bpl bpl
বিপিএল দল সূচি ফলাফল পয়েন্ট টেবিল খবর ছবি ভিডিও

ওস্তাদেরা শেষ রাতে এভাবেই ‘খেল’ দেখান

tamim-iqbal

ওস্তাদেরা নাকি শেষ রাতেই খেল দেখান। দেশের ক্রিকেটে তামিম ইকবাল যে ‘ওস্তাদ’র পর্যায়েই পড়েন সেটা নিয়ে খুব একটা বিতর্ক থাকার কথা নয়। তবে কেউ যদি বিতর্ক করতে চান তবে একবার বিপিএলের ষষ্ঠ আসরের স্কোরবোর্ডে নজর বুলিয়ে নিন।

টুর্নামেন্টে আগের ১৩ ইনিংসে তামিমের রান ছিল ৩২৬। এরমধ্যে তিন ম্যাচে শূন্য রানে ফিরেছেন, যা আসরের রেকর্ড। তবে মিরপুরে ফাইনালে ব্যাটিংয়ের সব সৌন্দর্য নিয়ে হাজির হয়েছিলেন তামিম। ঢাকা ডায়নামাইটসের শক্তিশালী বোলিং লাইনআপকে কচুকাটা করেছেন। ইনিংসের শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত খেলেছেন। মাত্র ৬১ বলে করেছেন ১৪১ রান। বিপিএলে এটিই তামিমের ক্যারিয়ার সেরা ইনিংস। আর টুর্নামেন্টটির ইতিহাসে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ইনিংস। ২০১৭ সালে ঢাকা ডায়নামাইটসের ক্রিস গেইল খেলেছিলেন ১৪৬ রানের অপরাজিত ইনিংস। মাত্র ৫ রানের জন্য রেকর্ডটি নিজের করে নিতে পারেননি তামিম।

টস হেরে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে তামিমের ব্যাটে ভর করেই ১৯৯ রানের বড় সংগ্রহ পায় কুমিল্লা। ১৪১ রানের এই ইনিংস খেলার পথে তামিম হাঁকান ১০টি চার। ছক্কা হাঁকিয়েছেন চারের চেয়েও বেশি- ১১টি!

ঢাকার বোলারদের তুলোধুনা করার দিনে তামিম গড়েছেন বেশ কয়েকটি রেকর্ড। তামিম এদিন শতক পূর্ণ করেন ৫০তম বলে। মাত্র ৫০ বলে সেঞ্চুরি হাঁকিয়ে তিনিই এখন বিপিএলে কিংবা টি-২০ ক্রিকেটে বাংলাদেশের দ্রুততম সেঞ্চুরিয়ান। আর এই রেকর্ড গড়ার পথে ভেঙেছেন নিজেরই পুরনো রেকর্ড। টি-২০ ক্রিকেটে তামিমের এটি তৃতীয় শতক। তৃতীয় শতকটি একইসাথে এই ফরম্যাটে যেকোনো বাংলাদেশি ব্যাটসম্যানের সর্বোচ্চ রানের ইনিংসও। এর আগে ১৩০ রানের ইনিংস খেলেছিলেন, যা এখন দ্বিতীয় স্থানে। ২০১৩ সালে বিজয় দিবস টি-২০ ক্রিকেটে ইউসিবি-বিসিবি একাদশের হয়ে ঐ ইনিংস খেলেছিলেন।

বিপিএলের ফাইনালের মঞ্চে কোনো বাংলাদেশি ক্রিকেটারের এটিই প্রথম শতক। এর আগে শিরোপার লড়াইয়ে কোনো বাংলাদেশি ক্রিকেটার শতক হাঁকাতে পারেননি। টি-২০ ক্রিকেটে তিনটি শতক হাঁকানো প্রথম বাংলাদেশি ব্যাটসম্যান তামিম। বিপিএলে কোনো বাংলাদেশি ক্রিকেটারের সর্বোচ্চ রানের ব্যক্তিগত ইনিংস। পেছনে ফেলেছেন সাব্বির রহমানকে, যিনি খেলেছিলেন ১২২ রানের ইনিংস।

টি-২০ ফরম্যাটে ইনিংসে সবচেয়ে বেশি ছক্কা হাঁকানোর দিক থেকেও সাব্বিরের রেকর্ড ভেঙেছেন। ১১টি ছক্কা হাঁকিয়ে সাব্বিরের সর্বোচ্চ ৯টি ছক্কার কীর্তিকে ঠেলেছেন দ্বিতীয় স্থানে।
বিপিএলের ফাইনালে এটি দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রানের ইনিংস। এর আগে পঞ্চম বিপিএলে রংপুর রাইডার্সের হয়ে ক্রিস গেইল খেলেছিলেন ১৪৬ রানের ইনিংস।

শাহরিয়ার নাফীস, মোহাম্মদ আশরাফুল সাব্বির রহমানের পর তামিমই বিপিএলের সেঞ্চুরিয়ান।

আর দারুণ ইনিংস খেলার দিনে তামিমের সবচেয়ে বড় অর্জন নিশ্চয়ই প্রথমবারের মতো বিপিএলের শিরোপা জয়।