অবরোধে দিনাজপুরে জ্বালানি তেলের সঙ্কট

Update: 2015-01-17 08:52:59, Published: 2015-01-17 08:52:59
অবরোধে দিনাজপুরে জ্বালানি তেলের সঙ্কট


লাগাতার অবরোধ আর হরতালে পর্যাপ্ত সরবরাহ না থাকায় জ্বালানি সঙ্কটে পড়েছে দিনাজপুরের পেট্রোল পাম্পগুলো। আর এর প্রভাব পড়েছে পরিবহন সেক্টরে। জ্বালানি নির্ভর বাস, ট্রাক, মাইক্রোবাস এবং মোটরসাইকেল ব্যবহারকারীরা পড়েছেন বিপাকে। ডিজেল সঙ্কট চলতি বোরো মৌসুমে সেচ কাজে বিরূপ প্রভাব ফেলতে পারে বলে আশঙ্কা কৃষকদের। তবে পেট্রোল সঙ্কট থাকলেও ডিজেলের সঙ্কট নেই বলে দাবি জেলা পেট্রোল পাম্প ও জ্বালানি তেল পরিবেশক মালিক গ্রুপের।

বিএনপি-জামায়াত জোটের টানা অবরোধ ও হরতালের কারণে খুলনা ডিপো থেকে রেলপথে সময় মত জ্বালানি তেলের র‍্যাকার আসতে না পারায় পার্বতীপুর ডিপোতে দেখা দিয়েছে জ্বালানি সঙ্কট। জ্বালানি তেলের মজুত না থাকায় বন্ধ রাখা হয়েছে অধিকাংশ পেট্রোল পাম্প। সড়কগুলোতে ট্রাক, ট্যাংক লরী চলাচলও সীমিত হয়ে পড়েছে। পুলিশি প্রহরায় জ্বালানি তেল ডিপো থেকে সীমতি পরিমাণে ট্যাংক লরীর মাধ্যমে আনা হলেও সব পেট্রোল পাম্পগুলোতে সরবরাহ করা যাচ্ছে না। এ অবস্থায় অধিকাংশ পাম্পে গিয়ে পেট্রোল না পেয়ে দুর্ভোগের শিকার যানবাহন চালকরা।

এদিকে আসন্ন বোরো মৌসুমে  শ্যালো মেশিন চালাতে ডিজেল সঙ্কটের আশঙ্কার কথা জানালেন কৃষকরাও।

কৃষকরা বলেন, 'পাম্পে গিয়ে তেল পাচ্ছি না। তেল সঙ্কটের কারণে চাষাবাদ করা যাচ্ছে না।'

অন্যদিকে, হরতাল অবরোধের কারণে জ্বালানি তেল আনতে পারছেন না বলে জানান পাম্প ম্যানেজাররা।

পাম্প ম্যানেজাররা বলেন, 'ডিপোতে তেল নিয়মিত সরবরাহ দিচ্ছে। ট্যাংক লরীতে আগুন দেওয়ার কারণে ঝুঁকি নিয়ে তেল নিয়ে আসতে পারছে না গাড়ির মালিকরা।'

অবশ্য জ্বালানি পরিবেশক মালিক গ্রুপের সভাপতির দাবি পেট্রোলের সমস্যা থাকলেও ডিজেলের সঙ্কট নেই।

জেলা পেট্রোল পাম্প ও জ্বালানি তেল পরিবেশক মালিক গ্রুপের সভাপতি লুৎফর রহমান মিন্টু বলেন, 'গাড়ি পাঠাতে মালিকরা ভয় পাচ্ছে। তারপরও প্রশাসনের সহযোগিতায় কিছু কিছু গাড়ি তেল নিয়ে আসছে।'

তবে জেলা পুলিশের শীর্ষ কর্মকর্তার দাবি আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর নিরাপত্তার মাধ্যমে জেলায় জ্বালানি তেল সরবরাহ স্বাভাবিক রয়েছে।

জেলার পুলিশ সুপার মোঃ রুহুল আমীন বলেন, 'আমরা বিশেষ ব্যবস্থায় দিনাজপুরসহ সংশ্লিষ্ট জেলা গুলোর সাথে সমন্বয় করছি। এখন পর্যন্ত তেল সঙ্কটের কোনো অভিযোগ আমাদের কাছে আসেনি। তেলের সরবরাহ স্বাভাবিক আছে।'


দিনাজপুরে ১৩টি উপজেলায় ৬৫টি পাম্পে প্রতিদিন গড়ে ৫৫ হাজার লিটার পেট্রোল, ১ লাখ ৪০ হাজার লিটার ডিজেল ও ২০ হাজার লিটার অকটেনের চাহিদা রয়েছে।

Update: 2015-01-17 08:52:59, Published: 2015-01-17 08:52:59

আপনার মন্তব্য লিখুন

পাঠকের মন্তব্য ( )


More News
  


আরও সংবাদ


জনপ্রিয় ট্যাগ

সংবাদ অনুসন্ধান

সরাসরি সম্প্রচার

সরাসরি যোগাযোগ

৮৯, বীর উত্তম সি. আর. দত্ত রোড, ঢাকা ১২০৫, বাংলাদেশ।
ফ্যাক্স: +৮৮০২ ৯৬৭০০৫৭, ইমেইল: info@somoynews.tv
উপরে en.Somoynews.tv