঞ্জ করে একটি আবেদন করেন বেগম জিয়ার আইনজীবীরা। তারা বলেন, তদন্তে সৌদি আরব থেকে টাকা এসেছে বলে উঠে এলেও প্রকৃতপক্ষে ব্যক্তিগতভাবে টাকা দিয়েছেন কুয়েতের আমির।

এ সংক্রান্ত দালিলিক প্রমাণ আদালতে উপস্থাপন করে মামলাটির পুনঃতদন্ত চান তারা। এ আবেদন পেশ করার যৌক্তিকতা নিয়ে প্রশ্ন তুলে আদালতকে বেগম জিয়ার জবানবন্দি গ্রহণের অনুরোধ জানান দুদকের আইনজীবী। কিন্তু আবেদন ফয়সালা না করে জবানবন্দি গ্রহণের বিরোধিতা করে আসামিপক্ষ। দিনভর যুক্তিতর্ক উপস্থাপনের পর এ নিয়ে আরো শুনানির জন্য বৃহস্পতিবার পরবর্তী দিন ধার্য করেন আদালত।

পরে কুয়েত থেকে আসা টাকাই ট্রাস্টের টাকা কিনা তা নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করেন দুদকের আইনজীবী মোশাররফ হোসেন কাজল।

তিনি বলেন, 'একটা কাগজ এনে বলেছেন যে, এই টাকা কুয়েতের আমীর দিয়েছেন। তিনি জিয়াউর রহমান সাহেবের নামে টাকাটা দিয়েছেন। উনারা বলছেন, এটা ব্যক্তিগত টাকা। আমসি পক্ষ তো বলতেই পারে। উনাদের বলার অধিকার আছে। এখন সাক্ষ্য প্রমাণ দিয়ে তাদেরকেই এটা প্রমাণ করতে হবে।'

এদিকে, কুয়েত থেকে টাকা এসেছে কিনা তা খতিয়ে দেখতে দুদককে আহ্বান জানান বেগম জিয়ার আইনজীবী আবদুর রেজাক খান।

তিনি বলেন, 'বার বার বলা হচ্ছে, এটা কুয়েতের আমীরের টাকা। কুয়েতের আমীরের অর্থ সৌদি আরবে থাকতে পারে। আপনারা কুয়েত অ্যাম্বাসিতে যান, গিয়ে খোঁজ নেন। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে কুয়েত থেকে খোঁজ নিন। সেখানে তো আমাদের অ্যাম্বাসি আছে। ঢাকাতেও তাদের অ্যাম্বাসি আছে। খোঁজ নিয়ে আসেন।

বৃহস্পতিবার মামলা পুনঃতদন্তের আবেদনের নিষ্পত্তির পর দুর্নীতির দুই মামলার পরবর্তী বিচারিক কার্যক্রম অনুষ্ঠিত হবে বলে জানিয়েছেন উভয়পক্ষের আইনজীবীরা।




DMCA.com Protection Status

এই বিভাগের সকল সংবাদ

Contact Address

Nasir Trade Centre, Level-9,
89, Bir Uttam CR Dutta Road, Dhaka 1205, Bangladesh
Email: somoydigitalsomoynews.tv

Find us on

  Live TV DMCA.com Protection Status
উপরে