একুশের উচ্ছ্বাসে মেলায় দর্শনার্থীদের ঢল

Update: 2015-02-21 21:49:25, Published: 2015-02-21 21:40:33
একুশের উচ্ছ্বাসে মেলায় দর্শনার্থীদের ঢল
অমর একুশে গ্রন্থমেলার ২১তম দিন। মহান একুশে ফেব্রুয়ারি আজ। এই দিনে ভাষার জন্য প্রাণ উৎসর্গ করে ইতিহাসে চূড়ান্ত অধ্যয় রচনা করে বাংলার দামাল ছেলেরা। সেই ভাষা শহিদদের প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা ও ভালবাসার পর বইমেলায় ঢল নামে বইপ্রেমী দর্শকদের। শনিবার সকালে এ ঢল আছড়ে পড়ে বইমেলার মূল প্রাঙ্গণ বাংলা একাডেমি চত্বর ও সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে।

সকাল ৮টা থেকেই উন্মুক্ত করে দেয়া হয় বইমেলার দুয়ার। নানা বয়সী পাঠক-দর্শনার্থীর উপচে পড়া ভিড়ে বইমেলার আসল চিত্র ফুটে ওঠে। সকাল থেকে সন্ধ্যার পর পর্যন্ত দেখা যায় বাঙালির প্রাণোচ্ছ্বাসের উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত।

তবে মেলায় বইক্রেতা পাঠকের চেয়ে দর্শনার্থীদের ভিড় বেশি বলে অনেক বিক্রেতাই মন্তব্য করেছেন। তবে তারা স্বীকার করেছেন- অন্যদিনের তুলনায় আজ ক্রেতাদের বাড়তি উপস্থিতিও চোখে পড়ার মতো। নানা স্টল ঘুরে ঘুরে তারা পছন্দ করছেন প্রিয় লেখকের বই। এছাড়া নতুন লেখকদের বইও কিনতে দেখা গেছে তাদের।

মেলার মূল অংশ সোহরাওয়ার্দীতে হলেও অধিকাংশ শিশুতোষগ্রন্থের প্রকাশনীগুলো একাডেমির প্রাঙ্গণেই রাখা হয়েছে। সেজন্য পরিবারের ছোট ছোট বাচ্চারাও বড়দের সাথে ভিড় জমিয়েছে বাংলা একাডেমির প্রাঙ্গণে। সোহরাওয়ার্দীতেও সাজানো ছিলো ছোট-বড় সব বয়সী বইয়ের প্রকাশনাগুলো।

কয়েক জন প্রকাশক বলেন, অন্যদিনের তুলনায় আজকে তাদের বেচাবিক্রি বেশ ভাল। ছোটদের বই বিক্রির পাশাপাশি প্রেমের উপন্যাস ও কবিতার বেশ চাহিদা ছিল। তরুণ পাঠকের অনেকে পছন্দ মতো প্রেমের কবিতা কিনেছেন। সব মিলিয়ে আজ বইমেলা যেন তার প্রকৃত চেহার ফিরে পেয়েছে।

মেলায় জোটবন্ধ তরুণ দর্শনার্থীরা জানান, 'একুশে ফেব্রুয়ারি উপলক্ষে তারা আজ প্রথম মেলায় এসেছেন। রাজনৈতিক অস্থিরতার কারণে ইচ্ছে থাকলেও তারা মেলায় আসতে পারেননি। তবে একুশে ফেব্রুয়ারি বলে কথা। বন্ধুদের উচ্ছ্বাসে একাকার হয়ে চলে এসেছেন তাদের প্রিয় গ্রন্থমেলার প্রশান্তির আঙিনায়।

Update: 2015-02-21 21:49:25, Published: 2015-02-21 21:40:33

আপনার মন্তব্য লিখুন

পাঠকের মন্তব্য ( )


More News
  


আরও সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ



Contact Address

89, Bir Uttam CR Dutta Road, Dhaka 1205, Bangladesh.
Fax: +8802 9670057, Email: info@somoynews.tv
উপরে en.Somoynews.tv