আপডেট
১০-০৩-২০১৫, ১৪:৪০

আমি নিরাপদে ফিরেছি- আপনি?

epz
৬ মার্চ শুক্রবার, ভোর পাঁচটা। ঘুম থেকে সচরাচর এতো সকালে ওঠা হয় না। তবুও সকালের ঘুম ত্যাগ করে উঠতেই হলো। কারণ অফিসের কাজে রওয়ানা দিতে হবে। আর আমাদের গন্তব্য ঈশ্বরদী ইপিজেড। আমরা চার জন সহকর্মী। ঘর থেকে বের হওয়ার কথা সকাল ৬টায়। তবে গাড়ি আসতে দেরি হওয়ায় শুরুতেই বিপাকে পড়তে হলো। ড্রাইভারকে ফোন করে যা শুনলাম তা নিতান্তই চমকে ওঠার মতো ব্যাপার। টঙ্গী স্টেশন রোডে গাড়ি নাকি ৪৫ মিনিট ধরে জ্যামে আটকে আছে। এতো সকালে জ্যামের খবর শুনে শুরুতে মনে হলো ড্রাইভার মিথ্যে বলছে। তবে রওয়ানা দেয়ার পর বুঝলাম না, কথাটা মিথ্যে নয়।

যাই হোক, আমরা রওয়ানা হলাম ঈশ্বরদীর পথে। ২০ দলীয় জোটের অনির্দিষ্ট টানা আবরোধ শুরু হওয়ার পর ঢাকার বাইরে দূর-যাত্রায় এটাই আমাদের প্রথম সফর। সঙ্গত কারণেই মনের ভেতর আতঙ্ক। খুব সকালে ঘুম ছেড়ে উঠে আসায় আমাদের চোখে ঘুমের ছাপ। অন্য সময়ে হলে ভোরের ঘুমটা হয়তো যাত্রা পথেই সেরে নেয়া যেতো, কিন্তু চলমান পরিস্থিতির উদ্বেগ আমাদের আরামের ঘুমকে হারাম করেছে। ফলে আমাদের কেউই ঘুমোচ্ছে না। পেট্রোল বোমা আতঙ্ক অন্যদের মতো আমাদেরকেও নিস্তার দেয়নি। যদিও প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, অবরোধের ক্ষয়-ক্ষত তিনি পুষিয়ে দেবেন। কিন্তু জীবন হারানোর মতো অপূরণীয় ক্ষতি কোনোভাবেই কি পূরণ সম্ভব?। নির্ঘাৎ বোকা লোকদের প্রতিটি সদস্য বিষয়টি বোঝেন। আর হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে দগ্ধ মানুষের তীব্র যন্ত্রণার মতো জাগতিক আজাবের কি-ই বা ক্ষতি পূরণ থাকতে পারে!

উদ্বেগের যাত্রায় আমরা সত্যি নিরুপায়। ফলে বের হতে হয়েছে। তাই বলে দুঃসংবাদের  শিরোনাম আমাদের কাম্য নয়। আর তা একেবারেই আমরা চাইছি না। অন্যদের ক্ষেত্রে যদি এমনটা ঘটে? আমরা তাও কামনা করি না।

এতোসব ভাবনার ভেতর আমাদের গাড়ি আশুলিয়া হয়ে সাভার ইপিজেড, অতঃপর চন্দ্রা। পূর্বেই বলেছি, চলমান অবরোধে এটিই আমাদের ঢাকা ছেড়ে প্রথম কোনো দূর-যাত্রা। সরকারের সব মহল থেকে বলা হচ্ছে জনমানুষের জোর নিরাপত্তা নিশ্চিতের কথা। বিরোধীরাও সহিংসতার দায় স্বীকারে নারাজ। আবার গণমাধ্যমেও প্রচার হচ্ছে ঘটনার পেছনের ঘটনা। পুলিশ, র‍্যাব, বিজিবির পাশাপাশি ১১ হাজারের বেশি আনসার সদস্য মোতায়েন করেছে সরকার। সব মিলিয়ে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর নিরাপত্তা বলয়ে সাধারণ মানুষ কিছুটা আশ্বস্ত। আমরাও আশ্বস্ত হতে চাই। অন্তত এই মুহূর্তের জন্য। কৌতুহল নিয়ে মহাসড়কের দিকে নজর ফেরালাম।  হঠাৎ চন্দ্রা থেকে মনোযোগটা একটু শক্ত হলো। আমরা দেখলাম- সেই অর্থে কোথাও আইনশৃঙ্খলা বাহীনীর টিকিটাও খুঁজে পেলাম না। অন্তত টাঙ্গাইল পর্যন্ত। এলেঙ্গা বাজারে পৌঁছে দেখলাম- দু'জন ট্রাফিক পুলিশ যানবাহনের শৃঙ্খলার কাজে ব্যস্ত আর বঙ্গবন্ধু সেতু পর্যন্ত  পথে দুই জন আনসার সদস্য দাঁড়িয়ে। এছাড়া আর কোনো পুলিশ, র‍্যাব বা বিজিবি সদস্যের উপস্থিতি সেই সময়ে আমাদের চোখে অন্তত পড়েনি।এ সময় মনে পড়ে সেই প্রবাদ বাক্যটি, 'লক্ষ মানুষ মরে যায় কাতারে কাতার, শুমার করিয়া দেখে চল্লিশ হাজার”। যাই হোক, অন্তত দুইজন আনসার সদস্যের দেখা পেয়েই আমরা সন্তুষ্ট!



