বাহারছড়া সমুদ্র সৈকত: প্রকৃতির অদেখা রূপ

Update: 2016-04-01 07:45:47, Published: 2016-04-01 07:45:47
ctg-beach


দেশের অন্যতম একটি সম্ভাবনাময় পর্যটন অঞ্চল চট্টগ্রামের বাঁশখালী। যার উত্তরে শঙ্খনদী, দক্ষিণে পেকুয়া, এবং পশ্চিম সীমান্ত বঙ্গোপসাগর সীমারেখায় অবস্থিত। পাহাড় থেকে শুরু করে প্যারাবন ও ঝাউবনে ছেয়ে থাকা সমুদ্র, ৩৯২ কি.মি. এর এই অঞ্চলে কি নেই।

নীরবে নিভৃতে প্রকৃতির অপার সৌন্দর্যের স্বাদ নিতে অনেক ভ্রমণ পিপাসুরা ছুটে আসেন এখানে। বলছি বাহারছড়া সমুদ্র সৈকতের কথা। যা কিনা পর্যটন স্পট হিসেবে গড়ে তুলতে প্রয়োজন, সরকারি পৃষ্ঠপোষকতা।

উপকূলীয় অঞ্চলের ৩১ কি.মি. এলাকাজুড়ে রয়েছে পাহাড় ও বনাঞ্চল। আছে জলকদর খাল, ফলে পূর্ব ও পশ্চিমের বিশাল এলাকা জুড়ে চোখে পড়বে সোনালী ধানের ক্ষেত। এসব পেরুলেই দেখা মিলবে মাথা উঁচু করে দাঁড়ানো ঝাউবন ঘেঁষা বেড়িবাঁধের।

উপজেলার এই উত্তর-দক্ষিণ অংশ জুড়ে বালুকাবেলা, রয়েছে প্রায় ৩৭ কি.মি দীর্ঘ বিস্তৃত সমুদ্র সৈকত। অনেকের দেখা না মিললেও বাহারছড়ার এই সমুদ্র সৈকতে কেউ কেউ আসেন, তীর ভাঙ্গা ঢেউ আর সাগর জলে ভাসা জেলে নৌকায় দীপ জ্বলা সন্ধ্যার সুধা পান করতে।

দর্শনার্থীদের পাশাপাশি এখানে বেড়াতে আসেন স্থানীয়রাও। পর্যটকদের মতে, অন্যান্য সমুদ্র সৈকতের তুলনায় এই সৈকত অনেকটাই নীরব। একই আঙ্গিনায় পাশাপাশি দেখা মিলবে পাহাড়ি অঞ্চল, উপকূল ঘেঁষা উর্বর সমতল।

প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের অপার লীলাভূমি বাংলাদেশ। যার আনাচে-কানাচে ছড়িয়ে-ছিটিয়ে আছে হাজারও দর্শনীয় স্থান এবং অদেখা জায়গা। ঠিক তেমনি একটি জায়গা হচ্ছে চট্টগ্রামের বাঁশখালী উপজেলার বাহারছড়ার এ সমুদ্র সৈকত। বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ড এবং পর্যটন করপোরেশনের সহযোগিতা পেলে এই জায়গাটিও হয়ে উঠতে পারে অন্যান্য স্থানগুলোর মতোই একটি দর্শনীয় স্থান।




Update: 2016-04-01 07:45:47, Published: 2016-04-01 07:45:47

আপনার মন্তব্য লিখুন

পাঠকের মন্তব্য ( )


More News
  


আরও সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ



সরাসরি যোগাযোগ

৮৯, বীর উত্তম সি. আর. দত্ত রোড, ঢাকা ১২০৫, বাংলাদেশ।
ফ্যাক্স: +৮৮০২ ৯৬৭০০৫৭, ইমেইল: info@somoynews.tv
উপরে en.Somoynews.tv