SOMOYNEWS.TV

১৬-১২-২০১৪, ০৬:৪৩

'বিজয়ের ৪৩ বছর পর প্রত্যাশা ও প্রাপ্তির মধ্যে অনেক ব্যবধান'

'বিজয়ের ৪৩ বছর পর প্রত্যাশা ও প্রাপ্তির মধ্যে অনেক ব্যবধান'
'বিজয়ের ৪৩ বছর পর বাংলাদেশের অগ্রগতি, উন্নয়ন, প্রত্যাশা ও প্রাপ্তি'। তরুণ প্রজন্মের মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে ভাবনা ও প্রত্যাশা। কোন দিকে যাচ্ছে বাংলাদেশ? দেশকে এগিয়ে নিতে তরুণ প্রজন্মের দেশ সম্পর্কে সচেতনতা ও করনীয় ইত্যাদি বিষয়ে সময় নিউজ.টিভির সঙ্গে খোলামেলা আলোচনা করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাস বিভাগের আন্তর্জাতিক ইতিহাসের অধ্যাপক ড. সৈয়দ আনোয়ার হোসেন।

সময় নিউজ.টিভি: বিজয়ের ৪৩ বছর পর কোন অবস্থায় দাঁড়িয়ে বাংলাদেশ?

ড. সৈয়দ আনোয়ার হোসেন: বাংলাদেশ অনেক এগিয়েছে কিন্তু প্রত্যাশা ও প্রাপ্তির মধ্যে অনেক ব্যবধান রয়েছে। যেভাবে দেশের অগ্রগতি হচ্ছে, সেটি যথার্থ নয়। অনেক সম্ভাবনা ছিলো এবং এখনো আছে। কিন্তু আমি মনে করি এই অগ্রগতি আশানুরূপ ভাবে এগুচ্ছে না, শুধুমাত্র যোগ্য নেতৃত্বের কারণে। একই সঙ্গে দূরদর্শী চিন্তাভাবনা না থাকাও একটি কারণ। এক্ষেত্রে বলা যেতে পারে '৭৫ সালের পর থেকে একটি দীর্ঘ সময় বাংলাদেশের একটি প্রজন্ম মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস জানতে বঞ্চিত হয়েছে। সেই সঙ্গে যোগ হয়েছে বিভিন্ন সময় ঘটে যাওয়া সামরিক অভ্যুত্থান ও রাজনৈতিক সংঘাত। এসব নানা কারণে দেশের একটি প্রজন্ম মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস থেকে অনেক দূরে।

সময় নিউজ.টিভি: মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে আমাদের তরুণদের ভাবনা বর্তমানে কোন অবস্থানে?

ড. সৈয়দ আনোয়ার হোসেন: আমি মনে করি তরুণরা এখনো মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস জানে না, কারণ এখন পর্যন্ত সঠিক ইতিহাস লেখা হয়নি। আমি বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক থাকাকালে সরকার উদ্যোগ নিয়েছিলো কিন্তু পরবর্তীতে সেটি নানা কারণে বন্ধ হয়ে যায়। এসব নানা কারণে তরুণরা এই ইতিহাস জানতে পারেনি। এক্ষেত্রে বিভিন্ন সময় ক্ষমতায় থাকা দলগুলো দায় এড়াতে পারে না। তাদের সদিচ্ছা থাকলে ৪৩ বছর পর হয়তো একথা বলতে হতো না। তবুও আমি আশাবাদী, কারণ ভবিষ্যৎ নেতৃত্ব এই তরুণদের মাঝ থেকেই উঠে আসবে।

সময় নিউজ.টিভি: যোগ্য নেতৃত্ব গড়ে তোলার ক্ষেত্রে রাজনৈতিক দলগুলোর দায় কতটুকু?