পথে নিরাপত্তায় নিয়োজিত সরকারি বাহিনীর নানান চিত্র দেখতে দেখতে আমরা ফেলে এসেছি অনেকটা পথ। ততক্ষণে ঘড়ির কাটা ঠেকেছে প্রায় সাড়ে দশটায়। ইতোমধ্যে আমরা চলন বিল পেরিয়ে পৌঁছে গেছি ঈশ্বরদীর কাছাকাছি। হার্ডিঞ্জ ব্রিজ আর লালন সেতুর আগে শাখা পথে একটু এগুলে ব্রিটিশদের তৈরি টানেল। এই টানেল পেরিয়ে ডান পাশে পরিত্যক্ত ঈশ্বরদী কাগজ কল এবং বাম পাশে ফুরফুরা দরবার শরীফ। এই ঐতিহাসিক স্থাপনাগুলো পার হলেই চোখে পড়ল ঈশ্বরদী ইপিজেড। আমরা কোনো দুর্ঘটনা ছাড়াই ভেতরে প্রবেশ করলাম। আমার মতো অন্য সহকর্মীও স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেললেন। এভাবেই উদ্বেগ ও উৎকণ্ঠার মধ্যদিয়ে আমরা পৌঁছে গেলাম আমাদের অনিরাপদ যাত্রার নিরাপদ গন্তব্যে।

যথা সময়ে আমাদের অফিসের কর্মকাণ্ড সমাপ্ত করলাম। এবার রাজধানীতে ফেরার পালা। আবারও চিন্তার চিহ্ন আমাদের কপালের ভাজে ভাজে। ড্রাইভারকে বললাম, যে করেই হোক, বনপাড়া আর চলনবিল পার হতে হবে সন্ধ্যার আগে। ড্রাইভার আশ্বস্ত করল। মহাসড়কে ওঠার পর ফেরার পথে চোখে পড়লো উল্লেখ করার মতো মাল বোঝাই শত শত ট্রাক। যান বাহনের শতকরা ৯৮ শতাংশই ট্রাক আর এর মাঝে শাঁই শাঁই করে ‌আমাদের পার হয়ে যাচ্ছে প্রাইভেট কার আর মাইক্রোবাস। আমরা যে গাড়িতে করে যাচ্ছি, সেটি একটি পাজেরো। যখন শাহ ফতেহ আলী পরিবহণের একটি বাস আমাদের অতিক্রম করলো তখনই আমার গাড়ির স্পিড মিটারের দিকে চোখ পড়লো। আমাদের গাড়িটির গতি তখন ৮০ কিলোমিটার আর তার সাথে তুলনা করলে বাসটির গতি কমপক্ষে ৯০-১০০ কিলোমিটার হবে আর এই গতিতে এতবড় একটি বাস অসংখ্য মালবাহী ট্রাকের ভীড়ে চালানো খুবই ঝুঁকিপূর্ণ। বিষয়টি নিয়ে কথা বলায় আমাদের ড্রাইভার মন্তব্য প্রাজ্ঞপূর্ণ মন্তব্য করলেন-'এরা পুড়ে মরার চেয়ে দুর্ঘটনায় মরাকে প্রশান্তির মনে করে।'

সন্ধ্যা নামতেই আমরা বঙ্গবন্ধু সেতু পার হয়ে টাঙ্গাইল অতিক্রম করলাম। আমার পাশের সহকর্মী বলেলন, জানেন, স্বাধীনতার নয় মাসে এই বৃহত্তর টাঙ্গাইলে পাকিস্তানি সেনা প্রবেশ করতে পারেনি। পরাধীন থাকা কালীন এই অঞ্চলের মানুষগুলো ছিলো নিরাপদ, আর আমরা স্বাধীন দেশে এই একই অঞ্চলে আতঙ্ক নিয়ে পার হচ্ছি। এর চেয়ে লজ্জার কী হতে পারে?

