আপডেট
৩০-১২-২০১৫, ১১:৪৭

পৌর নির্বাচন কয়েকটি স্থানে বিচ্ছিন্ন সংঘর্ষ, কেন্দ্র দখল-পাল্টা দখলের অভিযোগ

dhaka-vote
সারাদেশে সাড়ে ৩ হাজার কেন্দ্রের মধ্যে ৩৮টির মতো কেন্দ্র থেকে বিক্ষিপ্ত সংঘর্ষের খবর পাওয়া গেছে। অধিকাংশ স্থানে সংঘর্ষ হয়েছে কাউন্সিলর প্রার্থীর কর্মী-সমর্থকদের মধ্যে। এর মধ্যে চট্টগ্রামের সাতকানিয়ায় দুই কাউন্সিলর প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষে একজন নিহত হয়েছেন। এছাড়া অন্য নির্বাচনী এলাকায় সংঘর্ষে ৩ সাংবাদিকসহ আহত হয়েছে অর্ধশতাধিক। এছাড়া ব্যালট পেপার ছিনতাইসহ বিভিন্ন অভিযোগে ৫০টি কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ স্থগিত করা হয়েছে। এবং সংঘর্ষের কারণে নরসিংদীর মাধবদী পৌরসভার ভোট বাতিল ঘোষণা করা হয়।
বরগুনা: বরগুনা পৌরসভার গগন মেমোরিয়াল বিদ্যালয় কেন্দ্রে দুই মেয়রপ্রার্থীর সমর্থকের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বুধবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে আওয়ামী লীগের মেয়রপ্রার্থী কামরুল আহসানের কর্মীরা ব্যালট পেপার ছিনতাইয়ের চেষ্টা করে। এসময় বিএনপি প্রার্থী নজরুল ইসলামের সমর্থকরা বাধা দিতে গেলে সংঘর্ষ শুরু হয়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পুলিশ ও বিজিবি সদস্যরা ধাওয়া দিলে সংঘর্ষ ত্রিমুখী রূপ নেয়। প্রায় আধা ঘণ্টার সংঘর্ষে বরগুনা সদর থানার ওসি ও সময় টেলিভিশনের ক্যামেরাপারসন সহ অন্তত ২৫ জন আহত হন। এ ঘটনার পর আওয়ামী লীগের মেয়রপ্রার্থী কামরুল আহসান ভোট বর্জনের ঘোষণা দেন।

টাঙ্গাইল: টাঙ্গাইলের ভুয়াপুর পৌরসভার সরকারি মডেল প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে, দুই মেয়রপ্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষে অন্তত ৭ জন আহত হন। এ ঘটনায় তাৎক্ষনিকভাবে ৩ জনকে আটক করে ৭ দিনের কারাদণ্ড দেন ভ্রাম্যমান আদালত। এছাড়া ভুয়াপুরের বাহাদীপুর কেন্দ্রেও দুই প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষে অন্তত ৭ জন আহত হন।

চট্টগ্রাম সাতকানিয়া: চট্টগ্রামের সাতকানিয়ায় ২ কাউন্সিলর প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ হয়ে নুরুল ইসলাম নামে একজন নিহত হন। ভোটগ্রহণ শুরুর ২ ঘণ্টা পর এ ঘটনা ঘটে বলে জানায় পুলিশ।

চট্টগ্রাম চন্দনাইশ: ব্যালট পেপার ছিনতাইয়ের অভিযোগে চট্টগ্রামের চন্দনাইশ পৌরসভার ২টি কেন্দ্র ভোটগ্রহণ স্থগিত করা হয়। জেলা প্রশাসক জানান, ভোট গ্রহণ শুরুর ২ ঘণ্টা আগেই পৌরসভার গাছবাড়িয়া এন জে উচ্চ বিদ্যালয় এবং আফলাতুন ফোরকানিয়া মাদ্রাসা কেন্দ্র দখল জাল ভোট দিতে শুরু করে দুর্বৃত্তরা। এ ঘটনার পর পরই কেন্দ্রগুলোর ভোট গ্রহণ স্থগিত করা হয়।

পাবনা: পাবনার সুজানগর পৌরসভার ভবানীপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে দুই মেয়রপ্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া ও ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। প্রায় ১৫ মিনিট সংঘর্ষ চলার পর বিজিবি এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। সংঘর্ষে অন্তত ১০ জন আহত হন।


পটুয়াখালী: পটুয়াখালীর কুয়াকাটা পৌরসভার পাঞ্জুপাড়ায় দুই মেয়রপ্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষে অন্তত ৭ জন আহত হন। এ ঘটনায় ভোটবাক্স ভাংচুর করায় ভোটগ্রহণ স্থগিত করেন নির্বাচন কমিশন।

যশোর: যশোর পৌরসভার পুলিশ লাইন স্কুল কেন্দ্রে সকালে ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ায় কিছুক্ষণের জন্য ভোটগ্রহণ বন্ধ রাখা হয়। একই পৌরসভার আলিয়া মাদ্রাসা কেন্দ্র থেকে নিজের পোলিং এজেন্টকে বের করে দেয়ার অভিযোগ করেন আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী। এছাড়া অনিয়মের অভিযোগে বাতিল করা হয় যশোর এমএম কলেজ কেন্দ্রের ফলাফল।

নরসিংদী: নরসিংদী পৌরসভায় বেশ কয়েকটি কেন্দ্রে মেয়র-কাউন্সিলর প্রার্থী ও তাদের সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। সংঘর্ষের এক পর্যায়ে বাতিল করা হয় নরসিংদীর মাধবদী পৌরসভার ভোটগ্রহণ।

এছাড়া বাগেরহাট, সাভার, মানিকগঞ্জ ছাড়াও এবারের নির্বাচনে অন্তত ২০টি পৌরসভায় হট্টগোলের খবর পাওয়া গেছে। আর এসব ঘটনায় দায়িত্বে অবহেলার অভিযোগে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর অন্তত ৯৫ সদস্যকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।




DMCA.com Protection Status

এই বিভাগের সকল সংবাদ

Contact Address

Nasir Trade Centre, Level-9,
89, Bir Uttam CR Dutta Road, Dhaka 1205, Bangladesh
Email: somoydigitalsomoynews.tv

Find us on

  Live TV DMCA.com Protection Status
উপরে