আপডেট
২২-১২-২০১৬, ০৯:৩০

নির্বাচনে জয়-পরাজয়ে প্রধান নিয়ামক, দলনিরপেক্ষ ভোটার

vote-factor-jpg-ed
নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে শেষ মুহুর্তে ভোটের হিসাব কষছেন নগরবাসী। মেয়র পদে আওয়ামী লীগ ও বিএনপির দুই হেভিওয়েট প্রার্থীকে নিয়েই সমস্ত জল্পনা-কল্পনা। নাগরিক সমাজ বলছে, মেয়র পদে জয়-পরাজয়ে প্রধান নিয়ামক হবে দলনিরপেক্ষ প্রায় ৪০ ভাগ ভোটার।
আর ব্যবসায়ী নেতাদের দাবি, শিল্পনগরী হওয়ায় ব্যবসায়ী ও শ্রমিক ভোটাররাই মুখ্য ভূমিকা রাখবে। তবে কারো কারো মতে, নতুন ও নারী ভোটারের ওপর নির্ভর করছে কে হবেন পরবর্তী মেয়র।

একসময় পাটের বাণিজ্যের জন্য পরিচিত হলেও বর্তমানে নিট গার্মেন্টস ও হোসিয়ারি শিল্পের জন্য সুপরিচিত নারায়ণগঞ্জ। তবে ব্যবসা-বাণিজ্য ছাপিয়ে সবার চোখ এখন সিটি নির্বাচনের দিকে। কে হচ্ছেন পরবর্তী মেয়র- এমন আলোচনাই সর্বত্র।

নির্বাচনী বিধি মেনে দিন পনেরো মাঠ চষে বেড়িয়েছেন আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী সেলিনা হায়াৎ আইভী ও বিএপির অ্যাডভোকেট সাখাওয়াত হোসেন খান। ভোটারদের দ্বারে দ্বারে ঘুরে দিয়েছেন উন্নয়নের নানা প্রতিশ্রুতি। প্রার্থীদের সাথে নগরের অলিগলি ঘুরে বেড়িয়েছেন দুই দলের কেন্দ্রীয় নেতারাও।

আর প্রচারণা শেষে এখন চলছে জয়-পরাজয়ের হিসেব। নাগরিক সমাজের প্রতিনিধিরা বলছেন, আওয়ামী লীগ বিএনপির বাইরে থাকা দলনিরপেক্ষ ভোটাররাই নির্ধারণ করবে নগরভবনের দায়িত্ব যাচ্ছে কারহাতে।

তবে এ ব্যবসায়ী নেতা মনে করেন, নারায়ণগঞ্জের সিংহভাগ মানুষই প্রত্যক্ষ ও পরেক্ষভাবে ব্যবসার সাথে জড়িত। তাই ব্যবসায়ী ও শ্রমিক ভোটাররাই হবে প্রধান নিয়ামক।


নাগরিক সমাজের কেউ কেউ বলছেন, নারী ভোটারের পাশাপাশি এ নির্বাচনের মেয়রপদের ভাগ্য নির্ধারণ করবে ৭০ হাজার নতুন ভোটার।

নগরের অভিভাবক বাছাইয়ে শান্তিপূর্ণভাবে নিজেদের ভোটাধিকার প্রয়োগের প্রত্যাশা সাধারণ ভোটারদের।




DMCA.com Protection Status

এই বিভাগের সকল সংবাদ

Contact Address

Nasir Trade Centre, Level-9,
89, Bir Uttam CR Dutta Road, Dhaka 1205, Bangladesh
Email: somoydigitalsomoynews.tv

Find us on

  Live TV DMCA.com Protection Status
উপরে