সত্যি বলতে কী, লজ্জা হয়নি একটুও, কারণ আমাদের নেত্রীর নাম খালেদা-হাসিনা। একজন ক্ষমতায় থাকতে আর আরেকজন ক্ষমতায় যেতে জিম্মি করেছে আমাদের স্বভাবিক জীবন, অর্থনীতি, কোমলমতি শিশুদের শিক্ষা, রাজনীতিতে অজ্ঞ সাধারণ মানুষের চিকিৎসার অধিকার। লজ্জা হয়নি একটুও, কারণ আমাদের রাজনীতিকদের কাছে এসব মৌলিক অধিকারের চেয়ে তথাকথিত গণতান্ত্রিক হরতাল আর অবরোধের অধিকারই বড়। লজ্জা হয়নি একটুও, কারণ আমাদের জাতীয় নেতৃবৃন্দের কারও ভেতরে লজ্জার লেশমাত্র নেই। আর সবচেয়ে বড় কথা, যখন মনে মৃত্যুর আতঙ্ক, তখন লজ্জা পালিয়ে যায় সহস্র ক্রোশ দূর, আমিই তার প্রমাণ।

টাঙ্গাইল পার হয়ে ততক্ষণে আমরা মির্জাপুর। আর সেখানে পড়লাম এক দীর্ঘ যানজটে। পথ যেন শেষই হতে চায় না। হঠাৎ হেমন্তের বিখ্যাত গানটির কথা মনে পড়লো - 'এই পথ যদি না শেষ হয়, তবে কেমন হতো তুমি বল তো?'

বড়ই সর্বনাশ হতো হেমন্ত দা। প্লিজ! মাইন্ড করো না দাদা। আজ তুমিও যদি আমাদের যাত্রা-সঙ্গী হতে, তবে নিশ্চয়ই গানের কথা ভুলে প্রাণের প্রলাপে মনোযোগী হতে। এবার তাদের উদ্দেশ্যে বয়ান: আমরা কোনো মতের শেষ চাই না। তবে পথের শেষ চাই। স্বাভাবিক মৃত্যুর গ্যারান্টি চাই। আমরা চাই- একটু নিরাপদে ঘরে ফিরতে। তবুও প্রশ্ন জাগে- আমি নিরাপদে ফিরেছি, আপনি ফিরতে পেরেছেন তো?

-মো. মোক্তার হোসেন, কবি ও ব্লগার




DMCA.com Protection Status

এই বিভাগের সকল সংবাদ

...

