আপডেট
১৫-০১-২০১৫, ২০:২৭
অন্যান্য সময়

মানবদেহ বৈচিত্র্য ভরা এক রহস্য!

মানবদেহ বৈচিত্র্য ভরা এক রহস্য!
মানবদেহ যে বৈচিত্র্যে ভরা এক রহস্য তা আবারও প্রমাণ করেছেন রাশিয়ার নাগরিক আলেক্সান্ডার।

সাধারণত আমরা নিজেরা ঘুরে পেছন দিকে তাকাই। কিন্তু অ্যালেক্সান্ডারের শরীর যেদিকমুখী থাকে, ঠিক তার উল্টো দিকে মাথা-মুখাবয়ব ঘোরাতে পারেন তিনি। অর্থাৎ তার শরীর অগ্রমুখী থাকলেও তিনি তার মাথা পশ্চাদমুখী করতে পারেন।

কিন্তু এই দুঃসাহসী কসরৎ কীভাবে দেখাতে পারেন অ্যালেক্সান্ডার? তিনি বলছেন, মাথা পেছন দিকে যতদূর ঘোরানো যায় সেই চর্চা অনেক আগে থেকেই শুরু করি আমি।

অ্যালেক্সান্ডার বলেন, বহু বছর জিমন্যাস্টিক চর্চার পরে আমি উপলব্ধি করি আমার শরীরের কশেরুকা খুবই নমনীয় হয়ে গেছে। তখন সিদ্ধান্ত নেই এই চর্চার। ধাপে ধাপে এগিয়ে এক পর্যায়ে আমার মাথা একদম পেছন দিকে নিতে সক্ষম হই।

রাশিয়ান এই বিস্ময় তরুণ বলেন, শুরুতে যখন চেষ্টা করি তখন সারা শরীরের শক্তি দরকার হতো আমার, সেই সঙ্গে শতভাগ মনোযোগ। মাঝে মাঝে অদ্ভুত শব্দ হতো। এক সময় আমি উপলব্ধি করলাম আমার চেষ্টা সফল এবং আমি কোনো ধরনের ব্যথা অনুভব করছি না।

অ্যালেক্সান্ডারের চিকিৎসক বলেন, গত ৩০ বছরের রেডিওলজিস্ট জীবনে মাথা ১৮০ ডিগ্রি ঘুরিয়ে ফেলার ঘটনা আমি দেখিনি। অ্যালেক্সান্ডারের এই সক্ষমতা সম্পূর্ণ ব্যতিক্রম। জন্মগতভাবেই এ ক্ষমতা পেয়ে থাকতে পারে সে। এটা একবারে সম্ভব নয় এবং চেষ্টা করাও উচিৎ নয়। কারণ এই চেষ্টায় ঘাড় ভেঙে যাওয়ার সমূহ সম্ভাবনা থেকে যায়।


 

সূত্র: বা.নি২৪




DMCA.com Protection Status

এই বিভাগের সকল সংবাদ

Contact Address

Nasir Trade Centre, Level-9,
89, Bir Uttam CR Dutta Road, Dhaka 1205, Bangladesh
Email: somoydigitalsomoynews.tv

Find us on

  Live TV DMCA.com Protection Status
উপরে