আপডেট
২২-০১-২০১৫, ০১:০৯
বিশ্বকাপ গ্যালারি

ক্রিকেট বিশ্বকাপে সংযোজন হচ্ছে নতুন নিয়ম

ক্রিকেট বিশ্বকাপে সংযোজন হচ্ছে নতুন নিয়ম
আধুনিক ক্রিকেটে মাঠের খেলায় নানা পরিবর্তনের পাশাপাশি সংযোজিত হচ্ছে নিত্য নতুন নিয়ম কানুন। বিশেষ করে স্লেজিং, অবৈধ বোলিং অ্যাকশন ও ম্যাচ ফিক্সিংয়ের মত বিষয়গুলো নিয়ে বেশ সোচ্চার এখন আইসিসি। আগে যে আইন ছিল, এখন তা আরো শক্তভাবে কার্যকর করার নির্দেশ এসেছে ক্রিকেটের সর্বোচ্চ সংস্থার পক্ষ থেকে। যার সর্বোচ্চ ব্যবহারটি হবে আসন্ন বিশ্বকাপে। এমনটাই জানান আইসিসি প্রধান নির্বাহী ডেভিড রিচার্ডসন।

ক্রিকেটকে বলা হয় ভদ্রলোকের খেলা। তবে গেল অস্ট্রেলিয়া-ভারত টেস্ট সিরিজ, কিংবা চলমান ত্রিদেশীয় সিরিজে বিশেষ করে ভারতীয় ও অস্ট্রেলিয়ানদের মাঠের বিতর্কগুলো কিন্তু তা ইঙ্গিত দেয় না। যদিও ডেভিড ওয়ার্নারের ম্যাচ ফি কর্তন বা সর্বমহলে কোহলির আচরণ নিয়ে মাঠের বাইরের সমালোচনা, বর্তমানে ক্রিকেটীয় ভাষায় 'স্লেজিং' চর্চাটিকে এনেছে পর্দার সামনে। বিষয়টি নিয়ে এখন বেশ সচেতন আইসিসিও। তাই আসন্ন বিশ্বকাপে এ ধরনের আচরণ থেকে ক্রিকেটারদের বিরত থাকতে হুশিয়ারি উচ্চারণ করলেন আইসিসি'র প্রধান নির্বাহী।

আইসিসির প্রধান নির্বাহী ডেভিড রিচার্ডসন বলেন, 'গেল ৬ মাস ধরে বিশেষ করে অ্যাশেজ ও সদ্য সমাপ্ত কয়েকটি ম্যাচে ক্রিকেটারদের আচরণগত ত্রুটি খেলার মাঠে বেশ বেড়ে গিয়েছিল। যা খুবই দুঃখজনক। এ ধরনের আচরণ কাম্য নয়। এসব বন্ধে এরই মধ্যে আম্পায়ারদের বিশেষ নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। এক্ষেত্রে সর্বোচ্চ শাস্তির যে বিধান রয়েছে তা দিতে কোন ধরনের সংকোচে না ভুগতেও নির্দেশ দেয়া হয়েছে ম্যাচ রেফারিদের।'

শুধু মাঠের আচরণ সংযত করা নিয়েই নয়, আইসিসি কাজ করছে মাঠ ও মাঠের বাইরের আতঙ্ক ফিক্সিং নিয়েও। বিশেষ করে আসন্ন বিশ্বকাপে যেন ফিক্সারের দৌরাত্ম কোনভাবেই টুর্নামেন্টকে ক্ষতিগ্রস্ত করতে না পারে তা নিয়েও বেশ সোচ্চার আইসিসি।

ডেভিড রিচার্ডসন আরো বলেন, 'ফিক্সিং রোধে যে কোন সময়ের চেয়ে আমরা এখন বেশি প্রস্তুত। আমাদের অ্যান্টি করাপশন ইউনিট এ নিয়ে যথেষ্ট গবেষণা করেছে। পাশাপাশি অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ড পুলিশ প্রশাসনের সহযোগিতা পাওয়ারও পূর্ণ আশ্বাস আকসু পেয়েছে। ফিক্সিংয়ের সাথে জড়িত এমন ১'শ ফিক্সারের তালিকাও আমরা পুলিশের কাছে দিয়েছি।'

এদিকে, অবৈধ বোলিং অ্যাকশন নিয়েও বেশ সজাগ থাকবেন ম্যাচ অফিসিয়ালসরা। রিচার্ডসন জানান, বিশ্বকাপকে এই অবৈধ বোলিংয়ের ছোবল থেকে বাঁচাতে ব্রিসবেনে এরই মধ্যে বোলিং অ্যাকশন পরীক্ষার জন্য ব্যবস্থা করা হয়েছে। যেখানে কোন সন্দেহভাজন বোলার গিয়ে পরীক্ষা করিয়ে ৭ দিনের মধ্যে রিপোর্ট পেয়ে যাবে। তাতে বিশ্বকাপ স্বপ্ন শেষ হওয়ার ভয় যেমন ক্রিকাটেরের থাকবে না, তেমনি অবৈধ প্রমাণিত হলে দলও তার ব্যাপারে খুব দ্রুত সিদ্ধান্ত নিতে পার।





DMCA.com Protection Status

এই বিভাগের সকল সংবাদ

Contact Address

Nasir Trade Centre, Level-9,
89, Bir Uttam CR Dutta Road, Dhaka 1205, Bangladesh
Email: somoydigitalsomoynews.tv

Find us on

  Live TV DMCA.com Protection Status
উপরে