সর্বশেষ সংবাদ

আইভীর পায়ে আঘাতে চিহ্ন, ২৪ ঘন্টার আগে শঙ্কামুক্ত বলা যাবে না ভারতে নারী ও শিশুসহ ৬ বাংলাদেশির কারাদণ্ড ৩ ধরনের কাঁচা পাট রপ্তানিতে নিষেধাজ্ঞা রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশ-মিয়ানমারকে আর্থিক সহায়তা দিতে প্রস্তুত এডিবি সুষ্ঠ ভোট দিলে বিএনপি আশি শতাংশ ভোট পাবে: ফখরুল দিনাজপুর-৪ আসনে জাতীয় নির্বাচনের হাওয়া হিজড়াদের ভোটার তালিকায় অন্তর্ভুক্তির সিদ্ধান্ত ইসির নাখালপাড়ায় নিহত জঙ্গিদের ২ জনের ছবি প্রকাশ করেছে র‌্যাব উপাচার্যের আশ্বাসে ঢাবি অধিভুক্ত কলেজের শিক্ষার্থীদের অবরোধ প্রত্যাহার এবার অস্ত্রের লাইসেন্স পাবে এমপি পত্নীরা ‘নারায়ণগঞ্জে সংঘর্ষে জড়িতদের শনাক্তে কাজ চলছে’ শ্লীলতাহানির অভিযোগে পুলিশের হাতেই গ্রেফতার পুলিশ ঢাবি ক্যাম্পাসে প্রেমিককে কুপানো সেই প্রেমিকা লাভলী কারাগারে টাঙ্গাইলে সপ্তাহব্যাপী এসএমই পণ্য মেলা শুরু ফেলানী হত্যাকাণ্ড, তিন সপ্তাহের মধ্যে হলফনামার মাধ্যমে জবাব দেয়ার নির্দেশ আইসিসির বর্ষসেরা দলে জায়গা হয়নি কোন বাংলাদেশির খালেদা জিয়ার যুক্তিতর্কের দিন নির্ধারণ আরও ছয়মাসের জন্য রক্ষা পেল যশোর রোডের শতবর্ষী গাছগুলো ভর্তির লোভ দেখিয়ে ‘প্রেম’, জাবি শিক্ষার্থী বহিষ্কার উপনির্বাচন স্থগিতের কারণ কমিশনের দূরদর্শিতার অভাব, দাবি বিশেষজ্ঞদের বছরের সেরা ক্রিকেটার কোহলি নীলফামারীতে শিক্ষার্থী ধর্ষণ, জড়িতদের গ্রেফতারের দাবিতে পরিবারের সংবাদ সম্মেলন 'জেরুজালেমকে ইসরাইলের রাজধানী ঘোষণা যুক্তরাষ্ট্রের জঘন্য পদক্ষেপ' কাল থেকে শুরু হচ্ছে বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় পর্ব শিক্ষককে কুপিয়ে হত্যার দায়ে একজনের মৃত্যুদণ্ড পাঁচ দিনের সফর শেষে ফিরে গেলেন প্রণব মুখার্জি নতুন প্রজন্মের রকেট উৎক্ষেপণ করলো জাপান বাংলাদেশের মানুষ সবসময় অধিকার বঞ্চিত: সুলতানা কামাল ডাকসু নির্বাচন নিয়ে আদালতের নির্দেশনায় মিশ্র প্রতিক্রিয়া ছাত্র সংগঠনগুলোর রেকর্ড কর পরিশোধ করবে অ্যাপল অনলাইন আবেদনের সুবিধা চালু করল পেটেন্ট ডিজাইন ও ট্রেডমার্ক অধিদপ্তর নারী শরীরের চেয়ে নৈসর্গিক আর কিছু নেই: রাম গোপাল ভার্মা ১৬০ টি রুশ কচ্ছপ উদ্ধার, এক নারী আটক মস্কোর একটি শপিং মলে ভয়াবহ আগুন, ব্যাপক ক্ষতির আশঙ্কা রাজধানীতে ৩ ছিনতাইকারী আটক ফিলিপিন্সে আগ্নেয়গিরিতে ভয়াবহ বিস্ফোরণ, বাড়ি ছেড়েছে ৩৭ হাজার লোক ‘জলবায়ু পরিবর্তনের ক্ষতিকর প্রভাবে দেশে চাল উৎপাদন কমেছে’ মেয়র আইভী অসুস্থ, হাসপাতালে ভর্তি শিয়া নেতার মুক্তির দাবিতে বিক্ষোভ ইসি ভবনের সমানে থেকে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ বাসে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে নিহত ৫৫ টিকেটে 'বাংলাদেশ' বানান ভুল, বিসিবির দুঃখ প্রকাশ ভিডিও ফুটেজ দেখে অস্ত্র প্রদর্শনকারীদের ধরা হবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বাসের ভাড়া বৃদ্ধির প্রতিবাদে ব্রাজিলে বিক্ষোভ সিরিয়ায় মার্কিন বাহিনীর কার্যক্রম আরও জোরদারের ঘোষণা ‘দক্ষিণ এশিয়া অশান্ত করতে ষড়যন্ত্র করছে যুক্তরাষ্ট্র’ দায়িত্বে অবহেলার জন্য সহকর্মীর মৃত্যু, মার্কিন নৌ কমান্ডার অভিযুক্ত সরকারবিরোধী বিক্ষোভে উত্তাল পাকিস্তান লিবীয়া উপকূল থেকে দুই শতাধিক আফ্রিকান নাগরিক আটক উপনির্বাচন নিয়ে বিএনপি বিভ্রান্তমূলক তথ্য ছড়াচ্ছে: তোফায়েল ইইউ'র যেকোনো সমস্যা সমাধানে কাজ করার প্রত্যয় জার্মানি ও অস্ট্রিয়ার ‘উত্তর