আপডেট
২৭-০২-২০১৭, ১৯:১৭

শ্যালিকাকে বিয়ে না করায় সুর পালটেছেন শ্বশুর, দাবি বাবুলের

babul-akhtar
দীর্ঘ আটমাস পক্ষে থাকলেও সাবেক পুলিশ কর্মকর্তা বাবুল আক্তারের বিরুদ্ধে হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকার অভিযোগ করছেন মিতুর বাবা-মা। হত্যাকাণ্ডের বেশ কিছু দিন আগে থেকে বাবুল তার মেয়েকে নির্যাতন করতো বলেও অভিযোগ তাদের। যদিও এর আগে মিতুর বাবা একাধিকবার বলেছিলেন, বাবুল-মিতুর দাম্পত্য জীবনে কোনো অশান্তি ছিল না। এদিকে, বাবুল আক্তার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দেয়া দীর্ঘ স্ট্যাটাসে দাবি করেছেন, শ্যালিকাকে বিয়ে করতে রাজি না হওয়ায় তার শ্বশুর-শাশুড়ি এখন তাকে হত্যাকাণ্ডে জড়াচ্ছে।

গত বছরের ৫ জুন চট্টগ্রামের জিইসি মোড়ে আলোচিত পুলিশ সুপার বাবুল আক্তারের স্ত্রী মাহমুদা খানম মিতুকে গুলি ও ছুরিকাঘাতে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা। হত্যাকাণ্ডের প্রায় আট মাসে তদন্ত মোড় নেয় বিভিন্ন দিকে। একসময়ে জঙ্গিরা এ হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত ধারণা করা হলেও পরে সিসিটিভির ফুটেজ দেখে কয়েকজনকে আটক করার পর পাল্টে যায় তদন্তের রূপ।

জিজ্ঞাসাবাদের জন্য বাসা থেকে তুলে নেয়া হয় বাবুল আক্তারকে। চাকরি হারাতে হয় তাকে। তবে, বাবুলকে চাকরীচ্যুত করা হয়েছে নাকি সে নিজেই চাকরি ছেড়েছেন এ বিষয়ে এখন পর্যন্ত কোন স্পষ্ট বক্তব্য পাওয়া যায়নি। তবে ঘটনা যা-ই হোক এতদিন বাবুলের পক্ষেই সাফাই গেয়েছিলেন তার শ্বশুর বাড়ির লোকজন।

চলতে থাকে তদন্ত। হঠাৎ করেই শ্বশুরের মুখে ভিন্ন সুর। চট্টগ্রামে বাবুলের বাসার আশ পাশের বাসিন্দাদের সঙ্গে কথা বলে নাকি জানতে পেরেছেন মিতুর ওপর নির্যাতন করতো বাবুল। মিতু নাকি একবার আত্মহত্যারও চেষ্টা করেছিলেন। একাধিক নারীর সঙ্গে বাবুলের নাকি সখ্যও ছিল। আর এসব কারণেই এ হত্যা কাণ্ডে বাবুল জড়িত থাকতে পারে বলে সন্দেহ করছেন তারা।

বাবুলের শ্বশুর বলেন, 'আমাদের প্রশ্ন হচ্ছে বাবুল যদি সম্পৃক্ত না থাকেন তাহলে তার চাকরি যাবে কেনো। আমাদের বাসা থেকে সে চলে গেলো। পর্যায়ক্রমে ধীরে ধীরে বাচ্চাদের নিয়ে গেছে, মালামাল নিয়ে গেছে। বলতে গেল এক পর্যায়ে আমাদের সাথে মোবাইল সংযোগ বিচ্ছিন্ন করেছে। আর এই পরকীয়া প্রেম বা নির্যাতনের কথা যদিও আমরা পরবর্তীকালে জেনেছি। এই সবগুলি মেলিয়েই তার ওপরে সন্দেহ বেড়েছে।'

এদিকে, ''সবাই বিচারক, আর আমি তথ্য প্রমাণ ছাড়াই খুনি'' শিরোনামে ফেসবুকে দীর্ঘ এক স্ট্যাটাস দিয়েছেন বাবুল আক্তার। তার অভিযোগ, ১৬ বছরের শ্যালিকাকে বিয়ে করতে রাজি না হওয়ায় এখন তার বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছেন মিতুর বাবা-মা।




DMCA.com Protection Status

এই বিভাগের সকল সংবাদ

Contact Address

Nasir Trade Centre, Level-9,
89, Bir Uttam CR Dutta Road, Dhaka 1205, Bangladesh
Email: somoydigitalsomoynews.tv

Find us on

  Live TV DMCA.com Protection Status
উপরে