• সদ্যপ্রাপ্তমৌলভীবাজারের বড়হাট ও ফতেহপুরে জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে দুইটি বাড়ি ঘিরে রেখেছে কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিট। ফতেহপুর এলাকার আশেপাশে গুলির শব্দ

জীবন্ত আগ্নেয়গিরি মাউন্ট ফুজির সৌন্দর্যে মুগ্ধ পর্যটকরা

Update: 2016-06-10 10:02:01, Published: 2016-06-10 10:02:01
mount-fuji

যেকোনো সময় জেগে উঠতে পারে জাপানের ভয়ঙ্কর আগ্নেয়গিরি মাউন্ট ফুজি। বিরান করে দিতে পারে বিস্তীর্ণ এলাকা। তবে এ জন্য ভীত নয় জাপানিরা। প্রতিদিন শুধু জাপানিরা নয় বিভিন্ন দেশের হাজার হাজার পর্যটক জীবন্ত আগ্নেয়গিরি মাউন্ট ফুজির ভয়ঙ্কর সৌন্দর্য দেখতে ছুটে আসে।

জাপানী ভূগোলবিদদের মতে, এ পর্যন্ত মাউন্ট ফুজির আশপাশে বড় তিনটি আগ্নেয়গিরির উদগীরণের ঘটনা ঘটেছে। এর মধ্যে প্রথমটি খ্রিষ্টপূর্ব ৬৬৩ সালে ও সবশেষটি হয়েছে ১৭০৭ সালের ১৬ ডিসেম্বর। এই উদগীরণের ফলে অন্তত ৫০ বর্গ কিলোমিটারের বেশি এলাকা ধ্বংসস্তূপে পরিণত হয়েছিলো। এমনকি ১শ' কিলোমিটার দূরে টোকিও শহরে ছড়িয়ে পড়েছিলো এর ছাই। কিন্তু কালক্রমে এ আগ্নেয়গিরি মাউন্ট ফুজি হয়ে উঠেছে এখন জাপানের অন্যতম প্রধান পর্যটন কেন্দ্র।

জাপানের টুরিস্ট গাইড প্রতিষ্ঠানগুলোর হিসেব অনুযায়ী, প্রতি বছর অন্তত ৫ লাখ দেশি-বিদেশি পর্যটক আসে আগ্নেয়গিরি মাউন্ট ফুজি দেখার জন্য। আর একই সময়ে ৩০ হাজার পর্বতারোহী মাউন্ট ফুজি জয় করে।

জাপানের যে কোনো স্থান থেকে মাউন্ট ফুজি দেখতে অতিক্রম করতে হবে অন্তত ছোট-বড় ৫০টি টানেল। ৩ হাজার ৭শ' ৭৬ মিটার উচ্চতার এ মাউন্ট ফুজি দেখার জন্য সাধারণ পর্যটকদের গাড়িতে করে ২ হাজার ৩০৫ মিটার পর্যন্ত আসতে দেয়া হয়। বাকি পথ পাড়ি দিতে গেলে পূর্ব অনুমতি নিয়ে পাহাড় বেয়েই যেতে হবে। 

মাউন্ট ফুজিকে স্থানীয়ভাবে তিন নামে অভিহিত করা হয়। এর মধ্যে মাউন্ট ফুজি নামটি সবচেয়ে বেশি জনপ্রিয়। যার অর্থ ইউনিক বা অদ্বিতীয়। ২০১৩ সালে ইউনসেকো মাউন্ট ফুজিকে বিশ্ব ঐতিহ্য হিসেবে ঘোষণা করে।

Update: 2016-06-10 10:02:01, Published: 2016-06-10 10:02:01

আপনার মন্তব্য লিখুন

পাঠকের মন্তব্য ( )


More News
  


আরও সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ


সর্বাধিক পঠিত (সাম্প্রতিক)


Contact Address

89, Bir Uttam CR Dutta Road, Dhaka 1205, Bangladesh.
Fax: +8802 9670057, Email: info@somoynews.tv
উপরে en.Somoynews.tv