ড. সৈয়দ আনোয়ার হোসেন: নেতৃত্ব গড়ে তোলার কাজটি করার কথা রাজনৈতিক দলগুলোর কিন্তু তারা সেটি করছে না। তরুণদের দেশের নেতৃত্ব দেয়ার উপযোগী করে গড়ে তুলতে না পারলেতো ভবিষ্যতে চরম মূল্য দিতে হবে। সেইসঙ্গে দেশের অগ্রগতিও স্থবির হয়ে পড়বে। দেশ স্বাধীনের উদ্দেশ্য ছিলো একটি শোষণহীন সমাজ গড়া কিন্তু তরুণ প্রজন্মকে বাদ দিয়ে এটি সম্ভব নয়। দেশের প্রতি দায়বদ্ধতার জায়গাটি তরুণদের কাছে পরিষ্কার হওয়া দরকার। এজন্য সবচেয়ে কার্যকরী ভূমিকা পালন করতে পারে আমাদের রাজনৈতিক দলগুলো। আর দলগুলোর ভেতরে গণতন্ত্রের চর্চা থাকা জরুরি। কিন্তু আমাদের দেশর রাজনৈতিক দলগুলোর কাছে ক্ষমতায় যাওয়া ও থাকাটাই বড় ব্যাপার হয়ে দাঁড়িয়েছে।

সময় নিউজ.টিভি: এক্ষেত্রে নতুন প্রজন্মের দায়বদ্ধতা কতটুকু?

ড. সৈয়দ আনোয়ার হোসেন: দায়বদ্ধতা থাকতে হবে দেশের প্রতি, দেশের মানুষের প্রতি। আমাদের নতুন প্রজন্মের মধ্যে আত্মস্বার্থের ব্যাপারটি বেশি কাজ করে। এটিকে আমি একটি সামাজিক সঙ্কট বলবো। এই সামাজিক সঙ্কট দূর করতে নিজের দেশকে জানাটা জরুরি। দেশপ্রেম থাকতে হবে। কিন্তু দেশপ্রেমের সংজ্ঞাটাই আমাদের তরুণ প্রজন্মের কাছে অ-সংজ্ঞায়িত। দেশকে জানা এবং দেশের প্রতি অবদান রাখাটাই দেশপ্রেম। এটি তরুণদের বুঝতে হবে। এটি তাদের বোঝাতে চাই সঠিক রাজনৈতিক নেতৃত্ব।

সময় নিউজ.টিভি: কি রকম দেখতে চান ‘ভবিষ্যৎ বাংলাদেশ’?

ড. সৈয়দ আনোয়ার হোসেন: আমি আশাবাদী, বাংলাদেশ একদিন এই তরুণদের হাত ধরেই এগুবে। সঠিক তরুণ নেতৃত্ব, বাংলাদেশকে এগিয়ে নেবে বহুদূর। আমাদের দেশে '৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধ করেছিল সাধারণ মানুষ। সে সময় বহু তরুণ জীবন বাজি রেখে যুদ্ধ করেছে, শুধুমাত্র দেশকে স্বাধীন করার জন্য। যে দেশ রক্তক্ষয়ী ৯ মাসের যুদ্ধে এতো ত্যাগের বিনিময়ে স্বাধীনতা অর্জন করেছে, সে দেশ একদিন পৃথিবীতে মাথা উঁচু করে দাঁড়াবেই। মুক্তিযুদ্ধ আমাদের একটি গৌরবজনক অর্জন, যেটি পৃথিবীতে বিরল।

এই বিভাগের সকল সংবাদ

...