কোরিয়ার উপর আন্তর্জাতিক চাপের প্রভাব পড়তে শুরু করেছে’ ব্রেক্সিটের সিদ্ধান্ত বাতিল করবে যুক্তরাজ্য, প্রত্যাশা ইউরোপিয়ান কমিশন প্রধানের শীতকালীন অলিম্পিকের অংশ নিবে ২ কোরিয়া কাতালোনিয়ার পার্লামেন্টে ফের স্বাধীনতাপন্থীরা, অস্বস্তিতে মাদ্রিদ অসৎ সাংবাদিকদের পুরস্কৃত করবেন ট্রাম্প! কাশ্মীর সীমান্তে বন্দুকযুদ্ধে নিহত ৪ কোন কোন প্রোটিন ওজন কমাতে অধিক কার্যকরী ইরানের সঙ্গে ছয় জাতির চুক্তি পরিবর্তন ছাড়াই বাস্তবায়ন করত হবে: জাতিসংঘ ক্ষেপণাস্ত্রের সফল পরীক্ষা চালাল ভারত সৌদি আরব মুসলিম বিশ্বের সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করেছে: ইরান ডিএনসিসি নির্বাচন স্থগিত হওয়ায় আ.লীগ হতাশ: সেতুমন্ত্রী তর্ক-বিতর্কের নির্বাচন ডিএনসিসি নির্বাচন 'দুর্ভিক্ষে কষ্ট ঠেকাতে উত্তরবঙ্গের উন্নয়নে কাজ করছে সরকার' নির্বাচন কমিশন ভবন সংলগ্ন অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত অবরোধ তুলবে না শিক্ষার্থীরা গোয়েন্দা পুলিশের ফাঁদে তিন ছিনতাইকারী ২৯ ম্যাচ পর পরাজয়ের স্বাদ পেলো বার্সা বেঁচে থাকার সুযোগ পেলো শতবর্ষী গাছগুলো দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের ১৮ ওয়ার্ডের নির্বাচন স্থগিত শততম ম্যাচ কাভারের মাইলফলক ছুঁলেন কয়েকজন সাংবাদিক পায়রা সেতু নির্মাণে ৬ কোটি ডলার ঋণ পাচ্ছে সরকার আজ শীর্ষ ষোলোর প্রথম লেগে মাঠে নামবে রিয়াল মাদ্রিদ দ্বিতীয় টেস্টে ভারতকে ১৩৫ রানে হারিয়েছে দ.আফ্রিকা শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সানজামুলের জায়গায় মিরাজ! যুক্তিতর্ক উপস্থাপনে আদালতে বেগম জিয়া 'তেল আবিব থেকে মার্কিন দূতাবাস সরানোর পরিকল্পনা নেই' মুন সিনেমা হলের মালিক পাচ্ছেন ৯৯ কোটি টাকা প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে আল হার্বিশের সৌজন্য সাক্ষাৎ স্কুলছাত্র আদনান নিহতের ঘটনায় ৫ কিশোর আটক, রক্তমাখা ছুরি উদ্ধার ক্ষুধামুক্ত রংপুর গড়তে বদ্ধপরিকর সরকার: প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশি মুক্তিযোদ্ধা সন্তানদের জন্য শিক্ষাবৃত্তি দিচ্ছে ভারত, থাকছে আবেদনের নিয়মাবলী ট্রাম্পের কতজন গার্লফ্রেন্ড ছিলেন জানেন.. তৃণমূল পর্যায়ে পিপিপি'র কর্মকাণ্ড বাড়ানোর আহ্বান সরকারি দপ্তরে সেবা পেতে দেরি হওয়াও বিনিয়োগ না আসার একটি কারণ ঢাবি ক্যাম্পাসে প্রেমিকার ছুরিকাঘাতে প্রেমিক আহত শপথ গ্রহণ করলেন নবনির্বাচিত মেয়র মোস্তাফিজার রহমান কমেছে শীতের তাণ্ডব পরাজয়ের মুখ দেখলো বাংলাদেশের যুবারা নাইজেরিয়ায় বোকা হারামের হামলায় নিহত ১২ বাপ্পীকে জড়িয়ে ধরে কাঁদলেন আঁখি! বিসিবি বেমালুম ভুলে গেলো? ঘনিয়ে আসছে রাসিক নির্বাচন, প্রচারণায় ব্যস্ত সম্ভাব্য প্রার্থীরা শেখ পরিবারের নতুন সদস্যের যে ভাষণে মুগ্ধ দেশবাসী (ভিডিও) বহির্বিশ্ব জানে বাংলাদেশ নিরাপদ দেশ: শহীদুল হক জাবিতে ভিনদেশী পাখিতে মুখরিত ক্যাম্পাসের লেক বিয়ে খেয়ে আর বাড়ি ফেরা হলো না দুই বন্ধুর ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় বিদ্যালয়ে ডিজিটাল ল্যাবের উদ্বোধন সাভারে ৩ শতাধিক অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন নাটোরে চার নারীসহ জামায়াতের সাত কর্মী আটক



Contact Address

Nasir Trade Centre, Level-9,
89, Bir Uttam CR Dutta Road, Dhaka 1205, Bangladesh
Email: somoydigitalsomoynews.tv

Find us on

  Live TV DMCA.com Protection Status
উপরে