শিশু-কিশোরদের পদচারণায় মুখর বইমেলার সকাল

Update: 2016-02-12 18:02:39, Published: 2016-02-12 18:02:40
bookfair


সাপ্তাহিক ছুটির দিনে অমর একুশে গ্রন্থমেলা ছিল শিশু কিশোরদের কলকাকলিতে মুখরিত। সকাল ১১টা থেকে দু'ঘণ্টার এই বইমেলায় শিশুরা বাবা মায়ের হাত ধরে ঘুরে বেড়ানোর পাশাপাশি কিনেছে পছন্দের বই।

এদিকে, এবারের বইমেলার শিশু কর্নার অন্য বছরের তুলনায় অধিক শিশু-বান্ধব হয়েছে জানিয়ে শিশু কিশোরদের ভবিষ্যৎ নিয়ে আশার কথা শুনিয়েছেন লেখক ও সাহিত্যিকরা।

সাপ্তাহিক ছুটির দিন থাকায় অভিভাবকদের সাথে নিয়ে শিশুরা যাতে স্বাচ্ছন্দ্যে বই মেলায় কাটাতে পারে এজন্য সকাল ১১টা থেকে ১টা পর্যন্ত দু'ঘণ্টা শিশু প্রহর ঘোষণা করা হয়। তাই বইমেলার দ্বাদশতম দিনে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে তৈরি সিসিমপুর, বটতলা মঞ্চসহ শিশুদের কলকাকলিতে মুখর ছিল মেলা প্রাঙ্গণ।

এ সময় কার্টুন চরিত্র ইকরি, হালুম, টুকটুকির সাথে নেচে গেয়ে কাটানোর পাশাপাশি, বাবা-মায়ের হাত ধরে বইপ্রেমী শিশুদেরকে বিভিন্ন স্টল ঘুরে ভূতের গল্প, বিজ্ঞান ও রূপকথার বই কিনতে দেখা গেছে। কেবল ক্ষুদে পাঠক কিংবা ক্রেতা নয়, ক্ষুদে লেখকরাও উপস্থিত ছিল শিশু প্রহরে। এসব শিশুর নিজস্ব ভাবনা উঠে এসেছে তাদের লেখা বইয়ে।

এদিকে এবারের বইমেলায় শিশু কর্নারকে শিশু-বান্ধব উল্লেখ করে তাদের ভবিষ্যৎ নিয়ে আশার কথা শুনিয়েছেন লেখক ও সাহিত্যিকরা। কথা সাহিত্যিক আনিসুল হক বলেন, 'বড়দের ওপরে আমি এখন আর আশা রাখি না তেমন। কারণ আগে বড় মানুষেরা, বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া ছাত্ররা, চল্লিশ-পঞ্চাশ বছর বয়সী মানুষেরা খুঁজে খুঁজে ভালো সাহিত্যের বই পড়তেন। এখন ওই বয়সী পাঠকদের আর পাওয়া যায় না। এর বদলে শুধু শিশু-কিশোররাই আসে।'

তিনি আরো বলেন, 'শিশু-কিশোররা যদি ভালো বইয়ের সন্ধান পায় তাহলে তাদের পাঠাভ্যাস গড়ে উঠবে। ভবিষ্যতে তারা বড় সাহিত্যিকদের বই পাঠ করবে এবং ভালো মানুষ হয়ে গড়ে উঠবে বলে আমরা আশা করতে পারি।'

এদিকে, শুক্রবারের মত শনিবারও শিশুদের সুবিধার্থে সকাল ১১ টা থেকে ১টা পর্যন্ত শিশু প্রহর ঘোষণা করা হয়েছে।

ছুটির দিনে অমর একুশে গ্রন্থ মেলায় ছিল উপচে পড়া ভিড়

এদিকে সরকারি ছুটির দিনে অমর একুশে গ্রন্থ মেলায় ছিল উপচে পড়া ভিড়। হাজারো বই প্রেমী মানুষের পদচারণয় মুখর ছিল মেলা প্রাঙ্গণ। দিন জুড়েই দেখা যায় পাঠক, লেখক ও প্রকাশকের আনন্দ সমাবেশ। দর্শনার্থী আর ক্রেতাদের ভিড়ে বিক্রি বাড়ায় উচ্ছ্বাস ছিল বিক্রেতাদের।

বাঙ্গালির অস্তিত্বের মিলনস্থল বই মেলা। শুক্রবার সরকারি ছুটির দিনে প্রাণের মেলায় মানুষের ভিড় ছিল লক্ষণীয়। নতুন বই কেনার উচ্ছ্বাসের সঙ্গে পছন্দের বই না পাওয়ার দুঃখ ছিল বই প্রেমীদের।

দর্শনার্থীদের ভিড়ে বেড়েছে বই বিকিকিনি। তাই আনন্দে মুখর বিক্রেতারাও।




Update: 2016-02-12 18:02:39, Published: 2016-02-12 18:02:40

আপনার মন্তব্য লিখুন

পাঠকের মন্তব্য ( )


More News
  


আরও সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ



সরাসরি যোগাযোগ

৮৯, বীর উত্তম সি. আর. দত্ত রোড, ঢাকা ১২০৫, বাংলাদেশ।
ফ্যাক্স: +৮৮০২ ৯৬৭০০৫৭, ইমেইল: info@somoynews.tv
উপরে en.Somoynews.tv