বিশ্বের বিভিন্ন দেশে বিক্ষোভ

Update: 2017-01-10 16:49:21, Published: 2017-01-10 16:49:23
world-pro-jpged

বিভিন্ন দাবিতে বিশ্বের কয়েকটি দেশে বিক্ষোভে ফেটে পড়েছে সাধারণ মানুষ। মেক্সিকো, তুরস্ক এবং ভারতে এ বিক্ষোভ হয়। এছাড়া, ইংল্যান্ডের লন্ডনে কর্মচারীদের ধর্মঘটের কারণে বন্ধ রয়েছে পাতাল ট্রেন চলাচল। এতে চরম ভোগান্তিতে পড়েছেন সাধারণ মানুষ।

সোমবার মেক্সিকোর বিভিন্ন শহরে গ্যাসের দাম বৃদ্ধির প্রতিবাদে রাস্তায় নেমে বিক্ষোভ করে কয়েকশো সাধারণ মানুষ। এসময় পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে গেলে সংঘর্ষ শুরু হয়। পরে শহরের বিভিন্ন গ্যাস ও তেলের পাম্প অবরোধ করে রাখে বিক্ষোভকারীরা।

আমরা এখানে শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভ করতে এসেছি। কিন্তু পুলিশ আমাদের ওপর হামলা করছে। সরকার কেন গ্যাসের দাম বৃদ্ধি করলো তা আমরা জানতে চাই। দেশের মানুষকে অসহায় করতেই গ্যাসের দাম বাড়ানো হয়েছে। আমরা এর প্রতিবাদ জানাতে এসেছি।

মেক্সিকোর সাধারণ মানুষের বিক্ষোভের মুখে মন্ত্রিপরিষদের সদস্যদের নিয়ে বৈঠক করেন দেশটির প্রেসিডেন্ট ইনরিক পেনা নিয়েতো। পরে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, গ্যাসের মূল্য বাড়ার কারণে অর্থনীতিতে কোনো প্রভাব পড়বে না।

মেক্সিকো প্রেসিডেন্ট ইনরিক পেনা নিয়েতো বলেন, 'দেশের অর্থনীতিকে ঢেলে সাজাতেই গ্যাসের দাম বাড়ানো হয়েছে। দেশের পিছিয়ে পড়া বিভিন্ন খাতের উন্নয়নে আমরা এই পদক্ষেপ গ্রহণ করেছি। বর্তমান পরিস্থিতির সাথে সামঞ্জস্য রেখেই গ্যাসের দাম বাড়ানো হয়েছে।'

তুরস্কে প্রেসিডেন্টের ক্ষমতা বাড়াতে সংবিধান সংশোধনের প্রস্তাবের বিরোধিতা করে বিক্ষোভ করেছে তুর্কি নাগরিকরা। সোমবার আঙ্কারায় বিক্ষোভকারীরা রাস্তায় নামলে পুলিশ তাদের বাধা দেয়। দেশটির প্রধান বিরোধী দল সিএইচপি ও কয়েকটি সামাজিক সংগঠন এ বিক্ষোভের ডাক দেয়। প্রেসিডেন্টের ক্ষমতা বাড়াতে সংবিধান সংশোধনে সরকারের একটি প্রস্তাব নিয়ে সংসদে বিতর্ক শুরু হলে এ বিক্ষোভের ডাক দেয়া হয়।

এদিকে, লন্ডনে টিউব-স্ট্রাইকের কারণে বন্ধ রয়েছে পাতাল ট্রেন চলাচল। এতে চরম ভোগান্তিতে পড়েছেন সাধারণ মানুষ। সোমবার পাতাল ট্রেনের জনবল বাড়ানোর দাবিতে টিকিট কাউন্টার বন্ধ করে ধর্মঘট পালন করে কর্মচারী ইউনিয়ন। শহরটিতে প্রতিদিন ৪০ লাখের বেশি মানুষ নিজ গন্তব্যে যেতে পাতাল ট্রেন ব্যবহার করে থাকে। ধর্মঘট অপ্রয়োজনীয় উল্লেখ করে এর তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন লন্ডনের মেয়র।

লন্ডনের মেয়র সাদিক খান বলেন, 'শুধু শুধু এ ধর্মঘটের ডাক দেয়া হয়েছে। সাধারণ মানুষকে ভোগান্তি দিয়ে এ ধরনের ধর্মঘটের কোনো মানে হয় না। ধর্মঘটের কারণে ব্যবসা-বাণিজ্যের ক্ষতি হচ্ছে। এছাড়া, বিপুল পরিমাণ রাজস্ব হারাচ্ছে সরকার।'

বকেয়া বেতন ও সুযোগ-সুবিধা বাড়ানোর দাবিতে ভারতের নয়াদিল্লির রাস্তায় নেমে বিক্ষোভ করেছে কয়েকশো পরিচ্ছন্নতাকর্মী। কাজ বন্ধ রাখায় শহরটির বিভিন্ন স্থানে আবর্জনার স্তুপ জমে থাকায় পরিবেশ দূষণের পাশাপাশি ছড়িয়ে পড়েছে দুর্গন্ধ। এতে চরম ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে পথচারীদের।




Update: 2017-01-10 16:49:21, Published: 2017-01-10 16:49:23

আপনার মন্তব্য লিখুন

পাঠকের মন্তব্য ( )


More News
  


আরও সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ


সর্বাধিক পঠিত (সাম্প্রতিক)


Contact Address

89, Bir Uttam CR Dutta Road, Dhaka 1205, Bangladesh.
Fax: +8802 9670057, Email: info@somoynews.tv
উপরে en.Somoynews.tv