আপডেট
২৮-০৭-২০১৫, ০৭:২১

বর্ণিল সৌন্দর্যে ঘেরা হবিগঞ্জের সাতছড়ি

sathchori
আকাশ ছোঁয়া বিশাল বৃক্ষরাজির নৈসর্গিক সৌন্দর্য। বর্ণিল নানা প্রজাতির পাখির ডাক। প্রাণীকুলের দৌড়ঝাঁপ। সবকিছুর দেখা মিলে হাজার বছরের পুরানো ঐতিহ্যের জাতীয় উদ্যান- হবিগঞ্জের সাতছড়িতে। এই উদ্যানে রয়েছে ত্রিপুরা আদিবাসীর বসবাস। পাখি প্রেমীদের জন্য এই বন একটি স্বর্গভূমি। পর্যটক আকৃষ্ট করার মতো সবই আছে এই জাতীয় উদ্যানে। তবে, অবকাঠামোসহ নানা দিক দিয়ে পিছিয়ে রয়েছে এই উদ্যান।
শিল্পীর তুলির আঁচড়ে ক্যানভাসে আঁকা কোন দৃশ্য নয়। প্রকৃতি এভাবেই তার সর্বোচ্চ রূপের বিকাশ ঘটিয়েছে সাতছড়ি জাতীয় উদ্যানে। হবিগঞ্জের চুনারুঘাট উপজেলায় অবস্থিত সাতটি ছড়া নিয়ে সাতছড়ি বনাঞ্চল।

২০০৫ সালে ২'শ ৪৩ হেক্টরের এই বনাঞ্চলকে জাতীয় উদ্যান ঘোষণা করা হয়। হাজারো বছরের পুরানো আকাশসম বৃক্ষ, বিভিন্ন প্রজাতির বানর ও বন্যপ্রাণী আর পাখির কলকাকলিতে মুখরিত থাকে এই উদ্যান। পাখির প্রেমে দেশ-বিদেশে ঘুরে বেড়ান পাখী বিশেষজ্ঞ ইনাম আল হকের দেখা মেলে এই বনে।   

বছর জুড়েই এই উদ্যানে কমবেশি পর্যটকদের আনাগোনা লক্ষণীয়। সাতছড়ি জাতীয় উদ্যানের ভেতরে তিনটি পায়ে হাঁটার পথ, পর্যটন টাওয়ার, শেড নির্মাণসহ নানা কাজ চলছে। উদ্যানে রয়েছে একটি রেস্টহাউস। তবে তথ্যকেন্দ্র ও অভ্যর্থনা কক্ষসহ অন্যান্য অবকাঠামোগুলো জরাজীর্ণ অবস্থায় পড়ে রয়েছে। নেই বিদ্যুৎ। আর পর্যটকদের নিরাপত্তার জন্য পর্যটক পুলিশ সাইনবোর্ডেই সীমাবদ্ধ।

তবে, পর্যটকদের নিরাপত্তার জন্য সর্বোচ্চ ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস দিলেন সিলেট বিভাগের ডিআইজি অব পুলিশ মোঃ মিজানুর রহমান। এই উদ্যানে ১'শ ৪৯ প্রজাতির পাখি, ২৪ প্রজাতির স্তন্যপায়ী, ১৮ প্রজাতির সরীসৃপ এবং ৬ প্রজাতির উভচর প্রাণী আছে। রয়েছে ২৪ পরিবারের ত্রিপুরা আদিবাসী গ্রাম। ঢাকা থেকে সাতছড়ির দূরত্ব একশো ৩০ কিলোমিটার। আর সিলেট থেকে একশো ৪০ কিলোমিটার।




DMCA.com Protection Status

এই বিভাগের সকল সংবাদ

Contact Address

Nasir Trade Centre, Level-9,
89, Bir Uttam CR Dutta Road, Dhaka 1205, Bangladesh
Email: somoydigitalsomoynews.tv

Find us on

  Live TV DMCA.com Protection Status
উপরে