বিশ্বকাপ-২০১৫তে ব্যাটিং-বোলিংয়ে সেরা যারা

Update: 2015-03-30 13:51:38, Published: 2015-03-30 13:51:38
wc-stat-ed


অস্ট্রেলিয়ার পঞ্চম শিরোপা উৎসব দিয়ে পর্দা নেমেছে এবারের বিশ্বকাপ আসরের। শুরুতে এটিকে ব্যাটসম্যানদের বিশ্বকাপ বলা হলেও বোলাররা দেখিয়েছেন তারাও কোন অংশে কম যান না। জেমস ফকনার, মিচেল স্টার্কদের পারফরমেন্সই তার প্রমাণ। ব্যাটিং স্বর্গে ব্যাটসম্যানদের বোকা বানিয়ে তারাই হয়েছেন ম্যাচ ও টুর্নামেন্ট সেরা। সর্বোচ্চ রান ও সর্বোচ্চ উইকেট সংগ্রাহকের কাছ থেকেও ক্রিকেটীয় বিনোদন পেয়েছে দর্শক-সমর্থকরা।

বিশ্বকাপের একাদশ তম আসর। ট্রান্স তাসমানিয়ান দীপপুঞ্জে অনুষ্ঠিত এবারের আসরে নিয়মিত হয়েছে রান উৎসব। তালিকায় সবার আগে বলতে হয় নিউজিল্যান্ডের মার্টিন গাপটিলের কথা। বিশ্বকাপ ইতিহাসে সর্বোচ্চ অপরাজিত ২৩৭ রানের ইনিংস হাঁকিয়ে তিনি আসরে ৯ ম্যাচ খেলে মোট সংগ্রহ করেছেন ৫৪৭ রান।

এই আসরের মধ্য দিয়েই ওয়ানডে ক্রিকেটকে বিদায় জানানো লঙ্কান ব্যাটিং স্তম্ভ কুমার সাঙ্গাকারা রয়েছেন ঠিক তার পরের অবস্থানেই। টানা ৪টি সেঞ্চুরির বিরল রেকর্ডের পাশাপাশি মোট ৫৪১ রান করেছেন সাঙ্গা। ৪৮২ রান নিয়ে দক্ষিণ আফ্রিকার এবি ডি ভিলিয়ার্স রয়েছেন এই তালিকায় ৩য় স্থানে। সেরা দশের তালিকায় ২টি ব্যাক টু ব্যাক সেঞ্চুরি করে বাংলাদেশের মাহমুদুল্লাহ রয়েছেন তালিকার ৯ম স্থানে।

শুধু ব্যাটসম্যানরাই নন। ব্যাটিং স্বর্গে আসর ব্যাটসম্যানদের হবে- বলে ধারণা করা হলেও তাদের সেই তেজের আগুনে পানি ঢেলে দিয়েছেন বোলাররা। প্রতিপক্ষের ডেরা ভেঙ্গে তারা করেছেন চূর্ণ-বিচূর্ণ। পুরো আসরে ৮ ম্যাচে ২২ উইকেট নিয়ে টুর্নামেন্ট সেরা হয়েছেন অজি বোলিং আক্রমণের অন্যতম প্রধান অস্ত্র মিচেল স্টার্ক। সেই সাথে পুরো আসরে ৩ দশমিক ৫০ ইকোনোমি নিয়ে সর্বোচ্চ উইকেট শিকারিও হয়েছেন তিনি। ইকোনোমির মতো তার গড়টাও চোখে পড়ার মতো। মাত্র ১০ দশমিক ১৮। যেখানে তার সেরা সাফল্য অকল্যান্ডে কিউইদের বিপক্ষে মাত্র ২৮ রানে ৪ উইকেট নেয়া। ১ ম্যাচ বেশি খেলে ২২ উইকেট নিয়ে আসরের ২য় সর্বোচ্চ উইকেট শিকারী, কিউই পেসার ট্রেন্ট বোল্ট। ১৮ উইকেট নিয়ে ভারতের উমেশ যাদব রয়েছেন এই তালিকার ৩য় স্থানে।

এদিকে,ফাইনালে ৩৬ রানে ৩টি উইকেট পকেটে পুরে ম্যাচ সেরা হয়েছেন অজি অলরাউন্ডার জেমস ফকনার। ফাইনালে কিউইদের বিপক্ষে ৯ ওভার বোলিং করে ১টি মেডেনও নিয়েছেন স্লগ ওভারে ক্লার্কে অন্যতম ভরসা এই অজি অলরাউন্ডার। যেখানে তার ইকোনোমি ছিলো মাত্র ৪ দশমিক ০০।

পরিসংখ্যান যাই বলুক, আবারো ক্রিকেটের এই রেকর্ড ভাঙ্গা-গড়া দেখতে আপাতত ৪ বছরের জন্য অপেক্ষা করতে হবে ক্রিকেট পিপাসুদেরকে।

Update: 2015-03-30 13:51:38, Published: 2015-03-30 13:51:38

আপনার মন্তব্য লিখুন

পাঠকের মন্তব্য ( 1 )

  • ইমরান : at 2015-09-10 13:19:43
    বাংলাদেশ এখন আগের বাংলাদেশ নয় বাংলাদেশ এখন যে কোন দলকে হারিয়ে দিতে পারে*সেটা প্রামান করেছে *ইমরান

More News
  


আরও সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ



সরাসরি যোগাযোগ

৮৯, বীর উত্তম সি. আর. দত্ত রোড, ঢাকা ১২০৫, বাংলাদেশ।
ফ্যাক্স: +৮৮০২ ৯৬৭০০৫৭, ইমেইল: info@somoynews.tv
উপরে en.Somoynews.tv