এমরিটের ব্যাটে বরিশালের নাটকীয় জয়

Update: 2015-12-11 01:11:28, Published: 2015-12-11 01:11:28
bulls-win


নাটকীয়ভাবেই শেষ হলো বিপিএলের লিগ পর্বের শেষ ম্যাচ। রায়াদ এমরিটের অলরাউন্ড নৈপুণ্যে শ্বাসরুদ্ধকর ম্যাচে বরিশাল বুলস ২ উইকেটে হারিয়েছে ঢাকা ডাইনামাইটসকে। বৃহস্পতিবার মিরপুরে বরিশালের বিপক্ষে টস হেরে আগে ব্যাট করে ৬ উইকেট হারিয়ে ১৩৬ রান করে ঢাকা। জবাবে, ২ বল হাতে রেখেই জয়ের লক্ষ্যে পৌঁছে যায় বরিশাল। ম্যাচ সেরা হয়েছেন বরিশালের ক্যারিবিয় রিক্রুট রায়াদ এমরিট।

বরিশালের ক্যারিবিয়ান রিক্রুট রায়াদ এমরিট হয়তো এটা স্বপ্নেও কল্পনা করেননি। মিরপুরের ২২ গজের উইকেটে হয়তো স্বপ্নটাকেই রোমন্থন করলেন ব্রায়ান লারার স্বদেশি এমরিট। বল হাতে ২৯ রানে ২ উইকেটের পাশাপাশি ব্যাট হাতেও খেললেন ৫৪ রানের অনবদ্য এক ইনিংস।

এর আগে, দিনের প্রথম ম্যাচে সিলেটের হারে সব সমীকরণই পরিষ্কার হয়ে গেছে। সুতোর ওপর ঝুলতে থাকা সম্ভাবনাটাকে কাজে লাগিয়ে শীর্ষ চারের টিকিট পেয়ে গেছে ঢাকা ডাইনামাইটস। নিয়মরক্ষার ম্যাচে তাই দলের বড় তারকা সাঙ্গাকারাকে ছাড়াই মাঠে নামলো তারা। আর, তাদের প্রতিপক্ষ বরিশাল যেন আরো আয়েশি। শুধু দলেরই নয়, টুর্নামেন্টের সবচেয়ে বড় তারকা ক্রিস গেইলকে ছাড়াই মাঠে নামে মাহমুদুল্লাহ রিয়াদের দল।

টসে হেরে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা ভালো হলেও ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে ব্যর্থ ঢাকার ব্যাটসম্যানরা। ইনিংস ওপেন করতে নেমে ৪২ রানের জুটি উপহার দেন ফরহাদ রেজা ও মোহাম্মদ হাফিজ। কিন্তু এরপররই গেইলের জায়গায় একাদশে সুযোগ পাওয়া অখ্যাত কানাডিয়ান ক্রিকেটার নিখিল দত্তের স্পিন বিষেই ধীরে ধীরে নীল হতে থাকে ঢাকার ব্যাটিং লাইনআপ। ২১ বছরের এই তরুণই হাফিজকে ব্যক্তিগত ২৫, ওয়ালারকে ১০ ও নাসিরকে ১৪ রানে ফিরিয়ে দিয়ে ভেঙ্গে দেন ডাইনামাইটসের ব্যাটিং মেরুদণ্ড।

শেষ দিকে টেন ডেসকাটে ২২ ও মোসাদ্দেক অপরাজিত ৩০ রান করলেও সোহাগ গাজী এবং এমরিটের আঁটসাঁটও বোলিংয়ে বেশি দূর বিস্তৃত হয়নি ঢাকার ইনিংসের ডানা। শেষ পর্যন্ত ৬ উইকেটে ১৩৬ রানেই থামে তারা।

পয়েন্ট টেবিলে দ্বিতীয় স্থানটি দখল করতে গেলে এই রানকে মাত্র ৩ ওভারেই টপকে যেতে হবে বরিশালকে। এমন অবাস্তব সমীকরণের পেছনে অবশ্য ছোটেনি বুলস। প্রত্যাশা অনুযায়ী শুরুটা হয়নি মাহমুদুল্লাহ রিয়াদের দলের। ওপেনার মেহেদী মারুফের ৩৭ রান ছাড়া দুই অংকের কোটা স্পর্শ করতে ব্যর্থ টপ অর্ডারের ব্যাটসম্যানরা।

মোশারফের শিকার হয়ে দলীয় ৭৬ রানে মারুফ সাজঘরে ফিরে যাওয়ার পর দলের হাল ধরেন এমরিট। ২৮ বলে প্রায় দ্বিগুণ স্ট্রাইক রেটে খেলেন ৫৪ রানের অপরাজিত এক ইনিংস। নবম উইকেটে নিখিল দত্তের সাথে গড়েন ৪৩ রানের অবিচ্ছিন্ন জুটি। আর তাতেই কিনা ২ বল বাকি থাকতে জয়ের লক্ষ্যে পৌঁছে বরিশাল বুলস।

এই জয়ে পয়েন্ট বাড়লেও টেবিলে তৃতীয় স্থানেই রয়ে গেছে বরিশাল। আর হেরেও টেবিলের চতুর্থ স্থানে থেকেই এলিমিনেটর পর্বে ঐ বরিশালের প্রতিপক্ষ হয়েছে ঢাকা।




Update: 2015-12-11 01:11:28, Published: 2015-12-11 01:11:28

আপনার মন্তব্য লিখুন

পাঠকের মন্তব্য ( )


More News
  


আরও সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ



সরাসরি যোগাযোগ

৮৯, বীর উত্তম সি. আর. দত্ত রোড, ঢাকা ১২০৫, বাংলাদেশ।
ফ্যাক্স: +৮৮০২ ৯৬৭০০৫৭, ইমেইল: info@somoynews.tv
উপরে en.Somoynews.tv