আপডেট
২৫-০২-২০১৭, ০৯:০৫

ঘুষ না দিলে মেলে না পুলিশ ভেরিফিকেশন

pass-very-11-copy
পাসপোর্ট করাতে ভেরিফিকেশনের নামে কিছু সংখ্যক পুলিশের ঘুষ নেয়ার প্রবণতা চরম পর্যায়ে পৌছেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। সঠিক যাচাই বাছাই না করেই অর্থের বিনিময়ে প্রদান করা হচ্ছে পুলিশ রিপোর্ট। ফলে অনেক ক্ষেত্রে প্রকৃত অপরাধীরাও পেয়ে যাচ্ছে পাসপোর্ট। পুলিশের এ ধরনের কর্মকাণ্ডে সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদী ও অপরাধীরা দেশ ছাড়ার সুযোগ পাচ্ছে বলে মত অপরাধ বিশ্লেষকদের। সুনির্দিষ্ট অভিযোগ পাওয়া গেলে ব্যবস্থা নেয়ার পাশাপাশি বেশ কিছু পদক্ষেপের কথা জানিয়েছে মন্ত্রণালয়। বিদেশ গমনেচ্ছু প্রত্যেকেরই অপরিহার্যভাবে প্রয়োজন পাসপোর্টের। প্রথমবার পাসপোর্ট করাতে ব্যাংকে নির্দিষ্ট পরিমাণ টাকা ও পাসপোর্ট অফিসে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র জমা দেবার পর আর কোথাও কোন টাকা না দেয়ার কথা থাকলেও তদন্তকারী পুলিশকে টাকা না দিলে হচ্ছে না ভেরিফিকেশন। ক্ষেত্র বিশেষে এক হাজার থেকে চার হাজার টাকাও হাঁকছেন কোন কোন পুলিশ কর্মকর্তা।

পাসপোর্টের পুলিশ ভেরিফিকেশনে টাকা লাগে কিনা মুঠোফোনে এমন প্রশ্নের জবাবে অফিস খরচ সহ ভিত্তিহীন বিভিন্ন বিষয় বোঝানোর চেষ্ঠা করলেন একজন তদন্ত কর্মকর্তা। তিনি বলেন, 'এটা সবার জন্যেই লাগে এটা একটা স্বাভাবিক ব্যপার। সবাই যাওয়ার সময় খরচ দিয়ে যায়।' পাসপোর্ট হাতে পাওয়া অনেক সাধারণ মানুষও জানিয়েছেন তদন্তকারী কর্মকর্তাকে টাকা দেয়ার কথা।

একজন ভুক্তভোগী বলেন, 'পুলিশের কাছে গিয়েছিলাম।তখন আমাদের কাছে ১০০০ টাকা চেয়েছিল। কম নেয়ার কথা বললে এটা ছাড়া হবে না বলেন তারা।' দেশের বর্তমান প্রেক্ষাপটে এক শ্রেণীর পুলিশের এ ধরণের কর্মকাণ্ড সন্ত্রাসবাদকে উৎসাহিত করবে বলে মত অপরাধ বিশ্লেষকদের।

সমস্যা সমাধানে অভিযুক্ত পুলিশ সদস্যদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া সহ বেশ কিছু পদক্ষেপের কথা জানালেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। তিনি বলেন, এসবির ক্লিয়ারেন্সটা অনলাইনে আনার চেষ্টা চলছে। আর যখন কোন অভিযোগ আসে তখনই ব্যবস্থা নেয়া হয়। পুলিশ রিপোর্টের ভিত্তিতে যে কোন সময় পাসপোর্ট বাতিল করার ক্ষমতা রয়েছে কর্তৃপক্ষের।




DMCA.com Protection Status

এই বিভাগের সকল সংবাদ

Contact Address

Nasir Trade Centre, Level-9,
89, Bir Uttam CR Dutta Road, Dhaka 1205, Bangladesh
Email: somoydigitalsomoynews.tv

Find us on

  Live TV DMCA.com Protection Status
উপরে