সর্বশেষ সংবাদ

পর্যাপ্ত প্রশিক্ষণ পেলে দেশীয় কোচরা আন্তর্জাতিক অঙ্গনে ভাল করবে স্বামীর পরকীয়ার তথ্য ফাঁস করলেন মিলা (ভিডিও) ছিনতাইকালে হাতেনাতে ধরা পুলিশ কর্মকর্তা ইউটিউবেও হিট 'ঢাকা অ্যাটাক' পারলেন না আব্দুল্লাহেল বাকি, জুনিয়র বিভাগে স্বর্ণ জিতেছেন রবিউল ইসলাম যুক্তরাষ্ট্রে গুলিতে তিনজন নিহত জেনে নিন কিভাবে ব্যাংকে নতুন হিসাব খুলবেন চতুর্থ ধনী ক্রিকেট কোচ হাথুরুসিংহে আসছে 'মিস্টার ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ', আপনি তৈরি তো! স্কলারশিপের জন্য কী কী করবেন? রাতে মাঠে নামছে আর্সেনাল খেলোয়াড় তৈরিতে ক্লাবগুলোকে দায়িত্ব নিতে হবে: সালাউদ্দিন তালেবানের হামলায় ৪০ আফগান সেনা নিহত উন্মুক্ত হলো স্যামসাং এর নতুন ৩৬০ রাউন্ড ক্যামেরা আবু ধাবিতে লঙ্কানদের বিপক্ষে পাকিস্তানের সহজ জয় চার তারকার গোলে পিএসজির জয়, স্বরূপে ফিরেছে বায়ার্ন হোল্ডিং ট্যাক্স নিয়ে আতঙ্কে ঢাকার বাসিন্দারা দুলাভাইয়ের হাতেই খুন ভারতীয় গায়িকা ২ মিনিটেই পেয়ে যাবেন গোলাপি ঠোঁট রসুন খান, রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ান কেন খাবেন জিরা পানি জয় পেতে মরিয়া বাংলাদেশের সামনে চীন প্রবাসীরা নতুন প্রজন্মের উন্নয়নে ভূমিকা রাখবে: এনায়েত উল্লাহ মুচলেকা দিয়ে জামিন পেলেন খালেদা জিয়া চালু হলো 'পেপ্যাল জুম' সার্ভিস বিড়ালরূপী শিশুর সন্ধান! কিশোরগঞ্জে জলমহালে বিষ প্রয়োগে কোটি টাকার মাছ নিধন নিরাপদ পানি সরবরাহে 'ডেল্টা প্লান-২১০০' বাস্তবায়ন চায় সরকার রোহিঙ্গা সমস্যা পর্যটন খাতকে ঝুঁকিতে ফেলতে পারে নোম্যান্স ল্যান্ডে অপেক্ষমাণ রোহিঙ্গাদের আশ্রয় কেন্দ্রে নেয়া হয়েছে বাসায় তৈরি করুণ ঠাণ্ডা ঠাণ্ডা 'নারিকেল কুলফি' হাদিসের অপব্যবহার রুখতে সৌদিতে ধর্মীয় কর্তৃপক্ষ গঠন ডিবি পরিচয়ে ছিনতাই, পালানোর সময় আটক ৬ 'একজন ভিলিয়ার্সের কাছেই হেরেছে বাংলাদেশ' রোহিঙ্গা নির্যাতন গণহত্যায় সংজ্ঞায়িত হতে পারে: জাতিসংঘ চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কে ভাড়া নিয়ে চলছে নৈরাজ্য বাইসাইকেল রপ্তানিতে অপার সম্ভাবনা শিশুদের বিপদে 'স্মার্টওয়াচ, রয়েছে হ্যাকিংয়ের ঝুঁকি বেড়ে উঠতে শিশুর প্রয়োজন সঠিক পুষ্টি নো ম্যানস ল্যান্ডে আটকা হাজার হাজার রোহিঙ্গা '২০১৮'র মধ্যে ৯৫ ভাগ বিদ্যালয়ে নতুন ভবন নির্মাণ হবে' মেসির সেঞ্চুরি ১৯ অক্টোবর, ২০১৭ আজ বৃহস্পতিবারের রাশিফল নির্বাচনকালীন বিভিন্ন ইস্যুতে দুই দলের অবস্থান দুই মেরুতে কানাডায় নারীদের নিকাব নিষিদ্ধ নারী ধূমপায়ীদের তালিকায় শীর্ষে বাংলাদেশ স্বামীকে হত্যার অভিযোগে স্ত্রীকে পুলিশে দিলো এলাকাবাসী মাদারীপুরের ঐতিহ্যবাহী 'কুণ্ডুবাড়ি মেলা' শুরু নাভিতে তেল ব্যবহারের উপকারিতা ইয়ং বাংলার হাওয়ায় বদলে গেছে দেশের প্রত্যন্ত জনপদ মেসি জাদুতে বার্সার জয় নিষেধাজ্ঞা সত্ত্বেও যমুনা নদীতে বন্ধ হচ্ছে না ইলিশ ধরা গাইবান্ধায় গৃহবধূর গলাকাটা লাশ উদ্ধার নিখোঁজের চার দিন পর নারী এনজিও কর্মীর লাশ উদ্ধার বিশ্বের সর্ববৃহৎ শরণার্থী ক্যাম্প হবে বাংলাদেশে বিসিএসে প্রথম হলেন কুমিল্লার মেয়ে ডা. আলো পদোন্নতি পেলেন পুলিশের আরো ১৫ ডিআইজি ইলিশের স্যুপ ও নুডলস! দীপিকার জন্য 'পাত্র চাই' দক্ষিণ কোরিয়া যাচ্ছেন ট্রাম্প মানিকগঞ্জে শুরু হয়েছে বঙ্গবন্ধু-বঙ্গমাতা ফুটবল টুর্নামেন্ট ফেনীতে শুরু হয়েছে গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট খালেদাকে গ্রেফতার করা আইন শৃঙ্খলা রক্ষা বাহিনীর বিষয়: কাদের রাজধানীতে গোপন বৈঠককালে ছাত্রী সংস্থার ২২ জন আটক শাহপরী দ্বীপ দিয়ে রোহিঙ্গা ঢল অব্যাহত ২৭ বছর পর ইরাকে অবতরণ করল সৌদি বিমান আওয়ামী লীগের প্রস্তাব ইতিবাচক মনে করে ইসি : সেতুমন্ত্রী পার্লে হেরেছে বাংলাদেশ, জিতেছে সমর্থকরা আবারো বড় হারের লজ্জা ঢাকায় ৩ দিনের তথ্যপ্রযুক্তি প্রদর্শনী চলছে মধ্য আফ্রিকায় ৯০০ শান্তিরক্ষী চান : জাতিসংঘের মহাসচিব প্রধানমন্ত্রীর অতিরিক্ত প্রেস সচিব হলেন নজরুল ইসলাম "লংগদু হামলায় ক্ষতিগ্রস্থদের সাহায্যার্থে" প্রদর্শনীর আয়োজন হঠাৎ ছন্দপতন রাসেলের জন্মদিনে ধানমন্ডিতে মিলাদ মাহফিল সৌদি কাতারে সরকার পরিবর্তনের চেষ্টা করছে : কাতারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী নেপালে চলছে 'কুকুর উৎসব' ভাবির অভিযোগে জেল হতে পারে যুবরাজের ডাবের পানিতে ওজন বৃদ্ধি! আইফোন-৮ কিনতে সতীত্ব বিক্রি! ছাত্রদের সঙ্গে একই হলে থাকতে আন্দোলনে ছাত্রীরা খাবারের সঙ্গী যখন আয়না! রোহিঙ্গাদের কুতুপালং ক্যাম্পের হস্তান্তর করা হবে: মায়া সিলেট ছাত্রলীগ কর্মী খুনের আসামী গ্রেফতার খেলার মাঠ থেকে প্রেসিডেন্ট, রাজনীতিবিদ কিংবা অভিনেতা! আ.লীগ ১১ দফা প্রস্তাবের সাথে বাস্তবের কোনো মিল নেই: মওদুদ পিরোজপুরে কিশোরী ধর্ষণের মামলায়, এক নারী গ্রেফতার কুষ্টিয়ায় চুরি হওয়া নবজাতকের লাশ উদ্ধার বিশ্বের বৃহত্তম বইমেলায় জায়গা করে নিল বাংলাদেশ একি কাজ করলেন 'বাবা সন্তোষ দাস' রোহিঙ্গা সমস্যা মিয়ানমার-বাংলাদেশকে আলোচনায় বসাতে চেষ্টা চালাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র: বার্নিকাট ‘মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনা ও আইন মেনেই গৃহকর নির্ধারণ করা হয়েছে’ টাইগারদের সামনে কঠিন লক্ষ্য দেশে ফিরেছেন খালেদা জিয়া কর আদায়ের প্রক্রিয়াকে আরো সহজ করার দাবি ড. নুরুজ্জামানের গাজীপুরে বকেয়া বেতনের দাবিতে শ্রমিকদের অবরোধ সিলেটের পরিবহন ধর্মঘট প্রত্যাহার জন্মদিনে তাহসানের 'ছায়ানীল' অধিক শোকে পাথর মাশরাফি চীন পরাশক্তি, অন্যের পররাষ্ট্রনীতি অনুসরণ করবেনা: শি জিনপিং


Contact Address

Nasir Trade Centre, Level-9,
89, Bir Uttam CR Dutta Road, Dhaka 1205, Bangladesh.
Fax: +8802 9670057, Phone: +88029670058,
Email: somoydigital@somoynews.tv

Find us on

  Live TV
উপরে